×

খবর

প্রকাশ্যে রাস্তায় ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রীর ওপর হামলা

Icon

প্রকাশ: ০৯ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ ডেস্ক : এবার হামলার শিকার হয়েছেন ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী মেটে ফ্রেডেরিকসেন। রাজধানী কোপেনহেগেনের রাস্তায় প্রকাশ্যেই তার ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। এদিকে এই হামলার ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। এর আগে সেøাভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রীর ওপরও প্রকাশ্যে হামলার ঘটনা ঘটেছিল।

হামলার ঘটনাকে ‘ঘৃণ্য কাজ’ বর্ণনা করে ইউরোপীয় কমিশনের প্রধান উরসুলা ফন ডার লেয়েন বলেছেন, আমরা যা বিশ্বাস করি এবং ইউরোপে যেটির জন্য লড়াই করি, তার বিরুদ্ধের ঘটনা এটি। এই হামলার ঘটনায় ‘হতবাক’ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের তরফে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, কোপেনহেগেনের কুলটোরভেটে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী মেটি ফ্রেডরিকসেনকে মারধর করেন এক ব্যক্তি, যাকে পরে গ্রেপ্তার করা হয়। এই ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী মর্মামত হয়েছেন। তবে ঘটনার বিস্তারিত বিবৃতিতে প্রকাশ করা হয়নি।

এ ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে জানিয়ে পুলিশ বলছে, তারা ঘটনাটি তদন্ত করছে। তবে এর বেশি কিছু বলতে রাজি হয়নি পুলিশ। হামলার কারণ এখনো জানা যায়নি। ঘটনাটি দেখার কথা স্থানীয় সংবাদপত্র বিটিকে জানিয়েছেন ম্যারি আদ্রিয়ান ও আনা রাভন নামের দুই নারী। তারা বলেন, এক ব্যক্তি বিপরীত পাশ থেকে এসে প্রধানমন্ত্রীর কাঁধে সজোরে ধাক্কা দেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা এও বলেন, জোরে ধাক্কা দেয়া হলেও প্রধানমন্ত্রী মাটিতে পড়ে যাননি। ঘটনার পর তিনি একটি ক্যাফেতে গিয়ে বসেন। এ হামলা এমন এক সময়ে ঘটেছে, যার দুই দিন পরেই ইউরোপীয় ইউনিয়ন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ হবে ডেনমার্কে। ডেনমার্কের টিভি স্টেশন টিভি টুর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সোশাল ডেমোক্র্যাটসের নেতা ফ্রেডেরিকসেন এর আগে তার দলের প্রধান প্রার্থী ক্রিস্টেল শ্যালডেমোসের সঙ্গে নির্বাচনী অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন।

ডেনমার্কের জোট সরকারের সবচেয়ে বড় দল এই সোশাল ডেমোক্র্যাটস। তারা নির্বাচনে নেতৃত্ব দিলেও সা¤প্রতিক মাসগুলোতে তাদের সমর্থন অনেকটাই কমে গেছে।

দেশটির পরিবেশমন্ত্রী ম্যাগনাস হিউনিকে এক্স পোস্টে লিখেছেন, হামলার ঘটনায় মেটি স্বভাবতই হতবাক। আমি অবশ্যই বলতে চাই- আমরা যারা তার কাছাকাছি থাকি, তাদের এই ঘটনা নাড়া দিয়েছে। এ ঘটনায় ‘ক্ষুব্ধ’ হওয়ার কথা এক্স পোস্টে জানিয়েছেন ইইউ প্রধান চার্লস মিশেল। তিনি বলেন, আমি এই কাপুরুষোচিত হামলার তীব্র নিন্দা জানাই।

৪৬ বছর বয়সি ফ্রেডেরিকসেন ২০১৯ সালে মধ্য-বামপন্থি সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটসের নেতা হিসেবে প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন। ডেনমার্কের ইতিহাসে তিনিই সর্বকনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রী হন।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App