×

খবর

জবির মসজিদের খতিবের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি

Icon

প্রকাশ: ২৮ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

জবি প্রতিনিধি : ‘স্পর্শকাতর ঘটনায়’ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব সালাহউদ্দীন আহমেদের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. আইনুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে ৫ সদস্যবিশিষ্ট এ কমিটি গঠন করা হয়।

আদেশে বলা হয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন নারী শিক্ষার্থীর রাত ১১টা ২০ মিনিট পর্যন্ত মসজিদে অবস্থান ও ঘুমানো এবং ইমামের দায়িত্ব অবহেলার তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিল করতে ৫ জনকে দায়িত্ব দেয়া হলো। এতে রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. আবুল কালাম মো. লুৎফর রহমানকে আহ্বায়ক ও সহকারী প্রক্টর খালিদ সাইফুল্লাহকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। সদস্য হিসেবে আছেন- বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. পারভীন আক্তার জেমী, আইসিটি সেলের পরিচালক ড. আমিনুল ইসলাম ও অ্যাকাউন্টিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. এ এন এম আসাদুজ্জামান ফকির।

বিস্তারিত জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, খতিব সালাহউদ্দীনের বিরুদ্ধে মসজিদের ‘স্পর্শকাতর’ একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে তদন্ত চলমান থাকায় আপাতত নামাজ পড়ানোর দায়িত্ব পালন করবেন সহকারী ইমাম।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি এক ছাত্রীকে রাত ১১টার দিকে একা মসজিদে শুয়ে থাকতে দেখা যায়। প্রক্টরিয়াল বডি বিষয়টি জানার পর তারা (প্রক্টরিয়াল বডি) এলে ওই ছাত্রীকে ছাড়তে বলেন। তবে খতিব সালাহউদ্দীন অসুস্থ অবস্থায় থাকায় ওই ছাত্রীকে তড়িঘড়ি করে বের করে দেন। প্রক্টর পরের দিন ঘটনা জানতে খতিবকে অফিসে তলব করলেও তিনি যাননি।

জানা যায়, খতিব সালাহউদ্দীনের বিরুদ্ধে আরো অভিযোগ রয়েছে। মসজিদের পাশে বহু বছরের পুরনো একটি বড় কাঠলিচু গাছ প্রশাসনের কাউকে না জানিয়ে রাতের আঁধারে কেটে ফেলেন তিনি। লিচু পাড়ার জন্য বাচ্চারা ঢিল দেয়ায় তিনি গাছ কাটেন বলে দাবি করেন। এ গাছ কাটা নিয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নানা সমালোচনা করেন। কিন্তু সাবেক ট্রেজারার ড. কামালউদ্দিন আহমদ ও তার পিএস আমিনুল ইসলামের সঙ্গে সুসম্পর্ক থাকায় এর বিচার হয়নি।

তদন্ত কমিটির বিষয়ে জানতে চাইলে খতিব সালাহউদ্দীন আহমেদ বলেন, আমি কোনো বিষয়ে কথা বলতে চাই না। আর মসজিদের টিনে শব্দ হয় বলে লিচু গাছ কেটেছি।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App