×

খবর

চালককে অজ্ঞান করে চুরি

ইজিবাইকের রং ও আকৃতি বদলের পর অন্যত্র বিক্রি

Icon

প্রকাশ: ০৭ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : ইজিবাইক চুরির জন্য বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে বেড়ায় একটি চক্র। এরপর টার্গেটকে ফাঁদে ফেলার জন্য নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি ভাড়া দেয়ার প্রলোভন দেখায়। এতে রাজি হয়ে গেলে নির্ধারিত স্থানে পৌঁছামাত্র চেতনানাশক দিয়ে চালককে অজ্ঞান করে ইজিবাইকটি নিয়ে চলে যায়। পরে ইজিবাইকের রং, আকৃতি ও কাঠামো পরিবর্তন করে ৩০-৪০ হাজার টাকায় অন্যত্র বিক্রি করে দেয় চক্রটি। চোর চক্রের ৩ সদস্যকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে গতকাল সোমবার এসব তথ্য জানান র‌্যাব-১০ এর সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) এম জে সোহেল। র‌্যাবের এ কর্মকর্তা বলেন, গত রবিবার র‌্যাব-১০ এর একটি দল গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানাধীন হাসনাবাদ এলাকায় অভিযান চালিয়ে আন্তঃজেলা ইজিবাইক চোর চক্রের অন্যতম হোতা মো. কবির (৫০), তার সহযোগী দুলাল শিকদার (৫১) ও মো. সেলিমকে (৪১) গ্রেপ্তার করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৩টি চোরাই ইজিবাইক ও একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, গ্রেপ্তার কবির ইজিবাইক চোর চক্রের হোতা ও দুলাল শিকদার তার প্রধান সহযোগী। দুলাল শিকদার কেরানীগঞ্জ, শ্যামপুর ও যাত্রাবাড়ীসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ঘুরে টার্গেট খুঁজে বের করে। ইজিবাইক চুরির জন্য সুবিধাজনক স্থান নির্ধারণ করে সে কবিরকে জানায়। এরপর তারা স্ট্যান্ডে গিয়ে নির্ধারিত স্থানে যাওয়ার কথা বলে ইজিবাইক ভাড়া করে। কোনো চালক যেতে অস্বীকৃতি জানালে তাকে নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি ভাড়া দেয়ার লোভ দেখিয়ে রাজি করানো হয়। নির্ধারিত স্থানে পৌঁছামাত্র দুলাল ভাড়া দেয়ার জন্য বিভিন্ন তালবাহানা করে সময় কাটাতে থাকে। এদিকে কবির চেতনানাশক ওষুধ দিয়ে চালককে অজ্ঞান করে। তাকে সেখানে ফেলে রেখে ইজিবাইক নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। এএসপি এম জে সোহেল বলেন, চুরি করা ইজিবাইক সেলিমের হেফাজতে থাকত। পরে সেগুলোর রং, আকৃতি ও কাঠামো পরিবর্তন করে পাশের জেলা নারায়ণগঞ্জসহ বিভিন্ন এলাকায় ৩০-৪০ হাজার টাকায় বিক্রি করা হতো। বিক্রির টাকা কবির, দুলাল ও সেলিম ভাগ করে নিত। তিনি জানান, কবিরের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানায় চুরির মামলা এবং সেলিমের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় চুরি, মাদক ও হত্যাসহ মোট ৪টি মামলা রয়েছে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App