×

শেষের পাতা

আইনমন্ত্রী

মামলা জট কমাতে আইন করে বিচারক নিয়োগ দেয়া হবে

Icon

প্রকাশ: ০৭ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : মামলার জট কমাতে উচ্চ আদালতে বিচারপতি নিয়োগসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়কমন্ত্রী আনিসুল হক। এ সংক্রান্ত আইন তৈরির কার্যক্রমও শেষ করে আনা হয়েছে বলেও জানান তিনি। গতকাল সোমবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে বিরোধী দলের চিফ হুইপ মুজিবুল হক চুন্নুর এক সম্পূরক প্রশ্নের উত্তরে আইনমন্ত্রী এসব তথ্য জানান। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন। মুজিবুল হক চুন্ন তার প্রশ্নে বলেন, সারাদেশে আদালতগুলোতে প্রায় ৪৩ লাখ মামলার জট, আর এর মধ্যে উচ্চ আদালতে ৩৭ লাখ মামলা বিচারাধীন। যা দীর্ঘদিন ধরে চলেছে তো চলছে। বিচারপ্রার্থীরা তো মামলা চালাতে চালাতে নিঃশেষ হয়ে যাচ্ছে। বিচারক নেই, কীভাবে আইনমন্ত্রী আপনি এ মামলার জট কমাবেন? উত্তরে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, মামলার জট বেড়েছে এটা ঠিক, তবে এর সঙ্গে কিন্তু আমরা আদালত তৈরি করে বিচারকের সংখ্যাও বাড়িয়েছি। আগে কখনো বিচারকের পদ শূন্য হওয়ার আগে বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস ক্যাডারে পরীক্ষা নিয়ে এটা রিজার্ভ বিচারকের ব্যবস্থা ছিল না। এখন কিন্তু আমরা সেটা করি- যাতে কোনো বিচারক অবসরে গেলে সেই পদটা যেন খালি না থাকে, তড়িঘড়ি যেন আমরা সেখানে বিচারক দিতে পারি। দ্বিতীয় যেটা করা হচ্ছে বিচারকের পদ সৃজন এবং আদালত সৃজন দুইটির জন্যই আমি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে লিখেছি এবং সেখানে ১৭৮টি পদ সৃজনের প্রস্তাব করা হয়েছে। সেটা আসলে আমার মনে হয় মামলার জট কমানোর চেষ্টা করবে। মামলার জট কমানোর জন্য অন্যান্য চেষ্টাও হচ্ছে। আইনমন্ত্রী বলেন, অবশ্যই দেখা গেছে, হাইকোর্ট বিভাগে অন্ততপক্ষে বিচারপতি ছিলেন ১শ জন, এখন সেটা কমে এসছে, অবসরে গেছেন অনেকে, আপিল বিভাগে গেছেন অনেকে। সেই ক্ষেত্রে এখন নেমে এসেছে ৮৪ জনে। আমি সংসদকে বলতে পারি রাষ্ট্রপতি তার সাংবিধানিক ক্ষমতা ব্যবহার করে খুব শিগগিরই হাইকোর্ট বিভাগে বিচারপতি নিয়োগ দেবেন। সঙ্গে সঙ্গে আরেকটা কথা বলতে চাই, বিচাপতি নিয়োগের জন্য আইন যেটা করার সেটাও কিন্তু আমরা শেষ করে এনেছি। দ্বিতীয় পদক্ষেপ যেটা আমরা নিচ্ছি সেটা হচ্ছে- হাইকোর্টেও বিচারপতি নিয়োগের ব্যাপারে যে আইনটা সেটার জন্য অংশীজনদের সঙ্গে আলাপ করার জন্য খুব শিগগিরই একটা সময় ও তারিখ দেয়া হবে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App