×

খবর

আলোচনা সভায় বক্তারা

৬ দফা বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় রেখেছে অনন্য ভূমিকা

Icon

প্রকাশ: ০৯ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রণীত ঐতিহাসিক ৬ দফা বাংলাদেশ জাতিরাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় অনন্য ভূমিকা পালন করেছে। ৬ দফা ছিল বাঙালি জাতির মুক্তির দিশারী। ৬ দফাকে কেন্দ্র করেই স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্র বাংলাদেশ নামের একটি দেশের সৃষ্টি হয়েছে, যার নেতৃত্ব দিয়েছেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

গত শুক্রবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অঙ্গীভূত প্রতিষ্ঠান ‘বঙ্গবন্ধু মুক্তিযুদ্ধ বাংলাদেশ গবেষণা ইনস্টিটিউট’ আয়োজিত ঐতিহাসিক ৬ দফা উপলক্ষে ‘বাঙালির স্বাধীনতার মহাসনদ ৬ দফা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা ও সংস্কৃতিবিষয়ক উপদেষ্টা ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, মুখ্য আলোচক ছিলেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও বঙ্গবন্ধু চেয়ার অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশিদ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা ও সংস্কৃতিবিষয়ক উপদেষ্টা ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বলেন, ৬ দফার আন্দোলন ইতিহাসের এক বাঁকবদল। বঙ্গবন্ধুর ৬ দফার ভেতরেই আমাদের স্বাধীনতার বীজ লুকিয়ে ছিল। ৭০ এর নির্বাচনের ম্যানডেট ছিল ৬ দফা। এই ৬ দফা আমাদের স্বাধীনতা যুদ্ধের দিকে নিয়ে গেছে।

মুখ্য আলোচকের বক্তব্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু চেয়ার অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশিদ বলেন, ৬ দফার মাধ্যমে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মানুষকে এমনভাবে তৈরি করেছেন, যারা ধাপে ধাপে আন্দোলনকে চূড়ান্ত পর্যায়ে নিয়ে গেছেন। বাঙালির ইতিহাসে এমন নেতা আর সৃষ্টি হয়নি, হবেও না।

সভাপতির বক্তব্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মশিউর রহমান বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মানবমুক্তির জন্য শোষণমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠার লড়াই করেছেন। সেই শোষণমুক্তির জায়গাটি তিনি ৬ দফায় স্পষ্ট করেছেন। সে কারণেই বাঙালি বঞ্চনাবোধকে ধারণ করে জাগ্রত হয়েছে মুজিবমন্ত্রণায়। মুজিবমন্ত্রণা আমাদের মুক্তি এবং স্বাধীনতার মোহনায় নিয়ে গেছে। সে কারণেই ৬ দফা অনন্য এবং মুক্তির সনদ।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মোল্লা মাহফুজ আল-হোসেনের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অঙ্গীভূত প্রতিষ্ঠান বঙ্গবন্ধু মুক্তিযুদ্ধ বাংলাদেশ গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. মনিরুজ্জামান। আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপউপাচার্য অধ্যাপক ড. নাসিমা বানুসহ ইনস্টিটিউটের ডিস্টিংগুইশসড অধ্যাপক, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন দপ্তরের বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী, ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন কলেজের অধ্যক্ষ, শিক্ষক প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App