×

শেষের পাতা

৩ জন বরখাস্ত, ৩টি তদন্ত কমিটি

দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে লোকো মাস্টারসহ আহত ৪

Icon

প্রকাশ: ০৪ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে লোকো মাস্টারসহ আহত ৪
কাগজ প্রতিবেদক : গাজীপুরের জয়দেবপুর জংশন এলাকায় যাত্রীবাহী ও তেলবাহী ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনায় কেউ নিহত না হলেও লোকো মাস্টারসহ ৪ জন আহত হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের পর থেকেই ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। প্রায় ২ ঘণ্টা পর রেল যোগাযোগ ফের স্বাভাবিক হতে শুরু করে। উদ্ধার কাজে রেলওয়েসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরা অংশ নেন। এদিকে দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা তদন্তে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের দুটি ও জেলা প্রসাশনের পক্ষ থেকে ৩ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। এছাড়াও জয়দেবপুর জংশনের স্টেশন মাস্টারসহ ৩ জনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। জয়দেবপুর স্টেশন মাস্টার হানিফ আলী দুর্ঘটনার বিষয়ে বলেন, ভুল সিগন্যাল দেয়ার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। মালবাহী ট্রেনের ৫টি ও যাত্রীবাহী ট্রেনের ৪টি বগি লাইনচ্যুত হয়েছে। এ ঘটনায় ছোট দেওড়া এলাকায় আপগুন্টি ঘরের মাস্টার হাসেম আলী ও পয়েন্টম্যান সাদ্দাম হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমানকে বরখাস্ত করা হয়েছে। রেলওয়ে কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, গতকাল শুক্রবার সকালে টাঙ্গাইল থেকে ছেড়ে আসে টাঙ্গাইল কমিউটার ট্রেন। ছুটির দিন হওয়ায় ট্রেনে যাত্রী ছিল কম। সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে ট্রেনটি জয়দেবপুর স্টেশনের দক্ষিণে আউটার সিগন্যালে পৌঁছায়। এদিকে এ সময় সেখানে আসে ঢাকা থেকে তেলবাহী একটি ট্রেন। আউটার সিগন্যালে একজন মাস্টারসহ ৩ জন দায়িত্ব পালন করেন। আগে থেকে নির্দেশনা পেয়ে তারা সিগন্যাল পরিবর্তন করে ট্রেনগুলো কোন লাইনে যাবে, সেটি পরিবর্তন করেন। সেখানে দায়িত্বে থাকা মাস্টার ও পয়েন্টম্যান ভুল করে যাত্রীবাহী ট্রেনটি অন্য লাইনে ঢুকিয়ে দেন। এতে তেলবাহী ট্রেনের সঙ্গে যাত্রীবাহী ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় দুই চালকসহ ৪ জন আহত হন। জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আব্দুস সামাদ জানান, রেল দুর্ঘটনায় দুই ট্রেনের চালক ও সহকারীরা আহত হয়েছেন। তাদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জয়দেবপুর জংশন স্পেশাল রেসপন্স টিমের কমান্ডার জাহিদ শেখ বলেন, টাঙ্গাইল কমিউটার ট্রেনে তেমন যাত্রী ছিল না। ট্রেনটি ঢাকার দিকে ওয়াশ পিটে যাচ্ছিল। সে সময় একই লাইনে থাকা তেলবাহী ট্রেনের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে টাঙ্গাইল কমিউটারের লোকো মাস্টার গুরুতর আহত হন। তাকে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আবুল ফাতে মোহাম্মদ সফিকুল ইসলাম বলেন, জয়দেবপুরে ট্রেন দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখতে ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ২ কার্যদিবসের মধ্যে তাদের প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। রেলওয়ের পক্ষ থেকেও সিওপিএস মো. শহীদুল ইসলামকে প্রধান করে ৫ সদস্যের একটি আঞ্চলিক কমিটি ও রেলওয়ে ঢাকা বিভাগীয় প্রকৌশলী (সিগন্যাল ও টেলিকমিউনিকেশন) সৌমিক শাওন কবিরকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের আরেকটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। জয়দেবপুরের স্টেশন মাস্টার মো. হানিফ আলী জানান, বেলা ১১টার দিকে সংঘটিত এ দুর্ঘটনার পর উভয় ট্রেনের বেশ কয়েকটি বগি লাইনচ্যুত হলে ঢাকাসহ দেশের উত্তর ও পশ্চিমাঞ্চলের সঙ্গে রেল যোগাযোগ বিঘিœত হয়। জয়দেবপুর আউটার সিগন্যালের কাজীবাড়ী ছোট দেওড়া এলাকায় দুই ট্রেনের সংঘর্ষের ফলে ডাবল লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে। প্রায় ২ ঘণ্টা পর ডাবল লাইনের ডাউন লাইন দিয়ে ট্রেন চলাচল শুরু হয়। ১২টা ৫০ মিনিটের দিকে সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস জয়দেবপুর স্টেশন হয়ে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে গেছে। এর কিছু সময় পর একইভাবে একতা এক্সপ্রেস ঢাকা থেকে জয়দেবপুর স্টেশন হয়ে পঞ্চগড়ের উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App