×

খেলা

মোস্তাফিজ নয় শিশিরকে দায়ী করলেন ঋতুরাজ

Icon

প্রকাশ: ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

মোস্তাফিজ নয় শিশিরকে দায়ী করলেন ঋতুরাজ
কাগজ প্রতিবেদক : ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে দুর্দান্ত বোলিং করেছেন মোস্তাফিজুর রহমান। তবে গতকাল লখনৌ সুপার জায়ান্টের বিপক্ষে বল হাতে মোস্তাফিজ ছিলেন অনেকটাই বিবর্ণ। শেষ ওভারে জেতার জন্য লখনৌর যখন ১৭ রান প্রয়োজন তখন সেই ওভারে ৩ বলেই ১৯ রান দিয়েছেন কাটার মাস্টার। আপাত দৃষ্টিতে লখনৌর হারের জন্য মোস্তাফিজকেই দায় দেবেন সবাই। তবে আগের ম্যাচগুলোতে বল হাতে উজ্জ্বল মোস্তাফিজ গতকাল বিবর্ণ হয়ে যাওয়া কোনো স্বাভাবিক ঘটনা নয়। ফলে হারের দায় মোস্তাফিজের কাঁধে দিতে চায় না চেন্নাইয়ের অধিনায়ক ঋতুরাজ গায়কোয়াড়। চেন্নাই অধিনায়ক হারের দায় দিতে চান মাঠের শিশিরের। ঋতুরাজ জানান, শিশির তাদের হারের ক্ষেত্রে অনেক বেশি ভূমিকার রেখেছিল। শেষ ওভারে জয়ের জন্য লখনৌয়ের প্রয়োজন ১৭ রান। পরীক্ষিত সেনানী মোস্তাফিজুর রহমানের হাতে বল তুলে দেন চেন্নাই অধিনায়ক ঋতুরাজ গায়কোয়াড়। নিজের প্রথম ওভারে মাত্র ৪ রানের বিনিময়ে এক উইকেট তুলে নিয়ে দারুণ শুরু করা ফিজের স্রেফ ৩ বলেই ম্যাচ শেষ করে দিলেন সেঞ্চুরিয়ান মার্কাস স্টয়নিস। শেষ ৬ বলে ১৭ রানের টার্গেট। উইকেটে তখন স্টয়নিসের মতো বিধ্বংসী ব্যাটার। অন্যদিকে, ঘরের মাঠ এম চিদাম্বরম ‘চেন্নাই চেন্নাই’ সেøাগানে প্রকম্পিত। দলকে জিতিয়ে নায়ক হওয়ার দারুণ সুযোগ মোস্তাফিজের সামনে। টাইগার এই পেসারের প্রথম বল গ্যালারিতে আছড়ে ফেলে এক লহমায় সমর্থকদের চুপ করিয়ে দিলেন স্টয়নিস। পরের দুই বলে দুটি চারে ম্যাচ তখন কেবল আনুষ্ঠানিকতার অপেক্ষা। তিন নম্বর ডেলিভারিটিতে আবার হলো নো বল। ফ্রি হিটে ফের ৪ মেরে লখনৌকে অবিশ্বাস্য জয় এনে দিলেন স্টয়নিস। ম্যাচ হারের পর মোস্তাফিজের চেন্নাই তাদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্স’এ মোস্তাফিজের একটি ছবি পোস্ট করে লেখেন, ‘টেকিং ইট ইন দ্য স্ট্রাইড’। তারমানে মাথা ঠাণ্ডা রেখে যে কোনো কজে সাফল্য অর্জন করা যায়। হারের দায় মোস্তাফিজকে তার দল চেন্নাইও দিতে চায় না এই পোস্টই তার লক্ষ্যণ। বরং অনুপ্রেরণা দেয়ার মতো একটি ভাষ্যই এসেছে তাদের পক্ষ থেকে। যার মানে আগামী যে কয়টি ম্যাচ চেন্নাইয়ের হয়ে খেলবে মোস্তাফিজ সেগুলোতেও তার ওপর যথেষ্ট আস্থা রাখতে চায় চেন্নাই। এদিকে চেন্নাইয়ের প্রধান কোচ স্টিভেন ফ্লেমিং দলের সঠিক সমন্বয় এখনো বের করতে না পারায় চিন্তিত। আর সেই দুশ্চিন্তার কথা বলতে গিয়েই টেনেছেন মোস্তাফিজের প্রসঙ্গ। কালকের ম্যাচেই যেমন, রাচিন রবীন্দ্রকে বসিয়ে ড্যারিল মিচেলকে ফিরিয়ে আনা হয়েছিল। কিন্তু মিচেল ১১ রানে আউট হওয়ায় এই সমন্বয়ও চেন্নাইয়ের কাজে লাগেনি। টুর্নামেন্টের এই পথ পর্যন্ত চেন্নাইয়ের স্কোয়াডের ভারসাম্যও মাঝেমধ্যে ঠিক থাকেনি। মাতিশা পাতিরানা চোটে পড়েছেন, মোস্তাফিজুর ভিসার কাজে ফিরেছিলেন দেশে। তখন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে ম্যাচটি খেলতে পারেননি। আগামী ১ মে পর্যন্ত তাকে পাবে চেন্নাই। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ খেলতে এরপর দেশে ফিরবেন মোস্তাফিজ। অর্থাৎ সমন্বয়ের মাধ্যমে সঠিক দলটি বের করতে সব খেলোয়াড়কে সব সময় পাচ্ছে না কিংবা পাবে না চেন্নাই। ম্যাচের পর ফ্লেমিংয়ের কথায় সেটা বোঝা গেল, ‘আমরা কিছু জায়গা নিয়ে অস্বস্তিতে আছি। স্বল্পমেয়াদি সমাধান নয়, আমরা দলের সঠিক সমন্বয়টা বের করার চেষ্টা করছি। সামনে আমাদের আরেকটি পরিবর্তন আছে মোস্তাফিজের কারণে। আমাদের চোটাঘাতও ছিল। কিন্তু প্রধান কাজ হলো, ফর্মে থাকা খেলোয়াড়দের কাজে লাগানো। সেজন্য একটু সময়ও লাগে।’ মোস্তাফিজকে আর মাত্র দুটি ম্যাচে পাবে চেন্নাই। ২৮ এপ্রিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও ১ মে পাঞ্জাব কিংসের বিপক্ষে। চলতি আইপিএলে মোস্তাফিজ উইকেট শিকারে চতুর্থ হলেও গতকাল রাতে শেষ ওভারে বাজে বোলিং তার নামের পাশে বড় প্রশ্নবোধক চিহ্ন এঁকেছে। এদিকে মোস্তাফিজকে ১ মে পর্যন্ত আইপিএল খেলার সুযোগ দিয়েছে বিসিবি; এবং আসন্ন জিম্বাবুয়ে সিরিজের জন্য তাকে দেশে ফিরিয়ে আনতে চায়। বিসিবির এমন সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন ভারতীয় ধারাভষ্যকার ও ক্রিকেট বিশ্লেষক হার্শা ভোগলে। তিনি বলেন, ‘মোস্তাফিজ ১ মে আইপিএল ছেড়ে চলে যাবে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ডিরেক্টর বলেছে যে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতির জন্য বাংলাদেশে খেলাটা মোস্তাফিজের জন্য বেশি ভালো। ডোয়াইন ব্রাভো যখন পাথিরানাকে শেখাবে তখন ফিজ খুব বেশিদিন থাকবে না। ধোনি এবং ফ্লেমিংয়ের সঙ্গটা অন্য রকম ব্যাপার।’

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App