×

খবর

ক্ষমা চেয়ে অব্যাহতি পেলেন এমপি হাফিজ

শ্রীপুরে জামিলের প্রার্থিতা বাতিল

Icon

প্রকাশ: ১৬ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে ভোটের ছয় দিন আগে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মো. জামিল হাসান দুর্জয়ের প্রার্থিতা বাতিল করেছে নির্বাচন কমিশন। গতকাল বুধবার নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সম্মেলন কক্ষে এ বিষয়ে শুনানি শেষে দুর্জয়ের প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয় ইসি। পরে ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ সাংবাদিকদের বলেন, আচরণবিধি ভাঙায় গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. জামিল হাসান দুর্জয়ের প্রার্থিতা বাতিল করেছে নির্বাচন কমিশন। জামিল হাসান প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট রহমত আলীর ছেলে। তিনি গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। তার ছোট বোন রুমানা আলী টুসি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে আছেন। উপজেলা নির্বাচনের চার দফার মধ্যে দ্বিতীয় দফায় আগামী ২১ মে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার ভোট। জামিল হাসান নির্বাচনে ঘোড়া প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী ছিলেন। কারণ দর্শানোর নোটিস দেয়ার পরও বারবার আচরণবিধি লঙ্ঘন করতে থাকায় ‘কেন প্রার্থিতা বাতিল করা হবে না’- সেই প্রশ্নে তার ব্যাখ্যা চেয়েছিল ইসি। ব্যাখ্যা দিতে তাকে ডাকা হয়েছিল কমিশনে। নির্বাচন ভবনে বেলা ১১টায় এ চেয়ারম্যান প্রার্থীর শুনানি ১৫ মিনিটে শেষ হয়। প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়ালসহ নির্বাচন কমিশনাররা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। শুনানি থেকে বেরিয়ে আসার পর সংবাদকর্মীদের সঙ্গে দুর্জয় কোনো কথা বলেননি। পরে ইসির সিদ্ধান্ত তুলে ধরেন অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ। তিনি বলেন, তিনি ধারাবাহিকভাবে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন। ম্যাজিস্ট্রেটের কাজে বাধা দিয়েছেন। মিছিল করেছেন। সব অভিযোগ কমিশন আমলে নিয়ে তার প্রার্থিতা বাতিল করেছে। এর আগে জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার একজন চেয়ারম্যান প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল করেছিল ইসি। তবে আদালতে গিয়ে তিনি প্রার্থিতা ফেরত পান। ক্ষমা চেয়ে অব্যাহতি পেলেন এমপি হাফিজ মল্লিক : উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রকাশ্যে ভোট দেয়ার ঘটনায় নির্বাচন কমিশনে হাজির হয়ে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন বরিশাল-৬ আসনের সংসদ-সদস্য আবদুল হাফিজ মল্লিক। গতকাল নির্বাচন কমিশনের তলবে হাজির হয়ে তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন বলে জানিয়েছেন ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ। কমিশনের সিদ্ধান্ত জানিয়ে তিনি বলেন, তিনি ভুল স্বীকার করেছেন, লজ্জিত হয়েছেন। নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন। ভবিষ্যতে এ ধরনের কাজ করবেন না বলে জানিয়েছেন। তার ক্ষমা চাওয়ার বিষয়টি কমিশন আমলে নিয়ে অব্যাহতি দিয়েছে। আর সংসদ-সদস্য হাফিজ মল্লিক শুনানি শেষে সাংবাদিকদের বলেন, আমি দুঃখ প্রকাশ করেছি। গত ৮ মে প্রথম ধাপের ভোটে বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রকাশ্যে ভোট দিয়ে আলোচনায় আসেন এই এমপি। এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে গতকাল বুধবার দুপুর ১২টায় তাকে নির্বাচন ভবনে উপস্থিত হতে চিঠি দিয়েছিল ইসি।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App