×

প্রথম পাতা

একচেটিয়া আধিপত্য পরিবর্তন হয়েছে

ড. আমেনা মহসীন অধ্যাপক, ঢাবি

Icon

প্রকাশ: ০৫ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

একচেটিয়া আধিপত্য পরিবর্তন হয়েছে

কাগজ প্রতিবেদক : ভারতের লোকসভা ভোটের ফলাফল অনেকটা এমনই হওয়ার কথা ছিল জানিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ড. আমেনা মহসীন ভোরের কাগজকে বলেন, এতে ধর্মের ব্যবহার অনেকটা কমেছে। একচেটিয়া মনোভাবেরও পরিবর্তন হয়েছে। এরপরই তিনি ভারতের বিরোধী রাজনৈতিক দলের জোটের প্রশংসা করে বলেন, এই প্রথম দেশটিতে বিরোধীদের শক্তিশালী একটা জোট হয়েছে এবং সেই জোট নির্বাচনে গিয়েছে। চমৎকার ফলাফল করে উঠে এসেছে। তারা ভোটারদের কাছে মানুষের বিভিন্ন কথা স্বার্থকভাবে তুলে ধরেছে। বিরোধীরা ভোটের আগেই ভোটারদের বলেছে, বিজেপি জয়ী হলে ভারতে বেকারত্ব আরো বাড়বে, দারিদ্র্যের লড়াই আরো ঘন হবে। হিন্দুত্ববাদের কথা, সংবিধান পরিবর্তনের কথাও তুলে ধরেছে। ভারতীয় ভোটাররাও বিচক্ষণতার সঙ্গে সেসব কথা শুনে ভোট দিয়েছেন, ফাইট দিয়েছেন। তাতেই বিরোধীরা সেখানকার একচেটিয়া আধিপত্যের পরিবর্তন করতে পেরেছেন। এসব বিষয়কে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মনে হয়েছে।

তবে দেশটির বিরোধীদের উদ্দেশে প্রশ্ন রেখে আমেনা মহসীন বলেন, তারা মোদিবিরোধী হাওয়া তুলে ভোটে লড়েছে এবং ভারো ফল করেছে। কিন্তু এরপরে বিরোধীদের বক্তব্য কী, তারা কী কাজ করতে চায়- সেটা এখন পর্যন্ত দেখতে পাওয়া যায়নি। ব্যক্তি নির্ভর নেতিবাচক রাজনীতি একটা পর্যায় পর্যন্ত বলবৎ থাকে। এরপর সেটির আর শক্তি থাকে না। বিরোধীরা যত তাড়াতাড়ি সেটি তুলে ধরতে পারবে ততই তাদের লাভ হবে।

ভোটের ফলে দেখা যাচ্ছে দেশটিতে জোট সরকার আসছে, সেক্ষেত্রে সেটিতো যে কোনো সময় ভেঙেও যেতে পারে- এ বিষয়ে তিনি বলেন, আশঙ্কাটি অমূলক নয়। তবে এই প্রশ্নের উত্তরের জন্য আরো কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে। জোট সরকার হলে তৃতীয় মোদি সরকার কী দুর্বল সরকার হবে? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মনে হয় না পরবর্তী সময়ে মোদি সরকার দুর্বল হবে। যেটা হয়েছে, মোদি বলেছিলেন, নির্বাচনে ৪শ আসন পাবে বিজেপি। সেটি পায়নি। এ অবস্থায় বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের নতুন সরকারের সম্পর্কের ক্ষেত্রে কোনো প্রভাব পড়বে কি? এমন প্রশ্নের জবাবে ঢাবির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের এই অধ্যাপক বলেন, মনে হয় না ভারত-বাংলাদেশের চলমান সম্পর্কের পরিবর্তন হবে। কারণ বাংলাদেশের সঙ্গে দেশটির কোনো রাজনৈতিক দলের বিরোধ নেই।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App