×

খবর

চাকরির নামে ঘুষ নেয়ায় বরখাস্ত দুই পুলিশ

Icon

প্রকাশ: ১২ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

জাহাঙ্গীর আলম, মাদারীপুর : মাদারীপুরে পুলিশে চাকরি দেয়ার কথা বলে ঘুষ নেয়ায় দুই পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বরখাস্ত হওয়া পুলিশ সসদ্য হলেন- তানজিলা আক্তার ও শহিদুল ইসলাম। গতকাল শনিববার পুলিশ হেডকোয়ার্টার ও জেলা পুলিশের প্রেস বিজ্ঞাপ্তিতে বরখাস্তের বিষয়টি জানানো হয়েছে। জানা গেছে, মাদারীপুর সদর উপজেলার মস্তফাপুর এলাকার রবি দাসের ছেলে রতন দাসের কাছ থেকে পুলিশে নিয়োগ দেয়ার প্রলোভনে ফেলে ঘুষ নেন তানজিলা আক্তার ও শহিদুল ইসলাম। এ খবর গত শুক্রবার ও গতকাল নানা গণমাধ্যমে বের হলে পুলিশ হেডকোয়ার্টারের নির্দেশে তাদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। জানা গেছে, রতন দাস একটি দোকানে কাজ করতেন। সেখানেই পরিচয় হয় পুলিশ সদস্য তানজিলার সঙ্গে। পরে পুলিশ নিয়োগের সময় পুলিশে চাকরি প্রলোভন দেখিয়ে রতনের কাছ থেকে সে ১৪ লাখ টাকা নেয়। বিশ্বাস অর্জনের জন্য তানজিলা নিজের সই করা কমিউনিটি ব্যাংকের একটি চেকও দেয়। এদিকে পুলিশ নিয়োগ পরীক্ষার রেজাল্ট দিলে চাকরি না হওয়ায় দিশেহারা হয়ে পড়েন রতন। উপায় না পে?য়ে পুলিশ সুপারের কাছে অভিযোগ করেন। চাকরিপ্রত্যাশী রতন বলেন, পুলিশে চাকরি দেয়ার কথা বলে আমার কাছ থেকে ১৪ লাখ টাকা নিয়েছে তানজিলা আক্তার নামে এক পুলিশ। কিন্তু সে চাকরি দিতে পারেনি। সেই টাকা দিয়ে তানজিলার স্বামী ফরিদপুরের ভাঙ্গাতে ব্যবসা শুরু করছে। টাকা ফেরত চাইলে টালবাহানা করছে। আমার কাছ থেকে টাকা নেয়ার সময় একটি চেকও দিয়েছিল। এরপরও বিভিন্ন অজুহাতে সে আমার টাকা ফেরত দিচ্ছে না। এই ঘুষ নেয়ার সঙ্গে শহিদুল নামে এক পুলিশও জড়িত। এ ব্যাপারে মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মনিরুজ্জামান ফকির বরখাস্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গণমাধ্যমে সংবাদ বের হলে সিনিয়র স্যারদের নির্দেশে তাদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। প্রাথমিক অনুসন্ধানে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App