×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

খবর

নজরুল ইসলাম খান

ব্যাংকগুলো এখন লাল বাতি জ্বলার অবস্থায়

Icon

প্রকাশ: ২৮ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

ব্যাংকগুলো এখন  লাল বাতি জ্বলার  অবস্থায়

কাগজ প্রতিবেদক : ক্ষমতাসীনদের লুটপাটে দেশের ব্যাংকগুলোর এখন ‘লাল বাতি জ্বলার অবস্থায়’ রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেছেন, আজকে ব্যাংকগুলো লুট হয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশ ব্যাংক, দেশের ব্যাংকগুলোয় রং দিচ্ছে, কোনটায় সবুজ, কোনটায় হলুদ, কোনটায় লাল। লাল মানে লালবাতি জ্বালানোর অবস্থা হয়ে গেছে। আমানত লুট করে নিয়েছে তার মালিকরা। যাকে তাকে ঋণ দিয়ে ফোকলা করে ফেলেছে ব্যাংকগুলোকে।

গতকাল সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধনে তিনি এসব অভিযোগ করেন। ঢাকা জেলা বিএনপির উদ্যোগে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, জেলা সভাপতি খন্দকার আবু আশফাক, মহানগর দক্ষিণের বিএনপির সদস্য ইশরাক হোসেন, যুব দলের সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, সাবেক সভাপতি সাইফুল আলম নিরবসহ নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, প্রতিনিয়ত টাকার মূল্য কমে যাচ্ছে, মাত্র কয়েকদিন আগে একযোগে এক ডলারের বিপরীতে টাকার দাম সাত টাকা কমানো হয়েছে। ইতিহাসে কখনো বাংলাদেশি টাকার এত বড় মূল্যহ্রাস ঘটেনি। কিন্তু প্রকৃত পক্ষে একশ পঁচিশ টাকা লাগছে এখন এক ডলার কিনতে। আমাদের দেশের ঋণের পরিমাণ হয়ে গেছে একশ বিলিয়ন ডলারেরও বেশি।

আমার-আপনার এই ঋণ আমি ও আপনি ভোগ করতে পারিনি। এটা মাত্র হাতে গোনা কিছু লোক ভোগ করেছে, ভোগ করে তারা কোটিপতি হয়েছে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, দেশের যখন এসব সমস্যা, যখন উপকূলীয় এলাকাগুলোতে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেয়া হয়েছে, আমরা পত্রিকায় দেখলাম ঘূর্ণিঝড় বা জলোচ্ছ¡াসের মধ্যে দেশ, তখন দেশের প্রধানমন্ত্রীর আসনে যিনি বসে আছেন, তাকে আমরা বলতে শুনলাম এখন আমাদের একমাত্র কাজ হলো একটা খারাপ শব্দ ব্যবহার করে তারেককে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে আসব।

ভাবুন, দেশ যখন দুর্যোগের মুখে তখন দেশের মানুষকে বাঁচানো প্রধান কাজ নয়, জনগণের সম্পদ রক্ষা করা প্রধান কাজ নয়। আমরা সবাই জানি যে, প্রতিনিয়ত দ্রব্যমূল্য বাড়ার ফলে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির ফলে জনগণের যে দুর্ভোগ, এ থেকে বাঁচানো সরকারের প্রধান কাজ না। কারণ সরকারের প্রশ্রয়ভুক্ত সিন্ডিকেট এবং দুর্নীতিবাজ মানুষরা দ্রব্যমূল্য বাড়িয়ে জনগণের পকেট কাটছে; এটা তাদের জন্য সমস্যা না। আপনি অসন্তুষ্ট হবেন, তাতে সরকারের কিচ্ছু আসে যায় না। এই সরকারের ভোটের কোনো প্রয়োজন নেই। ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নিপুণ রায় চৌধুরীর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, সহসাংগঠনিক সম্পাদক বেনজীর আহমেদ মিন্টু, ঢাকা জেলার তজিমউদ্দিন প্রমুখ নেতারা বক্তব্য রাখেন।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App