×

গ্যালারি

কে হাসবে শেষ হাসি?

Icon

ওয়ায়েজ আহমেদ মাহিম

প্রকাশ: ১৪ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কে হাসবে শেষ হাসি?
বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীরা তাকিয়ে আছে ইংল্যান্ডের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামের পানে, কারণ আগামী ২ জুন সেখানেই বসতে যাচ্ছে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জয়ের লড়াই। যেখানে ১১ বছর পর ফাইনাল খেলার সুযোগ পেয়েছে জার্মান ক্লাব বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে ১৪ বারের শিরোপাজয়ী স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ। এর আগে সেমিফাইনালে ফরাসি জায়ান্ট পিএসজিকে হারিয়ে ডর্টমুন্ড এবং রোমাঞ্চকর এক ম্যাচে শেষ মুহূর্তে রূপকথার নায়ক হোসেলুর করা গোলে বায়ার্ন মিউনিখকে হারিয়ে ফাইনালের টিকেট নিশ্চিত করে রিয়াল মাদ্রিদ। ফাইনাল পর্যন্ত বরুশিয়া ডর্টমুন্ডকে নেতৃত্ব দিয়েছেন জার্মান মিডফিল্ডার এমরে কান। ২০২০ সালে এমরে কান বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন। অপরদিকে লস ব্লাংকোদের দলপতি হিসেবে আছেন নাচো ফার্নান্দেজ, যিনি ২০১২ থেকে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে খেলছেন। ওয়েম্বলিতে এই দুজনের অধিনায়কত্বেই শিরোপার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে দল দুটি। নাচো ফার্নান্দেজ, ৩৪ বছর বয়সি স্প্যানিশ ডিফেন্ডার। মূল পজিশন সেন্টার-ব্যাক হলেও দলের প্রয়োজনে লেফট এবং রাইট ব্যাকেও খেলেন মাঝে মাঝে। শট নেন ডান পায়ে। স্পেনের জাতীয় দলে যোগ দেন ২০১৩ সালে। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে খেলছেন ২০১২ সাল থেকে। এ পর্যন্ত নাচো শিরোপা জিতেছেন ২৭টি, এর মধ্যে ২৫টি শিরোপাই জিতেছেন রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে। তার ঝুড়িতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা আছে ৫টি। চলতি মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে তিনি ম্যাচ খেলেছেন ১১টি। রক্ষণভাগের খেলোয়াড় হওয়ায় তার ঝুলিতে নেই কোনো গোল বা অ্যাসিস্ট। ১১ ম্যাচে হলুদ কার্ড পেয়েছেন ১টি। এদিকে এমরে কান, ৩০ বছর বয়সি জার্মানির খেলোয়াড়। খেলেন মিডফিল্ডে তবে দলের প্রয়োজনে সেন্টার ব্যাকেও খেলতে পারেন। তিনি শট নেন ডান পায়ে। ২০২০ সালে নিজ দেশের ক্লাব বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন তিনি। এর আগে বায়ার্ন মিউনিখ এবং জুভেন্টাসের হয়ে খেলেছেন এই জার্মান মিডফিল্ডার। এখন পর্যন্ত শিরোপা জিতেছেন ৯টি। এর মধ্যে বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে ১২-১৩ মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জিতেছেন তিনি। এই দুজন অধিনায়কের মধ্যে ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে কে শিরোপা জিতে শেষ হাসি হাসবেন সেটি দেখার অপেক্ষায় বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীরা।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App