×

খেলা

পাকিস্তান-নিউজিল্যান্ড সিরিজ ভাগাভাগি

Icon

প্রকাশ: ২৯ এপ্রিল ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : পাকিস্তানের জন্য ম্যাচটি ছিল সিরিজ বাঁচানোর আর নিউজিল্যান্ডের জন্য সিরিজ জয়ের। ঘরের মাঠে তুলনামূলক দুর্বল স্কোয়াড নিয়ে আসা নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রায় সিরিজ হারতে বসেছিল পাকিস্তান। সেখান থেকে দুর্দান্ত বোলিংয়ে পাকিস্তানকে কক্ষপথে ফিরিয়েছেন শাহিন শাহ আফ্রিদি। তার আগে স্বাগতিকদের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ গড়ার পথে অধিনায়ক বাবর আজম দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। ফলে নিউজিল্যান্ডের কাছে প্রায় হারতে বসা ম্যাচটিতে ৯ রানের জয়ে ২-২ সমতা নিয়ে সিরিজ শেষ করল পাকিস্তান। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এই সিরিজ শুরু হওয়ার আগে বাবর আজম ও শাহিন আফ্রিদির মাঝে দ্ব›েদ্বর খবর বেশ চাউর হয়েছিল। তবে সিরিজে তার প্রভাব দেখা য়ায়নি। উল্টো পাঁচ ম্যাচ সিরিজের শেষ ম্যাচে এই দুজনের বীরত্বে পিছিয়ে পড়েও সমতায় সিরিজ শেষ করেছে পাকিস্তান। নিউজিল্যান্ডের আমন্ত্রণে আগে ব্যাটিংয়ে নামে পাকিস্তান। উইলিয়াম ও’রোর্কে দ্বিতীয় ওভারেই আঘাত হানেন। সাইম আইয়ুব (১) দলীয় ৮ রানে ফিরে যান। যদিও বড় ক্ষতি হয়নি স্বাগতিকদের। বাবর আজম দাঁড়িয়ে যান উসমান খানকে নিয়ে। দুজনের জুটি ছিল ৭৮ রানের। ২৪ বলে ৩১ রান করে উসমান বিদায় নেন। ফখর জামান ও বাবর গড়েন ৪২ রানের জুটি। ৪৪ বলে ৬ চার ও ২ ছয়ে ৬৯ রানের সেরা ইনিংস খেলে মাঠ ছাড়েন বাবর। অধিনায়কের আউটের পর ফখর ম্যাচ টেনে নেন। ইনিংসের পাঁচ বল বাকি থাকতে ৪৩ রানে থামেন তিনি। ৩৩ রানের ইনিংসে ছিল চার বাউন্ডারি ও এক ছয়। শেষ দিকে শাদাব খানের ৫ বলে ১৫ রানের ক্যামিও ইনিংস পাকিস্তানের সংগ্রহে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখে। ৫ উইকেটে ১৭৮ রান করে স্বাগতিকরা। চোখ জুড়ানো ব্যাটিং করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দারুণ একটি রেকর্ড গড়েছেন বাবর। সেটা ‘চার’ হাঁকানোর রেকর্ড। সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের এই ক্রিকেটে ১০৮ ম্যাচে ৪০৯টি চার হাঁকিয়েছেন বাবর। এতে আয়ারল্যান্ডের ব্যাটার পল স্টার্লিংকে ছাড়িয়ে চার হাঁকানোর তালিকায় শীর্ষে উঠে গেছেন পাকিস্তান অধিনায়ক। এতদিন সবচেয়ে চার হাঁকানোর রেকর্ডটি ছিল স্টার্লিংয়ের। আইরিশ এই ব্যাটার ১৩৬ ম্যাচে চার হাঁকিয়েছেন ৪০৭টি। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে ৪৪ বলে ৬৯ রানের ইনিংসে ৬টি চার হাঁকান বাবর। এতেই স্টার্লিংকে পেছনে ফেলেন তিনি। চার হাঁকানোর তালিকায় তৃতীয় স্থানে আছেন বিরাট কোহলি। ১০৯ ইনিংসে ৩৬১টি চার হাঁকিয়েছেন ভারতীয় তারকা ক্রিকেটার। জবাব দিতে নেমে শাহীন ইনিংসের পঞ্চম বলে টম ব্লান্ডেলের (৪) স্টাম্প ভেঙে দেন। তবে টিম সেইফার্ট ও মাইকেল ব্রেসওয়েল পঞ্চাশ ছাড়ানো জুটিতে প্রতিরোধ গড়েছিলেন। তাদের ৭৬ রানের জুটিতে নিউজিল্যান্ডের লড়াইয়ের ভিত তৈরি হয়। সবচেয়ে বড় আঘাত করেন শাহীন ১৫তম ওভারে। নিজের তৃতীয় ওভারে জেমস নিশাম ও জাকারি ফোকসকে পরপর ফেরান এই পেসার। অথচ ১৪ ওভার শেষে ৫ উইকেটে ১২১ রান করে নিউজিল্যান্ড চোখে চোখ রেখে লড়ছিল। ১৯.২ ওভারে ১৬৯ রানে অলআউট নিউজিল্যান্ড। নিউজিল্যান্ডকে আটকাতে আট জন বল করেন। চার ওভারে ৩০ রান দিয়ে চার উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা শাহীন। ৮ উইকেট নিয়ে সিরিজের সেরা খেলোয়াড়ও তিনি।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App