×

খেলা

এবার আইসিসির আন্তর্জাতিক প্যানেলে মোর্শেদ

Icon

প্রকাশ: ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ ডেস্ক : এবার আইসিসির আর্ন্তজাতিক আম্পায়ার প্যানেলে যুক্ত হয়েছেন বাংলাদেশের সাবেক খেলোয়াড় ও পেশাদার আম্পায়ার মোর্শেদ আলী খান। গতকাল প্যানেলে বাংলাদেশের নতুন সদস্য হিসেবে তার অন্তর্ভুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিসিবির আম্পায়ারস কমিটির প্রধান ইফতেখার আহমেদ। যেখানে আগে থেকেই ইন্টারন্যাশনাল প্যানেলে আছেন বাংলাদেশি তিন আম্পায়ার গাজী সোহেল, তানভীর আহমেদ ও মাসুদুর রহমান মুকুল। গত মাসে বাংলাদেশের আরেক আম্পায়ার শরফুদ্দৌলা ইবনে শহীদ সৈকত এলিট প্যানেলে যুক্ত হওয়ার পর একটি পদ খালি হয় আন্তর্জাতিক আম্পায়ার প্যানেলে। জানা যায় সেই খালি জায়গাতেই মোর্শেদকে অন্তর্ভুক্ত করতে আবেদন করে বিসিবি। তারই পরিপ্রেক্ষিতে মোর্শেদকে নিয়োগ দেয় আইসিসি। তিনি বিসিবির প্যানেলভুক্ত আম্পায়ার। হোমে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজে এর আগে তাকে নিয়োগ দেয়া হয়েছিল। ওমানে এসিসি প্রিমিয়ার কাপে মালয়েশিয়া বনাম সৌদি আরব এবং কুয়েত বনাম আরব আমিরাত ম্যাচ পরিচালনা করেছেন। তার অভিজ্ঞতা ও পারফরম্যান্স বিবেচনায় বোর্ড তাকে আন্তর্জাতিক প্যানেলে যুক্ত করার সুপারিশ করে। বাংলাদেশের হয়ে ৩টি ওয়ানডে খেলা বাঁহাতি পেসার মোর্শেদ আম্পায়ারিং করছেন অনেক বছর ধরেই। এ বছর এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের প্রিমিয়ার কাপে আইসিসির সহযোগী দেশগুলোর ৬টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি পরিচালনা করেছেন। এর বাইরে মেয়েদের ২টি ওয়ানডে ও ১টি আন্তর্জাতিক ম্যাচেও দায়িত্ব পালন করেছেন মোর্শেদ। সাবেক ক্রিকেটার থেকে আম্পায়ার হওয়া মোর্শেদ এখন পর্যন্ত নারী ও পুরুষ ক্রিকেটে ১৪টি ম্যাচে আম্পায়ারিংয়ের দায়িত্ব পালন করেছেন। পুরুষ ক্রিকেটে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে দায়িত্ব পালন করেছেন ৭টিতে। যেখানে নারী ক্রিকেটে ৪টি ওয়ানডে ও ৩টি টি-টোয়েন্টিতে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট ৬৪ ম্যাচ, লিস্ট ‘এ’ ১২৮টি ও স্বীকৃত টি-টোয়েন্টি ম্যাচে দায়িত্ব পালন করেছেন ১০০টি। মোর্শেদ আলী বাংলাদেশের জার্সিতে ৩টি ওয়ানডে খেলেছেন। ১৯৯৮ সালে অভিষেক হয় তার। একই বছরেই ৩টি ওয়ানডে খেলেন তিনি। উল্লেখ্য আইসিসির আন্তর্জাতিক প্যানেলের আম্পায়াররা সাধারণত দেশের মাটির দ্বিপক্ষীয় সিরিজে সীমিত ওভারের ম্যাচ পরিচালনা করেন। এখনকার নিয়মে টি-টোয়েন্টিতে দুই অন-ফিল্ড আম্পায়ারই থাকেন স্বাগতিক দেশ থেকে। ওয়ানডেতে স্বাগতিক দেশ থেকে থাকেন একজন অন-ফিল্ড আম্পায়ার। টেস্টে দুজনই থাকেন নিরপেক্ষ আম্পায়ার। টেস্টে টেলিভিশন আম্পায়ার হিসেবেও এখন সাধারণত নিরপেক্ষ আম্পায়ারই নিয়োগ দেয়া হয়।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App