×

খবর

ভারতে নারী পাচার চক্রের দুই সদস্য গ্রেপ্তার

Icon

প্রকাশ: ২৯ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

চট্টগ্রাম অফিস : ভারতের পতিতালয়ে বিক্রি হওয়ার পর একজন ভুক্তভোগী নারী পালিয়ে আসেন দেশে। তার লোমহর্ষক বর্ণনায় বেরিয়ে আসে নারী পাচার চক্রের ভয়াবহ সিন্ডিকেটের কথা। এরপর সক্রিয় হয় র‌্যাব-৭। অভিযান চালিয়ে ভারতে নারী পাচার চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকালে এ তথ্য জানান র‌্যাব-৭’র সিনিয়র সহকারী পরিচালক শরীফ-উল আলম।

তিনি বলেন, বাংলাদেশি নারীদের পাচার করে ভারতের পতিতালয়ে বিক্রি করা একটি চক্রের সক্রিয় দুই সদস্যকে আমরা আটক করি। আসামি ঝুমু এবং পারভিন আক্তার বায়েজিদ বোস্তামী থেকে পালিয়ে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানার বালুচড়া এলাকার নতুনপাড়া সিএনজি স্টেশনে অবস্থান করছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এ তথ্য জানতে পেরে র‌্যাবের একটি টিম গত বৃহস্পতিবার তাদের আটক করে। পরবর্তীতে জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, তারা মানবপাচার মামলার দুই ও তিন নম্বর এজাহারনামীয় আসামি। তিনি আরো বলেন, ‘গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা পরস্পর যোগসাজশে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন গার্মেন্টস কারখানার নারী শ্রমিকদের সঙ্গে সখ্য গড়ে তুলে বেশি বেতনে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে পাচার করে আসছিল। এই মানবপাচার মামলার এক নম্বর আসামি মো. তারেককে গত ২৪ জুন বায়েজিদ বোস্তামী থানাপুলিশ গ্রেপ্তার করে। পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ঝুমু ও পারভিনকে বায়েজিদ বোস্তামী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

জানা গেছে, ঝুমু (৩০) চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার জালিয়া পাড়া গ্রামের মো. তারেকের স্ত্রী। তারা বর্তমানে চন্দ্রনগর আবাসিক এলাকার দিদার বিল্ডিংয়ে থাকতেন। আরেক আসামি পারভিন আক্তার (২৫) বায়েজিদ বোস্তামীর বালুচড়া এলাকায় থাকতেন। এদিকে নগরের বায়েজিদ বোস্তামী থানা এলাকায় মো. জুয়েল (৪১) নামে এক ট্রাকচালকের মোবাইল ও টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় ৪ যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে বায়েজিদ বোস্তামী মাজার গেট এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তাররা হলেন মো. মহিউদ্দিন ওরফে জীবন (৩২), মো. ইউছুপ (২৫), আব্দুল আলী ওরফে কালু (৩২), মো. জাবেদ (২৬)। বায়েজিদ বোস্তামী থানার ওসি সঞ্জয় কুমার সিনহা বলেন, ভুক্তভোগী জুয়েল ঘটনার পর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পরে সিসিটিভি ফুটেজের সহায়তায় আসামিদের চিহ্নিত করার পর মাজার গেট এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারের পর তল্লাশি চালিয়ে ছিনতাই করা মোবাইল ও ৫০০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App