×

প্রথম পাতা

প্রধানমন্ত্রী

ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকার নির্র্দেশ

Icon

প্রকাশ: ২৯ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকতে সরকারি কর্মকর্তাদের বলেছেন। তাদের গতানুগতিক অবস্থার বাইরে এসে কাজ করতে নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি।

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভা পরবর্তী সময়ে সংবাদ সম্মেলনে গতকাল মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন সম্পর্কে পরিকল্পনা সচিব সত্যজিত কর্মকার সাংবাদিকদের এসব কথা জানান। তিনি বলেন, ঘূর্ণিঝড় রেমালের ক্ষয়ক্ষতি পর্যবেক্ষণে রাত ২টা পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী জেগে ছিলেন। তিনি প্রত্যেক জেলার সঙ্গে যোগাযোগ রেখে ব্যবস্থাপনা নিতে নির্দেশনা দিয়েছেন। তাছাড়া ল্যান্ডফোনের গুরুত্ব দিতে বলেছেন। কেননা রেমালে ল্যান্ডফোনের গুরুত্ব সামনে এসেছে।

সচিব আরো বলেন, আজকের একনেক সভায় ডিজিটাল পদ্ধতিতে একটি প্রকল্প উপস্থাপন করা হয়েছে। এর কারণে ডিপিপি করতে যে বেশি কাগজপত্র দরকার হতো- তা লাগবে না। এটি রোহিঙ্গা ও স্থানীয় লোকদের জন্য নেয়া প্রকল্প দিয়ে উদ্বোধন করা হয়। এখানে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন যেন এই পদ্ধতিতে কাজ করা হয়। এর ফলে অনেক কাজ সহজ হয়ে পড়বে।

সচিব জানান, এ ধাপে ১২টি প্রকল্প রয়েছে। গতানুগতিকতার বাইরে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী তা বাস্তবায়ন করতে বলেছেন। প্রধানমন্ত্রী দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়কে নির্দেশনা দিয়েছেন যে পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তার যথাযথ হিসাব বের করতে হবে। বিভিন্ন গণমাধ্যমে যেসব ক্ষয়ক্ষতির চিত্র এসেছে তা চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নিতে হবে। রেমালে ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ সংস্কার করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তাছাড়া দ্রুত দুর্গত এলাকায় খাবার পানির ব্যবস্থা করতে বলেছেন। প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন সম্পর্কে সচিব আরো বলেন, এই একনেক চলতি অর্থবছরের ১০ম সভা ও নতুন সরকারের চতুর্থ সভা। ১১টি প্রকল্প উপস্থাপন করা হয়েছে। ডিজিটাল উপস্থাপনা করা হয়েছে। সফওয়ারের মাধ্যমে তা করা হবে। এক ক্লিক করেই সব তথ্য পাওয়া যাবে।

সচিব বলেন, প্রকল্পগুলো ভালোভাবে উপস্থাপন করায় বেশি প্রশ্ন থাকে না। অতি সুন্দর করে সাজিয়ে উপস্থাপন করায় হয়তো কিছু জায়গায় সংযোজন ও বিয়োজনও থাকে। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী পক্ষেই কথা বলেন।

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী মো. শহীদুজ্জামান সরকার বলেন, এই একনেক সভাটি ঐতিহাসিক। পাওয়ার প্রজেক্টর সফওয়ারের (পিপিএস) মাধ্যমে প্রথম একটি প্রকল্প উপস্থাপন ও অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App