×

প্রথম পাতা

ব্যাটিং ব্যর্থতায় টাইগাররা ম্যাচ হারল

Icon

প্রকাশ: ২৬ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

ব্যাটিং ব্যর্থতায়  টাইগাররা ম্যাচ হারল

কাগজ প্রতিবেদক : টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার এইটে ভারতের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার হারে সেমিফাইনালে উঠার দুর্দান্ত সুযোগ এসেছিল টাইগারদের সামনে। সুপার এইটে শেষ ম্যাচে গতকাল আফগানিস্তানকে বড় ব্যবধানে হারালেই সেমিফাইনালে উঠে যেত লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। সহজ করে বললে, আগে ব্যাট করলে ৬২ রান এবং পরে ব্যাট করলে ১৩ ওভারের মধ্যেই জিততে হতো লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের। আফগানদের অল্পতে আটকে সমীকরণ আরো সহজ করে দিয়েছিল বোলাররা। তবে শেষ পর্যন্ত ব্যাটারদের ব্যর্থতায় পারেনি লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। লক্ষ্য ১১৬ রান। আফগানিস্তানকে ১১৫ রানে আটকে দিয়ে পুরো টুর্নামেন্টের মতোই বোলাররা তাদের কাজটা গতকালও করেছিল ঠিকঠাকভাবে। সেন্ট ভিনসেন্টের উইকেটে ২০ ওভারে এই রান করাটা সহজ। তবে সেমিফাইনালে যেতে হলে বাংলাদেশকে এই রান টপকাতে হতো ১২.১ ওভারে।

ওভারপ্রতি তুলতে হতো ৯.৫৭ রান। টি-টোয়েন্টি আর টি-টেনের ধুমধাড়াক্কা ক্রিকেটের এই সময়ে এটাকে কঠিন বললে ভুল হবে। ব্যাটাররা একটু দায়িত্ব নিয়ে খেললে সেমির টিকেট পেত লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

গতকাল শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে শেষ পর্যন্ত বৃষ্টি আইনে আফগানদের কাছে ৮ রানে হেরেছে টাইগাররা। এতে সুপার এইটে বাংলাদেশের জয় খরাও কাটেনি। টাইগারদের এই পরাজয়ে নেট রান রেটে পিছিয়ে থেকে বিশ্বকাপ থেকে অস্ট্রেলিয়াও বিদায় নিয়েছে। অন্যদিকে ৩ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে প্রথমবারের মতো সেমিফাইনালে উঠেছে রশিদ-নবিরা।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১১৫ রান তুলে আফগানিস্তান। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেন রহমানুল্লাহ গুরবাজ। ৫৯ রানে রিশাদ হোসেন ভাঙেন উদ্বোধনী জুটি। এরপর ৮৪ রানের মাথায় দ্বিতীয় উইকেটের পতন ঘটান মোস্তাফিজুর রহমান। আউট হন আজমতউল্লাহ ওমরজাই। এরপর নিজের তৃতীয় ওভার বল করতে এসে এক ওভারেই নিলেন ২ উইকেট। ফেরালেন দুই মারকুটে ব্যাটার রহমানুল্লাহ গুরবাজ এবং গুলবাদিন নাইবকে। শেষ দিকে রশিদের ২ ছক্কায় শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেট হারিয়ে ১১৫ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয় আফগানরা।

বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন রিশাদ। এছাড়া তাসকিন ও মোস্তাফিজের শিকার একটি করে উইকেট।

আফগানদের ছুড়ে দেয়া মামুলি লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ইনিংসের শুরুতেই ধাক্কা খায় বাংলাদেশ। রানের খাতা খোলার আগেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন তানজিদ হাসান তামিম।

এরপর দলীয় ৫০ পেরোনোর আগেই ৪ উইকেট খুইয়ে বসে লাল-সবুজেরা। অধিনায়ক শান্ত ৫ বলে ৫, সৌম্য ১০ বলে ১০ এবং ডাক মেরে প্যাভিলিয়নে ফেরেন সাকিব আল হাসান।

সতীর্থদের আসা-যাওয়ার মিছিলে একপ্রান্ত আগলে রেখে খেলতে থাকেন লিটন দাস। সতীর্থদের ব্যর্থতার দিনে ৪১ বলে সান্ত¡নার হাফ সেঞ্চুরিও তুলে নেন। লিটন উইকেটে থিতু হলেও তাসকিন আহমেদ ও মোস্তাফিজুর রহমানকে ফিরিয়ে আফগানদের জয়ের বন্দরে নোঙ্গর করান নাভিন উল হক। শেষ পর্যন্ত ১৭.৫ ওভারে ১০৫ রানে থামে বাংলাদেশের ইনিংস। ৪৯ বলে ৫৪ রানে অপরাজিত থাকেন লিটন।

আফগানদের হয়ে ৪টি করে উইকেট নেন নাভিন উল হক ও রশিদ খান।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App