×

খবর

সিলেট

২ আ.লীগ নেতার বাসায় হামলার ঘটনায় মামলা

Icon

প্রকাশ: ৩০ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

সিলেট অফিস : সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ২০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ ও যুবলীগ নেতা শমসের আলীর বাসায় হামলার ঘটনায় সিলেট মহানগর পুলিশের শাহপরান থানায় পৃথক অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। গত শুক্রবার রাতে এ অভিযোগ দুটি করেন তারা।

আজাদের মামলায় ১৪ জন অভিযুক্তের নামসহ অজ্ঞাত আরো ২০/২৫ জনকে আসামি করা হয়েছে। আসামিরা হলেন- শেখ নজরুল ইসলাম বিজয় (৩০), সোহেল (৩২), রাব্বি (২২) ও শেখ রুহিত (২০), তারেক আহমদ (৩১), ছামাদ আহমদ (২২), ফুজায়েল মল্লিক (২০), ইয়াকীন (২০), নাসির (২৩), মুছা খান তপু (২১), শাওন (২৩), রিয়াজুল, মো. রাহেল উদ্দিন রাবেন, বোরহান (২৫)।

অভিযোগে আজাদুর উল্লেখ করেন, আসামিরা এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, মাদক ব্যবসায়ী, ত্রাস সৃষ্টিকারী ও জবর দখলকারী। তারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন অপকর্ম করায় স্থানীয় নিরীহ জনগণ আমার কাছে বিচার চাইলে আমি আসামিদের বিচার ও তাদের বিরুদ্ধে অবস্থান নেই। এতে আসামিরা ক্ষিপ্ত হয়ে হত্যার পরিকল্পনা করে ও বাসায় হামলা করে।

অভিযোগপত্র থেকে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার খাওয়া দাওয়া শেষে রাত ১টার দিকে ঘুমানোর সময় বাসার সামনে লোকজনের আনাগোনা শুনতে পান আজাদুর রহমান। পরে দেখতে পান যে অভিযুক্তরা পেট্রোল ভর্তি জারিক্যান, আগ্নেয়াস্ত্র, মশাল, হকিস্টিক, রামদা, লোহার পাইপসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আজাদুর রহমানের বাসার সামনে মারমুখী অবস্থান নিয়েছে।

এদিকে বাসায় হামলা, চাঁদাবাজি, প্রাণনাশের হুমকি, লুটপাটসহ কয়েকটি কারণে থানায় আরেকটি অভিযোগ দিয়েছেন সিলেট মহানগর যুবলীগের সদস্য শমসের আলী (৪৫)। এতে ১৮ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ১৫ থেকে ২০ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। এদের বেশ কয়েকজন কাউন্সিলর আজাদুর রহমানের ঘটনাতেও অভিযুক্ত করা হয়েছে।

অভিযোগপত্রে যুবলীগ নেতা শমসের আলী উল্লেখ করেন, আসামীগণ এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, মাদক ব্যবসায়ী, ত্রাস সৃষ্টিকারী, জবর দখলকারী। আমি আমার বাড়িসংলগ্ন বোরহান উদ্দিন রোডে আবীর ভ্যারাইটিজ স্টোর নামে দোকান দিয়ে ভুসি মালের ব্যবসা করছি। গত ২৬ জুন দুপুরে আসামিরা আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এসে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। আমি আসামিদের অন্যায়ভাবে চাঁদা দাবির প্রত্যাখ্যান করলে আসামিরা আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়। এরপর ২৭ জুন রাত পৌনে ১২টার সময় হাতে আগ্নেয়াস্ত্র ও দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রসহ আমার বাসা ও দোকানে প্রবেশ করেন আসামিরা।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App