×

খবর

গ্রেপ্তার দুই

ভুয়া এনআইডি টিন সার্টিফিকেট দেয় চক্রটি

Icon

প্রকাশ: ১০ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি), জন্ম নিবন্ধন সনদ ও কোভিড-১৯ টিকা কার্ডের গোপন তথ্য জালিয়াতির মাধ্যমে বাণিজ্য করে কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছে চক্রটি। তাদের হেফাজত থেকে উদ্ধার করা একটি অ্যাকাউন্ট থেকে ৬০ হাজারের বেশি গ্রাহক পাওয়া গেছে। এ চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- নির্বাচন কমিশনের ডাটা এন্ট্রি অপারেটর জামাল উদ্দিন ও তার সহযোগী লিটন মোল্লা। বর্তমানে তারা পুলিশ হেফাজতে তিন দিনের রিমান্ডে রয়েছে। গত মঙ্গলবার লিটন মোল্লাকে বাগেরহাট থেকে ও জামাল উদ্দিনকে পাবনা থেকে গ্রেপ্তার করে সিটিটিসির ইন্টেলিজেন্স অ্যানালাইসিস বিভাগ। গতকাল বৃহস্পতিবার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (সিটিটিসি) মো. আসাদুজ্জামান। তিনি বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নজরদারি করতে গিয়ে চক্রের সন্ধান পায় সিটিটিসির ইন্টেলিজেন্স অ্যানালাইসিস বিভাগ। পরে দীর্ঘদিন তদন্তের একপর্যায়ে তাদের শনাক্ত করা হয়। গ্রেপ্তারের পর জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গ্রেপ্তারকৃত জামাল উদ্দিন নির্বাচন কমিশনে ডাটাএন্ট্রি অপারেটর। তার সহায়তায় লিটন মোল্লা নির্বাচন কমিশন সার্ভার থেকে এনআইডি সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করতেন। গ্রেপ্তার আসামিরা অর্থের বিনিময়ে ভুয়া এনআইডি কার্ড, হারানো কার্ড উত্তোলন ও কার্ডের তথ্য সংশোধন করে দেন। এর পাশাপাশি জন্ম নিবন্ধনের ডিজিটাল কপি ও নাম সংশোধন, কোভিড-১৯ এর টিকা কার্ড ও টিন সার্টিফিকেটের কপি তৈরি করে সরবরাহ করতেন। বিষয়টি পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন তারা। সিটিটিসির অতিরিক্ত কমিশনার আসাদুজ্জামান বলেন, এ ধরনের কাজের বিনিময়ে তারা ৫০০ থেকে ৩ হাজার টাকা পর্যন্ত নিতেন। হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের মাধ্যমে তারা গ্রাহক সংগ্রহ করতেন। গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী গ্রেপ্তারকৃত লিটন নিজের তৈরি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এসব জাল সনদ তৈরি করে দিতেন ও টাকা নিতেন মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে। এভাবে তারা প্রায় কোটি টাকা আত্মসাৎ করেন। গ্রেপ্তার আসামিদের বিরুদ্ধে ঢাকার রমনা মডেল থানায় একটি মামলা হয়েছে। এ চক্রের বাকি সদস্যদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলেও জানিয়েছেন এই কর্মকর্তা।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App