×

খেলা

দাবায় বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার দৌড়ে ১৭ পেরোনো গুকেশ

Icon

প্রকাশ: ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ ডেস্ক : বয়সটা সবে মাত্র ১৭ পেরিয়েছে তবে এ সামান্য বয়সেই কীর্তি গড়ে ফেলেছেন চেন্নাই থেকে উঠে আসা ডোম্মারাজ গুকেশ। দাবা ইতিহাসের সর্বকনিষ্ঠ দাবাড়– হিসেবে গতকাল কানাডার টরেন্টোয় ক্যান্ডিডেটস দাবা প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন গুকেশ। এর মধ্য দিয়ে কিংবদন্তি গ্যারি কাস্পারভের চার দশক পুরনো রেকর্ড ভেঙে গড়েছেন রেকর্ড। ক্যান্ডিডেটসে ভারতের প্রতিনিধি ছিলেন দুজন। গুকেশ ও রমেশবাবু প্রজ্ঞানন্দ। প্রথম থেকেই গুকেশ নজর কাড়ছিলেন। বেশ কয়েকটি রাউন্ডজুড়ে শীর্ষে ছিলেন তিনি। তবে শেষ দিকে প্রতিযোগিতা কঠিন হয়ে পড়ে। সবার নজর ছিল ফ্যাবিয়ানো করুয়ানা ও ইয়ান নেপমনিয়াচির ম্যাচের ওপর। এগিয়ে ছিলেন করুয়ানা। কিন্তু ৪১তম চালে ভুল করে বসেন তিনি। ফলে ১০৯ চালের পরে খেলা ড্র হয়। এই ড্রয়ের ফলে শেষ রাউন্ডে নাকামুরার বিরুদ্ধে ড্র যথেষ্ট ছিল গুকেশের। সেটাই করেন তিনি। ১৪ রাউন্ডের প্রতিযোগিতা শেষে চ্যাম্পিয়ন হন ভারতীয় গ্র্যান্ড মাস্টার। করুয়ানা ও নেপমনিয়াচির ম্যাচের দিকে নজর ছিল গুকেশেরও। সেই খেলা ড্র হওয়ায় চাপ অনেকটা কমে যায় তার ওপর থেকে। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর গুকেশ বলেন, ‘ভালা লাগছে, স্বস্তি লাগছে। করুয়ানা আর নেপমনিয়াচির খেলা দেখছিলাম। তারপর আমার সেকেন্ড গ্রেগর গাজেভস্কির সঙ্গে একটু হাঁটতে বেরিয়েছিলাম। সেটা দারুণ সাহায্য করেছে।’ অন্যদিকে এমন কীর্তির পর বিশ্বের তৃতীয় সর্বকনিষ্ঠ গ্র্যান্ডমাস্টার গুকেশ অভিনন্দন পেয়েছেন সাবেক ক্যান্ডিডেট চ্যাম্পিয়ন আনন্দের কাছ থেকে। এক্সে এক বার্তায় আনন্দ লিখেছেন, ‘সর্বকনিষ্ঠ চ্যালেঞ্জার হওয়ার জন্য গুকেশকে অভিনন্দন। তোমার কীর্তিতে ডব্লæএসিএ চেস (ওয়েস্টব্রিজ আনন্দ চেস একাডেমি) পরিবার গর্বিত। যেভাবে তুমি খেলেছ আর কঠিন পরিস্থিতি মোকাবিলা করেছ, আমি ব্যক্তিগতভাবেও তোমাকে নিয়ে গর্বিত। মুহূর্তটা উপভোগ করো।’ ভারতের প্রথম গ্র্যান্ড মাস্টার তথা সাবেক দাবা বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বিশ্বনাথন আনন্দের শহর চেন্নাইয়ে চিকিৎসক বাবা মাইক্রোবায়োলজিস্ট মায়ের ঘরে জন্ম নেন গুকেশ। সাত বছর বয়সে দাবায় হাতেখড়ি। এর এক বছর পরেই অনূর্ধ্ব-৯ এশিয়ান স্কুল দাবা প্রতিযোগিতা জেতেন তিনি। অনূর্ধ্ব-১২ স্তরে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় পাঁচটি সোনা জেতেন গুকেশ। মাত্র ১২ বছর ৭ মাস ১৭ দিন বয়সে গ্র্যান্ড মাস্টারের যোগ্যতা অর্জন করেন তিনি। তাতে ভারতের কনিষ্ঠতম ও বিশ্বের দ্বিতীয় কনিষ্ঠতম হন গুকেশ। ভারতীয় দাবায় তার উল্কার গতিতে উত্থান সবার নজর কেড়েছিল। ২৬ বছর পরে আনন্দকে টপকে ভারতের এক নম্বর দাবাড়– হন গুকেশ। উল্লেখ্য আন্তর্জাতিক চেস ফেডারেশনের আয়োজনে এই টুর্নামেন্ট হয় বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়নের প্রতিদ্ব›দ্বী বের করার জন্য। যেখানে ক্যান্ডিডেট টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়নই বিশ্বচ্যাম্পিয়নের শিরোপা জন্য চ্যালেঞ্জ জানান বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়নকে। সেই ধারাবাহিকতায় বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ডিং লিরেনকে চ্যালেঞ্জ জানাবে গুকেশ যদিও এখন অবধি সেই লড়াইয়ের ভেন্যু এবং সূচি নির্ধারিত হয়নি ।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App