×

খবর

নাইক্ষ্যংছড়ি

বিজিবির সঙ্গে গুলি বিনিময়ে নেজাম ডাকাত নিহত

Icon

প্রকাশ: ০৪ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

শামীম ইকবাল চৌধুরী, নাইক্ষ্যংছড়ি (বান্দরবান) থেকে : নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও মাদক চোরাকারবারিদের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা হয়েছে। এ সময় নেজাম উদ্দীন ডাকাত নামে একজন নিহত হন। গতকাল সোমবার ভোর ৫টার দিকে নাইক্ষ্যংছড়ি ব্যাটালিয়নের ভালুখাইয়া বিওপির আওতাধীন গর্জনিয়ার মরিচ্যাচর রাজঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ১১ বিজিবি এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে বিজিবির মাদক ও চোরাচালানবিরোধী টহল দলের ওপর নেজাম ডাকাত চোরাকারবারি সিন্ডিকেটের সদস্যরা গুলি করে। এ সময় আত্মরক্ষার্থে বিজিবিও গুলি ছুড়ে। এ সময় ২০ হাজার পিচ নিষিদ্ধ ইয়াবাসহ ৯৮ কাটুন বার্মিজ সিগারেট উদ্ধার করা হয়। বিজিবি একটি সূত্র জানায়, মাদক এবং সিগারেট আটকের খবর পেয়ে ১৫০-২০০ জন চোরাকারবারি নিজাম ডাকাতের নেতৃত্বে সংঘবদ্ধ হয়ে বিজিবি টহল দলের ওপর অতর্কিতভাবে হামলা করে।

এ সময় প্রায় ৫০-৬০ রাউন্ড গুলি করে বিজিবি। আত্মরক্ষার্থে মেজর রাফি-উস-হাসানের নেতৃত্বে হাবিলদার মো. হুমায়ন কবির এসএমজি দ্বারা পাল্টা ফায়ার করে। এ সময় ডাকাত এবং দুষ্কৃতকারীরা পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে বিজিবির ৪টি মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ করে। এ ঘটনায় নেজাম উদ্দীন ডাকাত নামে এক চোরাকারবারি নিহত হন বলে জানা যায়।

নিহত নেজাম উদ্দীনের বাড়ি কক্সবাজার সদর উপজেলার খুরুশকুল ইউনিয়নে। বিষয়টি খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

নিহত নেজাম উদ্দীনের বাবা বশির আহমদ বলেন, আমার ছেলে পরশুদিন বেড়াতে যায় নাইক্ষ্যংছড়ি। রবিবার রাতেও কথা হয়েছে তার সঙ্গে। আজকে সকালে চলে আসবে বলেছে। পরে শুনি বিজিবির সঙ্গে গোলাগুলিতে নিহত হয়েছে।

বর্তমানে নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্ত এলাকা ও গর্জনিয়া এলাকায় সন্ত্রাসী আতংক ছড়িয়ে পড়েছে। তবে বিজিবি জানায়, পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

নাইক্ষ্যংছড়ি ১১ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল সাহল আহমদ নোবেল জানান, চোরাকারবারিরা এ পথ দিয়ে ইয়াবা পাচার হচ্ছে খবর পেয়ে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App