×

শেষের পাতা

চলন্ত ট্রেনে তরুণী ধর্ষণ

খাবার সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের আরেক কর্মী গ্রেপ্তার

Icon

প্রকাশ: ২৮ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

চট্টগ্রাম অফিস : সিলেট থেকে চট্টগ্রামগামী চলন্ত ট্রেন উদয়ন এক্সপ্রেসে এক তরুণীকে (১৯) সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় আবদুর রউফ রাসেল (২৮) নামে আরো একজনকে গ্রেপ্তার করেছে চট্টগ্রাম রেলওয়ে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার কুতুবপুর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ নিয়ে এই ঘটনায় মোট চারজনকে গ্রেপ্তার করা হলো। গ্রেপ্তার চারজনই ট্রেনে খাবার সরবরাহকারী (ক্যাটারিং সার্ভিস) প্রতিষ্ঠান এস এ করপোরেশনের কর্মী।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে রাসেলকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।

রাসেলকে গ্রেপ্তারের তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে গতকাল দুপুরে চট্টগ্রাম রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম শহীদুল ইসলাম জানান, উদয়ন এক্সপ্রেসে তরুণী ধর্ষণের ঘটনায় হওয়া মামলায় আবদুর রউফ রাসেল (২৮) নামে আরো এক যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনিও খাবার সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান এস এ করপোরেশনের কর্মী। চলন্ত ট্রেনে ধর্ষণের অভিযোগে ওই তরুণী চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। অভিযোগ পাওয়ার পরই তিনজনকে তাৎক্ষণিকভাবে গত বুধবার সকালে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার তিনজনকে আদালতে হাজিরের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। নির্যাতনের শিকার তরুণীকে পুলিশ হেফাজতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে।

এর আগে, বুধবার ভোরে লাকসাম পার হওয়ার সময় চলন্ত ট্রেন উদয়ন এক্সপ্রেসে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া যায়। ঘটনার পরপরই ট্রেনে খাবার সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান এস এ করপোরেশনের তিন কর্মীকে গ্রেপ্তার করে রেলওয়ে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মো. জামাল (২৭), মো. শরীফ (২৮) ও মো. রাশেদ (২৭)। ধর্ষণের অভিযোগ এনে ভুক্তভোগী ওই তরুণী চট্টগ্রাম রেলওয়ে থানায় মামলা করেন। ঘটনার শিকার তরুণীর বাড়ি বান্দরবান জেলায়। তিনি আত্মীয়ের সঙ্গে কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় থাকেন বলে জানা গেছে। ভৈরব স্টেশন থেকে ট্রেনে উঠেন ওই তরুণী। ট্রেনে তিনি খাবার ও আসবাব রাখার জন্য সংরক্ষিত বগিতে অবস্থান করছিলেন।

এদিকে, এ ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে ওই ট্রেনের পরিচালক (গার্ড) আবদুর রহিমকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চল কর্তৃপক্ষ। ঘটনা তদন্তে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এছাড়া খাবার সরবরাহকারী (ক্যাটারিং সার্ভিস) প্রতিষ্ঠান এস এ করপোরেশনের কার্যক্রম স্থগিত করেছে রেলওয়ে। চট্টগ্রাম-সিলেট রুটে চলাচলরত উদয়ন ও পাহাড়িকা এক্সপ্রেসে তারা খাবার সরবরাহ করত। গত বুধবার রাতে পূর্বাঞ্চল রেলওয়ের সহকারী প্রধান বাণিজ্যিক ব্যবস্থাপকের কার্যালয় থেকে এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করা হয়। এ আদেশে খাবার সরবরাহকারী ওই প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের দ্বারা ‘একটি অপরাধ সংঘটিত হয়েছে মর্মে প্রাথমিক তথ্য পাওয়া গেছে’ বলে উল্লেখ করা হয়।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App