×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

খবর

আতঙ্কে প্রবাসীর পরিবার

উত্তরায় মারধরে চারজন আহত

Icon

প্রকাশ: ২৯ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : রাজধানীর উত্তরা ৩ নম্বর সেক্টরে একটি ভবনের অংশীদারত্ব বুঝে নিতে চাওয়ায় মারধরের শিকার হয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন চারজন। আহতরা হলেন সবুজ হাওলাদার, সোহেল হাওলাদার, মুরাদ ও আফজাল। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ রাজধানীর মোহাম্মদপুরস্থ বিডিএম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। ওইদিন রাতে এ ঘটনায় উত্তরা পশ্চিম থানায় জিনাত রিজওয়ানা নামে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ভুক্তভোগী বাদী হয়ে সাতজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ২৫-৩০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

জিনাত রিজওয়ানা জানান, পরিচয়ের সুবাদে উত্তরায় বেঙ্গল হোটেল অ্যান্ড হসপিটালিটি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইয়াহইয়া চৌধুরীর প্রতিষ্ঠানে দুই বছর আগে ১২ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেন তিনি। ইয়াহইয়া তার নামে শেয়ার সার্টিফিকেট ইস্যু করেন। তবে চলতি বছরে জুন মাসের প্রথম সপ্তাহে ইয়াহইয়া চৌধুরীর কাছে সর্বমোট বিনিয়োগের হিসাবসহ উত্তরা ৩ নম্বর সেক্টরের ২ নম্বর রোডের একটি ১০ তলা ভবনের অর্ধেকের অংশীদারত্ব বুঝে নিতে চাইলে ইয়াহইয়া ভয়ভীতি দেখিয়ে হুমকি দেন। এরই মধ্যে বৃহস্পতিবার সকালে ওই ভবনে থাকা সবুজ হাওলাদার, সোহেল হাওলাদার ও মুরাদকে মারধর করে আহত করা হয়। এ সময় ইয়াহইয়ার সঙ্গে জনি মিয়া, কাজী রবিন, আনোয়ার, ফরহাদ হোসেন, মো. সাহেদ ও রাজিবসহ অজ্ঞাতনামা আরো কয়েকজন ছিলেন। খবর পেয়ে রিজওয়ানা তার গাড়িচালক আফজাল ও ভাই খন্দাকার শোয়েব আরিয়ান অংকনকে নিয়ে ওই ভবনে যান। তখন তারা অংকনকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে চালককেও মারধর করে। ওই ঘটনার পর থেকে রিজওয়ানা ও তার পরিবার আতঙ্কে আছেন। উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ বি এম ফরমান আলী ভোরের কাগজকে বলেন, এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App