×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

খবর

সংসদে রেলমন্ত্রী

এপ্রিলে সাড়ে ৪ কোটি টাকা জরিমানা গুনেছে বিনা টিকেটের যাত্রীরা

Icon

প্রকাশ: ২৮ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : রেলমন্ত্রী জিল্লুল হাকিম জানিয়েছেন, রেলওয়ের টিকেট কালোবাজারি রোধসহ টিকেটের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার স্বার্থে বর্তমানে ব্যাপক চেকিং ব্যবস্থা চালু রয়েছে। শুধু চলতি বছরের এপ্রিল মাসেই রেলওয়ের পূর্বাঞ্চল ও পশ্চিমাঞ্চল মিলে বিনা টিকেটের যাত্রীদের কাছ থেকে ৪ কোটি ৫৭ লাখ ১৭ হাজার ৩৮৯ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। গতকাল বৃহষ্পতিবার জাতীয় সংসদে এমপি হাবিবুর রহমানের এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে রেলমন্ত্রী এ তথ্য জানান। এ সময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভাপতিত্ব করছিলেন।

মন্ত্রী আরো জানান, টিকেট কালোবাজারি রোধে বাংলাদেশ রেলওয়ের গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনগুলোতে সিসি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। এর মাধ্যমে বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজ প্রতিরোধ করা হচ্ছে। টিকেট কালোবাজারি রোধে রেলওয়ের উভয়াঞ্চলের (পূর্ব ও পশ্চিম) বিভিন্ন ট্রেনে নিয়মিতভাবে টিকেট চেকিং করা হচ্ছে। নিয়মিত চেকিংয়ের বাইরেও ব্লক চেকিং ও স্পেশাল চেকিং পরিচালিত হয়। ২০২৪ সালের এপ্রিল মাসে রেলওয়ের উভয়াঞ্চলে চেকিং কার্যক্রমের সংখ্যা ১ হাজার ৬৩৩টি, কেস সংখ্যা ২ লাখ ৯ হাজার ৩৪৬টি এবং আদায় করা ভাড়া ও জরিমানার পরিমাণ ৪ কোটি ৫৭ লাখ ১৭ হাজার ৩৮৯ টাকা। এছাড়া রেলপথ মন্ত্রণালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা বিনা টিকেটে ট্রেন ভ্রমণ প্রতিরোধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছেন।

এমপি সিদ্দিকুল আলমের অপর এক প্রশ্নের জবাবে রেলমন্ত্রী জানান, বর্তমানে রেলওয়েতে ৩৫৩টি ট্রেন চলাচল করছে। এর মধ্যে আন্তঃনগর ১১২টি, আন্তঃদেশীয় ৬টি, মেইল, এক্সপ্রেস ও কমিউটার ১৩৪টি, লোকাল ৭৫টি, গুডস ও কন্টেইনারবাহী ২৬টি।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App