×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

খবর

সংলাপ অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ওষুধের দাম নিয়ন্ত্রণে বড় পদক্ষেপ নিচ্ছে সরকার

Icon

প্রকাশ: ১০ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

 ওষুধের দাম নিয়ন্ত্রণে বড় পদক্ষেপ নিচ্ছে সরকার

কাগজ প্রতিবেদক : ওষুধের দাম নিয়ন্ত্রণে সরকার বড় পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন। সরকার নির্ধারিত দামের চেয়ে ওষুধের দাম কেউ বেশি রাখলে, তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টাস ফোরাম (বিএসআরএফ) আয়োজিত এক সংলাপ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা জানান। গতকাল রবিবার দুপুরে বাংলাদেশ সচিবালয়ের গণমাধ্যম কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত এ সংলাপ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিএসআরএফ সভাপতি ফসিহ উদ্দিন মাহতাব। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মাসউদুল হকের সঞ্চালনায় সম্মানিত অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. রোকেয়া সুলতানা।

স্বাস্থ্য খাতের বড় চ্যালেঞ্জ কী জানতে চাইলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ক্যান্সারসহ অধিকাংশ মরণঘাতী রোগে আক্রান্ত রোগীরা একদম শেষ সময়ে চিকিৎসা নিতে আসে। যার ফলে সময়মতো সঠিক চিকিৎসা না পাওয়ায় মৃত্যুর হার বাড়ছে। মৃত্যু রোধ করতে হলে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে হবে। সেই সঙ্গে জেলা ও উপজেলা হাসপাতালের চিকিৎসা সেবার মান বাড়ালে, সাধারণ মানুষ ঢাকামুখী হবে না। এর ফলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের ভোগান্তি দূর হবে।

কর্মস্থলে চিকিৎসকদের অনুপস্থিতি নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, চিকিৎসা এমন একটি বিষয়, চিকিৎসায় অবহেলা কিংবা গাফিলতি করলে একটা মানুষের জীবন চলে যায়। সুতরাং এখানে দুবার চিন্তা করার কোনো সুযোগ নেই। অতএব এ ব্যাপারে কোনো গাফিলতি বা কোনো অবহেলা আমি সহ্য করব না। সিলেটে যাদের কর্মস্থলে অনুপস্থিত পেয়েছি সঙ্গে সঙ্গে সাসপেন্ড করেছি। আমার পরিকল্পনা আছে ঢাকার বাইরে কিছু হাসপাতালে যাব। মুশকিল হলো কোনো না কোনোভাবে সবাই জেনে যায় আমি আসব। কারণ একজন মন্ত্রী যখন কোথাও যায় তার প্রটোকল এমন থাকে...আমি বলছিলাম দরকার হলে আমি সিএনজি করে চলে যাই, তাও যাই।

এদিকে অনুমতি ছাড়া ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকার বা বক্তব্য দিতে পারবেন না- এ প্রতিষ্ঠানের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আসাদুজ্জামান এ নোটিস জারি করেছেন। এ নিয়ে সাংবাদিক মহলে প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। পরিচালকের এ নোটিসের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এ বিষয়ে হাসপাতালের পরিচালকের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। সাংবাদিকদের সঙ্গে যেন কোনো রকম বৈষম্য বা বিবাদ না হয়, এটা আমি তাকে স্পষ্ট করে বলে দিয়েছি।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App