×

খবর

চট্টগ্রাম সংগীত সংগঠন মোর্চা

আন্দোলন সংগ্রামে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার প্রত্যয়

Icon

প্রকাশ: ১১ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

চট্টগ্রাম অফিস : সব আন্দোলন-সংগ্রামে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার প্রত্যয়ের মধ্য দিয়ে বন্দরনগরী চট্টগ্রামের ৩২টি সংগীত সংগঠন নিয়ে ‘চট্টগ্রাম সংগীত সংগঠন মোর্চা’ আত্মপ্রকাশ করেছে। এ উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার বিকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমির মুক্তমঞ্চে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বেলুন উড়িয়ে এ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন দৈনিক আজাদীর প্রকাশক-সম্পাদক এম এ মালেক এবং নাট্যজন আহমেদ ইকবাল হায়দার। এর আগে ২৮টি সংগীত সংগঠনের প্রতিনিধিদের জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর ‘চট্টগ্রাম সংগীত সংগঠন মোর্চা’র আহ্বায়ক কল্পনা লালার সভাপতিত্বে ও জাবেদ হোসেনের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন এম এ মালেক, আহমেদ ইকবাল হায়দার, মোর্চার যুগ্ম আহ্বায়ক মানস শেখর ও সদস্য সচিব শীলা দাশগুপ্তা। এম এ মালেক বলেন, চট্টগ্রামের সংগীত সংগঠনগুলো অনেকদিন ধরেই আলাদাভাবে প্রোগ্রাম করছিল। এ মোর্চার মাধ্যমে চট্টগ্রামের সংগীত সংগঠনগুলো যৌথভাবে কাজ করার একটি ক্ষেত্র পাবে। মোর্চা করতে গিয়ে মাঝে মাঝে নেতৃত্ব নিয়ে দ্ব›দ্ব হয়। সেটা না হলে এ মোর্চা টিকে থাকবে। নাট্যজন আহমেদ ইকবাল হায়দার বলেন, আজ একটি আনন্দের দিন। এভাবে আমাদের সবাইকে জোটবদ্ধ হতে হবে। সব আন্দোলন সংগ্রামে যাতে চট্টগ্রামের এই ৩২টি সংগীত সংগঠন একসঙ্গে কাজ করতে পারে সেটা খেয়াল রাখতে হবে। তিনি বলেন, আজ চট্টগ্রামের শহীদ মিনার নিয়ে বলার কেউ নেই। যারা এটার ডিজাইন করেছে তারা কিছুই জানে না। ইচ্ছেমতো ডিজাইন করে চট্টগ্রামের মানুষের আবেগে আঘাত দিয়েছে। যে ভুলটা তারা করেছে সেটা স্বীকার করে জবাবদিহি করতে হবে। চট্টগ্রামের সব সংস্কৃতিকর্মীকে এ আন্দোলনে এগিয়ে আসতে হবে। পরে মঞ্চে সংগীত পরিবেশন করে সংগীত ভবন, কলাবন্তী একাডেমি, স্বরলিপি সাংস্কৃতিক অঙ্গন, সারগাম সংগীত পরিষদ, রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী সংস্থা, গীতধ্বনি সংগীত অঙ্গন, বিবেকানন্দ সংগীত নিকেতন, বিশ্বতান, নজরুল সংগীত শিল্পী সংস্থা ও ছন্দানন্দ সাংস্কৃতিক পরিষদ। এরপর একে একে সংগীত পরিবেশন করে সংগীততীর্থ, অদিতি সংগীত নিকেতন, রক্তকরবী, সুরধ্বনি সাংস্কৃতিক অঙ্গন, সাংস্কৃতিক ইউনিয়ন, নজরুল কালচারাল একাডেমি, লালন পরিষদ, শ্রæতিনন্দন, রাগেশ্রী, স্বরলিপি সাংস্কৃতিক ফোরাম, দেবাঞ্জলী সংগীতালয়, উদীচী চট্টগ্রাম, আওয়ামী শিল্পীগোষ্ঠী, ঠুমরী সংগীতালয়, কালচারাল পার্ক রাউজান, পূর্বা, ফতেয়াবাদ সংগীত নিকেতন ও ইমন কল্যাণ সংগীত বিদ্যাপীঠ। এর আগে ৩২টি সংগঠনের প্রতিনিধিদের হাতে ফুল ও স্মারক তুলে দেন অতিথিরা।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App