×

প্রথম পাতা

চিকিৎসার জন্য ভারতে গিয়ে নিখোঁজ এমপি আনোয়ারুল!

Icon

প্রকাশ: ২০ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

চিকিৎসার জন্য ভারতে গিয়ে  নিখোঁজ এমপি আনোয়ারুল!

কাগজ প্রতিবেদক, ঢাকা ও ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : কানের চিকিৎসার জন্য ভারতে যাওয়ার পর খোঁজ মিলছে না ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) ও কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল আজিম আনারের। ছয় দিন ধরে পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন তার। গত তিন দিন ধরে তার কোনো খোঁজ পাচ্ছে না পরিবার। এতে উদ্বিগ্ন তার পরিবারের সদস্য ও নেতাকর্মীরা। সংসদ সদস্যের ছোট মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন বাবার খোঁজ পেতে গতকাল রবিবার বিকালে মিন্টো রোডে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কার্যালয়ে যান। ডিবি কর্মকর্তাদের বিষয়টি অবহিত করে সাহায্য চান তিনি।

এদিকে একজন সংসদ সদস্যের রহস্যজনক নিখোঁজের ঘটনায় পুলিশ ও গোয়েন্দারা খোঁজখবর শুরু করেছে। ভারতের পুলিশের সঙ্গে বাংলাদেশ থেকে যোগাযোগ করা হয়েছে। সেখানে তার মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে খোঁজ চলছে বলে জানা গেছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন জানিয়েছেন, এমপি নিখোঁজের ঘটনায় উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই। ভারতের নিরাপত্তাবাহিনী এ নিয়ে কাজ করছে।

এরপর রাতে ডিবি প্রধান হারুন অর রশিদ গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ওই এমপির ব্যবহৃত ভারতীয় নম্বরের সর্বশেষ অবস্থান মুজাফফরাবাদ অর্থাৎ উত্তর প্রদেশ বলে জানা গেছে। ঘটনাটি গুরুত্ব দিয়ে দেখছে ডিবি। প্রতিনিয়ত ভারতীয় পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। এ বিষয়ে ভারতীয় পুলিশ যথেষ্ট সহযোগিতা করছে।

ডিবিপ্রধান বলেন, আনোয়ারুল আজিমের একটি বাংলাদেশি ও আরেকটি ভারতীয় নম্বর ছিল। ১৬ মে সকাল ৭টার দিকে তার নম্বর থেকে দুটি কল আসে। একটি আসে তার এপিএসের নম্বরে, আরেকটি ফোনকল আসে ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুর নম্বরে। কিন্তু তখন দুজনের কেউই কল ধরতে পারেননি। তিনি আরো বলেন, দুদিন আগে এমপি নিখোঁজের খবর জানার পর ভারতীয় বিশেষ টাস্কফোর্স-এসটিএফের সঙ্গে যোগাযোগ

করি। ভারতীয় থানা পুলিশসহ ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গেও কথা বলেছি।

এর আগে ডিবি কার্যালয় থেকে বেরিয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন সাংবাদিকদের জানান, বাবার সঙ্গে ছয় দিন ধরে তাদের কোনো যোগাযোগ নেই। এ নিয়ে তারা খুবই দুশ্চিন্তায় আছেন। বাবার খোঁজ পেতে সব উপায়ে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তারা। প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের ঊর্ধ্বতন পর্যায়ে বিষয়টি জানানো হয়েছে। প্রয়োজন হলে তিনিসহ পরিবারের লোকজন ভারতেও যাবেন।

ডরিন বলেন, বাবার মোবাইল ফোন মাঝে মাঝে খোলা পাই আবার মাঝে মাঝে বন্ধ পাই। পরে এই বিষয়ে আমি ডিবিপ্রধানের সঙ্গে যোগাযোগ করি। ডিবিপ্রধান মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ আমাদের সহযোগিতা করছেন। সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার চিকিৎসার জন্য নিয়মিত ভারতে যান কিনা? এমন এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, তার বাবার কানে মেজর সমস্যা আছে। তার একটি কান বন্ধ থাকে। এ জন্য তিনি নিয়মিত ভারতে চিকিৎসা করাতে যান।

এমপি আনার চিকিৎসার জন্য ভারতের কোথায় গিয়েছেন? এমন এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যাবার আগে বাবা আমাদের বলেছেন, যেহেতু সংসদ বন্ধ সেহেতু তিনি চিকিৎসা নিতে দুই থেকে তিন দিনের জন্য ভারতে যাবেন। তিনি প্রথমে কলকাতায় যান, সেখানে এক আত্মীয়ের (আঙ্কেলের) বাসায় উঠেন। কলকাতার ওই বাসায় রাতে থাকেন। পরের দিন সকালে তিনি কলকাতার ঐ আঙ্কেলকে বলেন, একটা কাজ থাকায় তিনি বাইরে যাচ্ছেন। এরপর থেকে তাকে আর ফোনে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন কলকাতার ঐ আঙ্কেল। বাংলাদেশ থেকে ফোন করেও তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। অনেক সময় রিং হলেও কেউ ধরে না। আনোয়ারুল আজিম আনার ভারতে গিয়ে অপহরণের শিকার হয়েছে- পরিবার এই সন্দেহ করছে কিনা জানতে চাইলে ডরিন বলেন, না আমরা আপাতত এরকম কোনো সন্দেহ করছি না।

ওই সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) আব্দুর রউফ জানান, গত ১১ মে সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার চিকিৎসার জন্য ভারতে যান। ১৪ মে পরিবারের সঙ্গে ভারত থেকে তার শেষ যোগাযোগ হয়। এরপর ছয় দিন পার হলেও পরিবারের সদস্যরা তার সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করতে পারেননি। পুলিশের একটি সূত্র বলেছে, চুয়াডাঙ্গার দর্শনা সীমান্ত দিয়ে এমপি আনারকে ভারতে ঢুকতে দেখা গেছে। এর ভিডিও ফুটেজ রয়েছে।

তবে কালীগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবু আজিফ গতকাল বিকালে বলেছেন, সংসদ সদস্যের ভারত যাওয়ার ব্যাপারে তার কাছে কোনো খবর নেই। বিভিন্ন মাধ্যমে এমপি নিখোঁজ থাকার খবর শুনেছেন। তার পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ কিছুই জানায়নি। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগও করেনি।

উল্লেখ্য, আনোয়ারুল আজিম আনার ঝিনাইদহ-৪ আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত সংসদ সদস্য। তিনি ২০১৪, ২০১৮ ও ২০২৪ সালে টানা তিনবার আওয়ামী লীগের মনোনয়নে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App