×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

গ্যালারি

নিভে গেল দাবার এক উজ্জ্বল প্রদীপ

Icon

ওয়ায়েজ আহমেদ মাহিম

প্রকাশ: ০৯ জুলাই ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

নিভে গেল দাবার এক উজ্জ্বল প্রদীপ

গত শুক্রবার না ফেরার দেশে চলে গিয়েছেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন দাবাড়ু গ্র্যান্ডমাস্টার জিয়াউর রহমান। দাবা খেলতে খেলতেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন এই দাবাড়–। বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনে সেদিন চলছিল জাতীয় দাবা প্রতিযোগিতার ১২তম রাউন্ডের খেলা। সেখানে গ্র্যান্ডমাস্টার জিয়াউর রহমান খেলছিলেন আরেক গ্র্যান্ডমাস্টার এনামুল হোসেন রাজীবের বিপক্ষে। বিকাল ৩টায় শুরু হওয়া ম্যাচটিতে খেলতে খেলতেই ৫টা ৫২ মিনিটে হঠাৎ মাটিতে লুটিয়ে পড়েন জিয়াউর। এরপর শাহবাগের ইব্রাহিম কার্ডিয়াক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে এই গ্র্যান্ডমাস্টারকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। হুট করে এই দাবাড়ুর মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে আসে দেশের ক্রীড়া অঙ্গনে। মৃত্যুকালে জিয়াউর রহমানের বয়স হয়েছিল ৫০ বছর। ১৯৭৪ সালে জন্ম নেয়া জিয়া ১৯৯৩ সালে ইন্টারন্যাশনাল আর ২০০২ সালে দেশের দ্বিতীয় গ্র্যান্ডমাস্টারের খেতাব অর্জন করেন। তিনি গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাই স্কুল থেকে এসএসসি পাস করেন। পরবর্তীতে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক পাস করেন। বাংলাদেশি দাবাড়ুদের মধ্যে সর্বোচ্চ ২৫ শো ৭০ ফিদে রেটিংও ছিল তার দখলে। ১৯৮৮ সালে প্রথমবার জাতীয় দাবায় চ্যাম্পিয়ন হন জিয়াউর রহমান। টুর্নামেন্টে রেকর্ড ১৪ বারের চ্যাম্পিয়নও তিনি। যেখানে বাকি চার গ্র্যান্ডমাস্টার সম্মিলিতভাবে জিতেছেন ১৬ বার। আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন দাবাড়ু গ্র্যান্ডমাস্টার জিয়াউর রহমান দাবা খেলায় ইতিহাস সৃষ্টি করেছিলেন। ২০২২ সালে ৪৪তম দাবা অলিম্পিয়াডে ছেলে তাহসিন তাজওয়ার জিয়ার সঙ্গে তিনি বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন। দাবার ইতিহাসে তারাই প্রথম পিতা-পুত্র জুটি, যারা জাতীয় দাবা দলে ছিলেন। ছেলে তাহসিন সেসময় বলেছিলেন, ‘ছোট থাকতে বাবা অলিম্পিয়াডে আমাকে ও মাকে নিয়ে যেতেন। স্বপ্ন দেখতাম, বাবার সঙ্গে খেলে বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করব। আমি বাবার সঙ্গে দাবা অলিম্পিয়াড দেখতে অনেকবার বিদেশে গিয়েছি। কিন্তু এত তাড়াতাড়ি খেলতে যাব সেটা কল্পনাও করিনি।’ এছাড়া ২০২৩ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবিতে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক দাবা ফেস্টিভালে বাংলাদেশের গ্র্যান্ডমাস্টার জিয়াউর রহমান ১৩তম হয়েছিলেন। সেখানে জিয়ার ছেলে ফিদে মাস্টার তাহসিন তাজওয়ার জিয়া সাড়ে ৩ পয়েন্ট নিয়ে হয়েছিলেন ১১৩তম। গত বছর ভারতের নয়াদিল্লিতে ১৮তম ওপেন আন্তর্জাতিক গ্র্যান্ডমাস্টার’স দাবায় দ্বিতীয় হয়েছিলেন বাংলাদেশি দাবাড়ুদের মধ্যে সর্বোচ্চ ফিদে রেটিং অর্জন করা গ্র্যান্ডমাস্টার জিয়াউর রহমান। এর আগে ২০১২ সালে ভারতের নাগপুরে আন্তর্জাতিক ওপেনে শিরোপা জিতেছিলেন জিয়া।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App