×

শেষের পাতা

রানা দাশগুপ্ত

সংখ্যালঘুদের জমি দখল করেছে বেনজীর

Icon

প্রকাশ: ০৯ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রানা দাশগুপ্ত বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী এলাকাটি আপনারই। আপনি একবার এলাকায় আসুন, আপনি দেখে যান, কীভাবে এখানকার সংখ্যালঘুদের জায়গা-জমি জবরদখল করেছেন বেনজীর আহমেদ। আমরা দাবি ও আবেদন জানাই, যাদের সম্পত্তিগুলো দখল করা হয়েছে, তাদের সম্পত্তিগুলো ফেরত দেয়া হোক।’

গত শুক্রবার সন্ধ্যায় বেনজীর আহমেদ ও তার পরিবারের সদস্যদের মালিকানাধীন গোপালগঞ্জের সাভানা ইকো রিসোর্ট অ্যান্ড ন্যাচারাল পার্ক এলাকা পরিদর্শনের পর ভুক্তভোগী সংখ্যালঘু স¤প্রদায়ের সঙ্গে কথা বলার পর সাংবাদিকদের কাছে এ মন্তব্য করেন তিনি।

এলাকাটি শতভাগ হিন্দুপ্রধান মন্তব্য করে রানা দাশগুপ্ত বলেন, তাদের শত শত বিঘা জমি জোর করে, হুমকি দিয়ে, নানাভাবে চক্রান্ত করে বেনজীর দখল করে নিয়েছেন। শুধু দখলই করেননি, কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে এমনভাবে চারদিকে বেষ্টনী করেছেন, যাতে অন্য কেউ ওই জায়গায় প্রবেশ করতে না পারে।

তিনি বলেন, র‌্যাবের মহাপরিচালক ও পুলিশের মহাপরিদর্শক হিসেবে বেনজীর আহমেদ যে ভূমিকা পালন করছেন, তা শুধু সরকারের ভাবমূর্তিই ক্ষুণ্ন করেনি, গোটা রাষ্ট্রের ভাবমূর্তিও ক্ষুণ্ন করেছে। তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের মনে হয়, যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞাগুলো এদের (বেনজীর ও জেনারেল আজিজ) কারণেই হয়েছে। হয়তো নিষেধাজ্ঞা দেয়ার সময় আমরা এই বিষয়গুলো জানতাম না। তাই অনেক সময় মনে করেছি, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশবিরোধী ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সমালোচনা করে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের এই নেতা বলেন, ‘ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বেনজীর ও আজিজ যা করেছেন, সেটা ওনাদের ব্যক্তিগত ব্যাপার। এখানে রাষ্ট্রের কোনো বিষয় না। এ বিষয়গুলোকে ব্যক্তিগত বিষয় হিসেবে চেপে রাখার কোনো বাস্তবতা নেই। আজকে তাদেরও বলা উচিত, এই মামলা চলমান থাকা অবস্থায় কী করে তারা (বেনজীর-আজিজ) এ দেশ থেকে চলে গেলেন।’

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তাপস কুমার পাল, মনিন্দ্র কুমার নাথ, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান আইনজীবী ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অনুপ কুমার সাহা, পরিষদের গোপালগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি প্রদীপ কুমার বিশ্বাস, সহসভাপতি শিপ্রা বিশ্বাস, সদস্য ডেভিড বৈদ্য প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ২০১৫ থেকে ২০২০ সালে র‌্যাবের মহাপরিচালক এবং ২০২০ থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত আইজিপি থাকার সময়ে বেনজীর আহমেদ গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বৈরাগীটোল গ্রামে ৬২১ বিঘা (দুদকের তথ্য অনুযায়ী) জমির ওপর গড়ে তোলেন সাভানা ইকো রিসোর্ট অ্যান্ড ন্যাচারাল পার্ক। এ রিসোর্ট ও পার্কের সব জমি হিন্দু স¤প্রদায়ের লোকজনের বলে দাবি স্থানীয় বাসিন্দাদের। তাদের ভাষ্য- ভয় দেখিয়ে, জোর করে ও নানা কৌশলে জমি কেনা হলেও অনেক জমি দখল করা হয়েছে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App