×

খবর

পররাষ্ট্রমন্ত্রী

লুর সফরে সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় করার চেষ্টা থাকবে

Icon

প্রকাশ: ১৩ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

জসিম আজাদ, উখিয়া (কক্সবাজার) থেকে : বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে চমৎকার বলে উল্লেখ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। দেশটির দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লুর সফরে এ সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় করার চেষ্টা থাকবে বলেও জানান তিনি। গতকাল রবিবার বিকাল ৫টার দিকে কক্সবাজারে শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার কার্যালয়ের সামনে প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা বলেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়-সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির দ্বিতীয় সভা উপলক্ষে কক্সবাজারে আসেন মন্ত্রী। ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে পরিচ্ছন্নভাবে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রসহ বন্ধুপ্রতিম সব রাষ্ট্র শেখ হাসিনার জয়কে সাধুবাদ জানিয়েছে। তারা সরকারের সঙ্গে চলমান সম্পর্ক আরো দৃঢ় করতে চায়। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে চমৎকার, এই সম্পর্কে আরো উচ্চতায় নিয়ে যেতে বাংলাদেশে আসছেন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লু। এই সফরে তাদের সঙ্গে সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় করার চেষ্টা থাকবে আমাদের। মিয়ানমারে দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা সংঘাতের বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রাখাইনে চলমান সংঘাতকে ইস্যু করে বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে দীর্ঘসূত্রতার ইঙ্গিত দিয়ে আসছে তারা। তবে আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে দেশটির সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে নিয়মিত। তিনি আরো বলেন, রোহিঙ্গাদের কারণে আমাদের সব দিকেই সমস্যা হচ্ছে। তবে উখিয়া-টেকনাফের ৩৩টি আশ্রয়কেন্দ্র সীমান্ত থেকে দূরে হওয়ায় রাখাইনের সংঘাতের প্রভাব এখানে পড়ছে না। এরপরও অন্য দেশের বোঝা আমরা দীর্ঘদিন মাথায় নিয়ে থাকতে পারি না। বিজিপির যে ১৩৮ সদস্য বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন, তাদের ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। এর আগে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়-সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. এ কে আবদুল মোমেনের নেতৃত্বে ৬ সদস্যের সংসদীয় কমিটি কক্সবাজারের উখিয়ার বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। গতকাল রবিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প-৪ এক্সটেনশনে তাদের গাড়িবহর প্রবেশ করে। সেখানে বিশ্ব খাদ্য সংস্থার (ডব্লিউএফপি) একটি ই-ভাউচার আউটলেট পরিদর্শন করে প্রতিনিধি দলের সদস্যরা রোহিঙ্গাদের রেশন এবং বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেন। এরপর ক্যাম্প-৫ এ রোহিঙ্গা নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। পরে বিভিন্ন ক্যাম্পের লার্নিং সেন্টার ও ঘুমধুম ট্রানজিট ক্যাম্পে পরিদর্শনে যায় প্রতিনিধি দল। এ সময় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় কমিটির সভাপতি ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেন, রোহিঙ্গারা স্বদেশে ফিরতে চায়। রোহিঙ্গা পরিস্থিতি নিয়ে কাজ করছে সরকার। পরিদর্শন শেষে সংসদীয় কমিটির পক্ষ থেকে সরকারের কাছে সুপারিশ পেশ করা হবে। সংসদীয় কমিটির সভাপতি এ কে আবদুল মোমেনের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলে আরো আছেন- নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি, হুইপ সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি, নাহিম রাজ্জাক এমপি, হাবিবুর রহমান এমপি ও জারা জাবীন মাহবুব এমপি। শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মো. মিজানুর রহমান ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তানভীর হোসেন পরিদর্শনের সময় উপস্থিত ছিলেন। গতকাল বিকালে ক্যাম্প থেকে ফিরে কক্সবাজারের শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের কার্যালয়ে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংস্থার কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App