×

খবর

১৫ মামলায় জামিন পি কে হালদারের দুই সহযোগীর

Icon

প্রকাশ: ১০ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : অবৈধ সম্পদ অর্জন ও অর্থ পাচারের অভিযোগে করা মামলায় প্রশান্ত কুমার (পি কে) হালদারের দুই সহযোগী বাসুদেব ব্যানার্জি ও তার স্ত্রী পাপিয়া ব্যানার্জিকে ১৫ মামলায় ছয় সপ্তাহের আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। তবে বিদেশে যেতে আদালতের অনুমতি নিতে হবে ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের এ দুই পরিচালককে। তাদের পাসপোর্ট আদালতে জমা দিতেও বলা হয়েছে। তাদের জামিন আবেদনের শুনানি শেষে বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী ইবাদত হোসেনের সমন্বয়ে হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেন। জামিন আবেদন শুনানি করেন আইনজীবী নুরুল ইসলাম সুজন ও জুলহাস উদ্দিন আহমেদ। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান ও আসিফ হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক। উচ্চ আদালতের এ আদেশের পর আসামিদের আইনজীবী নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, তারা ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের পরিচালক। কিন্তু তারা পরিচালক হিসেবে কোনো বোর্ড মিটিংয়ে অংশ নেননি। তাদের সই জাল করে দেখানো হয়েছে। এই কোম্পানিটি পরিচালিত হয় চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক দিয়ে। তারাই সিদ্ধান্ত নেন, কাকে, কখন, কীভাবে ঋণ দেবেন এবং আদায় করবেন। বাসুদেব ব্যানার্জি ও পাপিয়া ব্যানার্জির নিজস্ব বা অন্য কোনো শেয়ার হোল্ডার কোম্পানিতে কোনো প্রকার টাকা বা ঋণ হস্তান্তর হয়নি এবং তারা কোনোভাবেই লাভবান নয়। তাদের কোম্পানিগুলোতে প্রায় সাড়ে ৮ হাজার কর্মকর্তা ও কর্মচারী আছে। দীর্ঘদিন তাদের অনুপস্থিতিতে তাদের নিজস্ব কোম্পানির অনেক ক্ষতি হয়েছে। বিষয়গুলো আদালতে তুলে ধরে জামিন আবেদন করা হলে আদালত তাদের জামিন মঞ্জুর করেন। ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক জানান, ১৫ মামলায় জামিন আবেদনের শুনানি শেষে ছয় সপ্তাহের জামিন দিয়েছেন আদালত। তবে তাদের পাসপোর্ট আদালতে জমা দিতে হবে। অনুমতি ছাড়া বিদেশ যেতে পারবেন না। এর আগে, ৭৫০ কোটি টাকা পাচারের অভিযোগে ২০২১ সালে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) বাসুদেব ব্যানার্জি ও তার স্ত্রী পাপিয়া ব্যানার্জির বিরুদ্ধে ১৫টি মামলা দায়ের করে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App