×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

খবর

নৌ প্রতিমন্ত্রী

ঈদ ঘিরে ১১ দিন বাল্কহেড চলাচল বন্ধ থাকবে

Icon

প্রকাশ: ২৪ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : ঈদুল আজহা উপলক্ষে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আগামী ১৩ থেকে ২৩ জুন পর্যন্ত ১১ দিন সব নৌরুটে বাল্কহেড চলাচল বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালেদ মাহমুদ চৌধুরী। তিনি জানান, ঈদের আগে ৩ দিন ও পরের ৩ দিনসহ মোট ৭ দিন পশুবাহী ও পঁচনশীল পণ্যবাহী যানবাহন ফেরিতে পারাপার হতে পারবে। আগের মতোই বাড়ানো হবে কাজীরহাট, পাটুরিয়াঘাটে ফেরির সংখ্যা। নৌপথে বিশৃঙ্খলা ও অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা প্রতিরোধে গোয়েন্দা নজরদারি জোরদার করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

গতকাল বৃহস্পতিবার নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে নৌপথে ফেরি, স্টিমার, লঞ্চসহ জলযান সুষ্ঠুভাবে চলাচল এবং যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে কর্মপন্থা সংক্রান্ত এক বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সভায় নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী সভাপতিত্ব করেন।

সভায় তিনি বলেন, ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঈদযাত্রা নিরাপদ হয়েছে। সব পথে নিরাপদে যাত্রীরা বাড়ি ফিরতে পেরেছে। পরিবারের সঙ্গে আনন্দময় ঈদ উদযাপন আবার নিরাপদে ঢাকায় ফিরে এসেছে। এবারো যাতে ঈদ আনন্দময় ও নিরাপদ হয়, সে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। যাত্রীসহ নৌপথে কুরবানির পশু পরিবহন নিরাপদ করার জন্য মন্ত্রণালয়ের সবাই একযোগে কাজ করছে। ঈদযাত্রায় ফেরি ও লঞ্চের সংখ্যা বাড়ানো হবে। ঈদের আগে ও পরে সব মিলিয়ে ১১ দিন নদীতে বাল্কহেড চলাচল বন্ধ থাকবে। নৌদুর্ঘটনা এড়াতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তিনি আরো বলেন, যাত্রীসেবার ক্ষেত্রে সরকার আন্তরিক। দেশবিরোধী, আইনবিরোধী কিছু মানুষ নৌপথের ক্ষেত্রেও আছে। তারা বিশৃঙ্খলা তৈরি করে সরকারের বা আমাদের সংস্থাগুলোর ভাবমূর্তি নষ্ট করতে চায়।

আমরা গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানোর সুপারিশ করেছি। আবহাওয়া অফিস থেকে জানিয়েছে, এবারের ঈদ মৌসুমে আবহাওয়া ঝুঁকিপূর্ণ। যারা যাত্রী পারাপার ও পণ্য পারাপার করবেন, তারা আবহাওয়ার বার্তাগুলো সঠিকভাবে পালন করবেন।

সভা সূত্রে জানা গেছে, অন্য সময়ের মতো এবারো ঈদের আগে ৩ দিন ও পরের ৩ দিনসহ সব মিলিয়ে ৭ দিন পশুবাহী ও পঁচনশীল পণ্যবাহী যানবাহন ফেরিতে পারাপার হতে পারবে। তবে অন্য কোনো মালবাহী যানবাহন এ সময়ে ফেরি পারাপার করা হবে না। সাধারণ ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান পারাপার বন্ধ থাকবে। ঈদের ৩ দিন আগে থেকেই দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া-কাজীরহাট নৌ রুটে যানবাহন ও যাত্রী পারাপারে ফেরির সংখ্যা বাড়ানো হবে। ফেরি ঘাটের ব্যবস্থাপনায় বিআইডব্লিউটিসি, বিআইডব্লিউটিএ এবং পুলিশের সংশ্লিষ্টদের বিশেষ ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেয়া হবে।

সভায় নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মোস্তফা কামাল, বিআইডব্লিউটিএ, বিআইডব্লিউটিসির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App