×

শেষের পাতা

ঈদের দিন আট বিভাগেই বৃষ্টির আভাস

Icon

প্রকাশ: ১৬ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : রাত পোহালেই পবিত্র ঈদুল আজহা। কুরবানির পশুর হাটগুলোতে এখন বেচাকেনা চলছে ধুমছে। অস্বস্তিকর গরম থাকলেও বৃষ্টি না হওয়ায় ব্যবসায়ীদের তেমন দুর্ভোগ নেই। তবে ঈদের দিন বৃষ্টি নিয়ে দুঃসংবাদ জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। ঈদের দিন দেশের কোনো কোনো অঞ্চলে দমকা হাওয়াসহ ঝড় বয়ে যেতে পারে, কোথাও হালকা আবার কোথাও অতি ভারি বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। গতকাল শনিবার সকালে পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার পূর্বাভাসে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়, চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেসঙ্গে রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

এদিন সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। জলীয়বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তিভাব বিরাজমান থাকতে পারে।

আবহাওয়াবিদ শাহনাজ সুলতানা বলেন, এখন বর্ষা মৌসুম। তাই সারাদেশে কম-বেশি বৃষ্টিপাত হচ্ছে। এখন যেভাবে যাচ্ছে ঈদেও সেভাবে থাকবে। সেক্ষেত্রে ঈদের দিনও বৃষ্টি হবে এটা স্বাভাবিক। তবে অঞ্চল ভেদে বৃষ্টির পরিমাণ কম-বেশি হতে পারে। ঈদের পরের দিনও থাকবে কম-বেশি বৃষ্টি। ১৯ জুন থেকে দক্ষিণাঞ্চল ও ঢাকার দিকে বৃষ্টি শুরু হতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক।

সাধারণত ২৪ ঘণ্টায় ২৩ থেকে ৪৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হলে তাকে মাঝারি ধরনের ভারি এবং ৪৪ থেকে ৮৮ মিলিমিটার রেকর্ড হলে তাকে বলা হয়ে থাকে ভারি বৃষ্টিপাত।

এদিকে ঝড়-বৃষ্টি অব্যাহত থাকলেও আরেক দিকে বয়ে যাচ্ছে মৃদু তাপপ্রবাহ। খুলনা বিভাগসহ গোপালগঞ্জ জেলার ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। সারাদেশে তাপমাত্রা কম থাকলেও মেঘলা আকাশের পাশাপাশি ভ্যাপসা গরম অনুভূত হবে। ঈদের আগের দিন আজ রবিবারের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আজও সারাদেশেই মাঝারি থেকে ভারি বৃষ্টি হতে পারে। দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App