×

শেষের পাতা

রাসিক মেয়রের সংবাদ সম্মেলন

উন্নয়ন নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানো দুঃখজনক

Icon

প্রকাশ: ১০ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

উন্নয়ন নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানো দুঃখজনক
কাগজ প্রতিবেদক, রাজশাহী : আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনায় বিভিন্ন উন্নয়ন কাজসমূহ বাস্তবায়ন করছে রাজশাহী সিটি করপোরেশন। দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার মধ্যে রয়েছে নগরীর বিভিন্ন রেল ক্রসিং এ ফ্লাইওভার নির্মাণ। ফ্লাইওভারসহ নগরীতে যখন নাগরিকদের জীবনমান উন্নয়নে ব্যাপক কর্মযজ্ঞ চলমান রয়েছে, ঠিক সেই সময়ে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ নিয়ে কিছু বিভ্রান্তকর তথ্য প্রচারিত হচ্ছে। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। রাজশাহী সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় নগর ভবনের সিটি হল সভাকক্ষে নগরীর চলমান উন্নয়ন এবং ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সম্পর্কে অবহিতকরণের লক্ষ্যে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সভায় প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। তাদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন রাসিক মেয়র। মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ফ্লাইওভারের কাঠামো দাঁড় হতে এক থেকে দেড় বছর সময় লাগবে। ফ্লাইওভারের নিচের অংশের কাজ শেষ হলে উপরের অংশের কাজ শুরু হবে, তখন নিচ দিয়ে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক থাকবে। ফ্লাইওভার নির্মাণাধীন সড়কে এক থেকে দেড় বছর যানবাহন চলাচলে সাময়িক অসুবিধা হবে। এই সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা নগরবাসীর প্রতি দুঃখ প্রকাশ করছি। সবুজায়ন ও বৃক্ষরোপণের ব্যাপারে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, নগরীর প্রধান প্রধান গুরুত্বপূর্ণ সড়কসমূহ চারলেন থেকে ছয়লেনে উন্নীত করা হয়েছে। প্রশস্ত সড়ক নেটওয়ার্ক, দৃষ্টিনন্দন ফুটপাত ও আলোকায়নে নগরীর নান্দনিকতা ও সৌন্দর্য বৃদ্ধি পেয়েছে। রাস্তা প্রশস্ত করতে গিয়ে সড়কে কিছু গাছ কাটা পড়েছে। এক্ষেত্রে একটি গাছ কাটা পড়লে সিটি করপোরেশন কর্তৃক তার পরিবর্তে পরিকল্পনামতো ১০টির অধিক গাছ রোপণের পরিকল্পনা রয়েছে। গত ৫ বছরে দুই লক্ষ ৫০ হাজার এর অধিক স্থায়ী বড় গাছ, সড়কের আইল্যান্ড ও বিভিন্ন মোড়ে হেজ জাতীয় ১০ লক্ষাধিক গাছ এবং বিভিন্ন মৌসুমে ৭ লক্ষাধিক বিভিন্ন প্রজাতির ফুল গাছ লাগানো হয়েছে। পরিবেশ শাখার কর্মীরা রোপণকৃত গাছের নিবিড় পরিচর্যা করেন, পানির ট্যাংকার মাধ্যমে নিয়মিত পানি দেয়া হয়। আমাদের সম্মিলিত অব্যাহত আন্তরিক প্রচেষ্টায় নগরীর সবুজায়ন আগামীতে আরো বৃদ্ধি পাবে। জনস্বার্থে পুকুর ভরাট রোধকল্পে বিভিন্ন পুকুরের সংস্কারের মাধ্যমে সংরক্ষণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে ১৬টি জলাশয়ের উন্নয়ন ও সৌন্দর্যবর্ধন কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এতে করে সংস্কারের পাশাপাশি পুকুরগুলো বিনোদনকেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে রাজশাহীর উন্নয়নে স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন রাসিক মেয়র। এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মো. জিয়াউল হকসহ রাসিকের ৩০টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলররা।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App