×

খবর

ইউপি চেয়ারম্যান মিঠুকে আসামি করে মামলা

পুলিশ মারধরের ছবি তোলায় সাংবাদিকের ওপর হামলা

Icon

প্রকাশ: ১১ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

গজারিয়া (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি : মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে দুই পুলিশ সদস্যকে মারধরের ছবি তোলায় মানবজমিন পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি গুলজার হোসেনের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রাজিব খান। এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে হোসেন্দী ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল হক মিঠুকে প্রধান আসামি করে মামলাটি করেন হামলায় আক্রান্ত সাংবাদিক গুলজার। ওসি মো. রাজিব খান বলেন, পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় সংবাদকর্মীর ওপর হামলা দুঃখজনক। এ ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল হক মিঠু প্রধান আসামি এবং চারজনের নাম উল্লেখ করে মামলা করা হয়েছে। এছাড়া অজ্ঞাত আরো ১০-১৫ জনকে আসামি করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। হামলায় আহত মানবজমিনের মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি গুলজার হোসেন বলেন, গত বুধবার গজারিয়া উপজেলা নির্বাচন হোসেন্দী ইউনিয়নের ভবানীপুর এলাকায় ভোটকেন্দ্রের পাশেই কয়েকটি দোকান খোলা ছিল। এর সামনে আনারস প্রতীকের প্রার্থী আমিরুল ইসলামের সমর্থকরা দাঁড়িয়ে ছিলেন। ভোটকেন্দ্রে দায়িত্বরত দুইজন পুলিশ তাদের সরে যেতে বললে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে পুলিশকে মারধর শুরু করে। এ ছবি তোলায় তারা আমার ওপর হামলা চালায়। হাতে থাকা মোবাইল ছিনিয়ে নেয়। ছবি ও ভিডিও ডিলিট করে পুলিশের মাধ্যমে মোবাইলটি তারা ফিরিয়ে দেয় বলে জানান তিনি। এ ব্যাপারে হোসেন্দী ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল হক মিঠুর মোবাইলে একাধিকবার ফোন করেও তাকে পাওয়া যায়নি। উল্লেখ্য এর আগে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে হোসেন্দী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের চেষ্টা, অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে পুলিশের ওপর হামলা ও গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় হোসেন্দী ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল হক মিঠুকে প্রধান আসামি করে অজ্ঞাত আরো দেড়শ-দুইশ ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে সংশ্লিষ্ট থানায় বাদী হয়ে মামলাটি করেন গজারিয়া থানায় কর্মরত পুলিশের উপপরিদর্শক জাহিদ হাসান।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App