×

প্রথম পাতা

জিতবে অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান

Icon

প্রকাশ: ০৬ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

যতই দিন গড়াচ্ছে ধীরে ধীরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জমে উঠেছে। আজ দুই দেশে তিনটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ভোর সাড়ে ৫টায় গায়ানায় পাপুয়া নিউগিনি মোকাবিলা করবে উগান্ডার। সকাল সাড়ে ৬টায় বার্বাডোজে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হচ্ছে ওমান। রাতে ডালাসে পাকিস্তানের বিপক্ষে লড়বে স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্র। এ তিন ম্যাচে আমি পাপুয়া নিউগিনি, অস্ট্রেলিয়া এবং পাকিস্তানকে এগিয়ে রাখব। পাকিস্তান এবং অস্ট্রেলিয়া প্রতিপক্ষকে উড়িয়ে দেবে তা সহজেই বলা যায়।

প্রথমে অস্ট্রেলিয়া-ওমান ম্যাচ নিয়ে আলোচনা করা যাক। এবার বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ওমান হেরেছে নামিবিয়ার বিপক্ষে। সুপার ওভারে হেরেছিল আকিব ইলিয়াস বাহিনী। অস্ট্রেলিয়াকে বড় দল বিবেচনা করে বাড়তি চাপ নিতে নারাজ ওমান অধিনায়ক। অজিদের স্পিন দিয়েই ঘায়েল করার পরিকল্পনা করছেন তিনি। অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিংয়ের যে গভীরতা তাতে তারা সফলকাম হবেন বলে মনে হচ্ছে না।

অস্ট্রেলিয়া ঐতিহাসিক এক কীর্তির সামনে দাঁড়িয়ে। প্রথম দল হিসেবে তিন ফরম্যাটের বৈকি শিরোপা জয়ের হাতছানি তাদের সামনে। গত বছর ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয়ের আগে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা ঘরে তুলেছে। এবার অজিরা সবদিক দিয়ে ব্যালান্স দল। বিশেষ করে তাদের পেস আক্রমণ বিশ্বসেরা। স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা একাই ম্যাচে মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারেন। আইপিএল রানে ছিলেন না গেøন ম্যাক্সওয়েল। আজ ওমানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে কামব্যাক করতে পারেন তিনি।

রাত সাড়ে ৯টায় ডালাসে পাকিস্তানের মোকাবিলা করবে স্বাগাতিক যুক্তরাষ্ট্র। এ ম্যাচে মার্কিনিদের কোনো অঘটন ঘটানোর সুযোগ দেবে না। বিশ্বকাপ শুরুর আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ হেরেছে পাকিস্তান। এ সিরিজের মাধ্যমে নিজেদের ভুল ত্রæটিগুলো শুধরে নিয়েছে বাবর আজম বাহিনী। কে কোথায় ব্যাট করবে? কে কোন পরিস্থিতিতে বোলিংয়ে আসবে এসব বিষয়গুলো তারা গুছিয়ে নিয়েছে। নিজেদের প্রথম ম্যাচে কানাডার বিপক্ষে জয় পেলেও আজ পাকিস্তানই ফেভারিট। তাদের হারানোর মতো রসদ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নেই। ম্যান ইন গ্রিনদের পেস আক্রমণে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাটাররা কতক্ষণ টিকতে পারবে তা-ই দেখার বিষয়।

কাগজে-কলমে ফেভারিট ২০০৯ আসরের চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান এ বছর চারটি টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেছে। এর মধ্যে দুটিতে হার, একটিতে জয় ও ড্র করেছে তারা। বছরের শুরুতে নিউজিল্যান্ড সফরে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ৪-১ ব্যবধানে হারে পাকিস্তান। ওই সিরিজে হারের পর শাহিন শাহ আফ্রিদিকে সরিয়ে সাদা বলের দুই ফরম্যাটে পুনরায় বাবর আজমের কাঁধে অধিনায়কত্বের ভার তুলে দেয় পাকিস্তান।

এরপর বাবরের নেতৃত্বে ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ২-২ সমতায় শেষ করে পাকিস্তান। বিশ্বকাপের আগমুর্হূতে প্রস্তুতি হিসেবে আয়ারল্যান্ড ও ইংল্যান্ড সফর করে পাকিস্তান। আইরিশদের কাছে প্রথম ম্যাচ হারলেও, শেষ পর্যন্ত ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নেয় তারা। কিন্তু ইংল্যান্ডের মাটিতে চার ম্যাচের সিরিজ ২-০ ব্যবধানে হেরে যায় বাবরের দল।

ভোর সাড়ে ৫টায় গায়ানায় পাপুয়া নিউগিনি মোকাবিলা করবে উগান্ডার। শক্তির বিচারে দুদল কাছাকাছি। নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে পাপুয়া নিউগিনি বেশ ফাইট দিয়েই হেরেছে। অভিজ্ঞ রস্টন চেজ এবং আন্দ্রে রাসেলের দৃঢ়তায় যে পর্যন্ত জয় নিয়ে মাঠে ছেড়েছিল ক্যারিবিয়ানরা। উইন্ডিজকে যেভাবে প্রায় ধরেই ফেলেছিল পাপুয়া নিউগিনি আজ সেভাবে খেলতে পারলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে সক্ষম হবে আসাদ ভালা বাহিনী।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App