×

প্রথম পাতা

টি-টোয়েন্টি সিরিজ

হোয়াইটওয়াশই টাইগারদের টার্গেট

Icon

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১২ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

হোয়াইটওয়াশই  টাইগারদের  টার্গেট

ছবি: ইন্টারনেট

আগামী ২ জুন মাঠে গড়াচ্ছে নবম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ২০ দলের অংশগ্রহণে এবারের বিশ্বকাপের আয়োজক ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও যুক্তরাষ্ট্র। ২০ দলকে ৪ গ্রুপে বিভক্ত করা হয়েছে। বাংলাদেশ পড়েছে ‘ডি’ গ্রুপে। বাংলাদেশের সঙ্গে ‘ডি’ গ্রুপে রয়েছে শ্রীলঙ্কা, দক্ষিণ আফ্রিকা, নেদারল্যান্ডস ও নেপাল। 

বিশ্বকাপের আগে নিজেদের ঝালিয়ে নিতে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৫ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচে আজ সকাল ১০টায় মাঠে নামবে টাইগাররা। ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে টি স্পোর্টস। আগের ৪ ম্যাচে জেতায় লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের সামনে আজ জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশের হাতছানি। রোডেশিয়ানরা হোয়াইটওয়াশ এড়াতে চেষ্টার ত্রুটি করবে না।

বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে ৮ উইকেটে, দ্বিতীয় ম্যাচে ৬ উইকেটে, তৃতীয় ম্যাচে ৯ রানে এবং চতুর্থ ম্যাচে ৫ রানে হেরেছে রোডেশিয়ানরা। টাইগারদের বিপক্ষে ম্যাচ বাই ম্যাচ উন্নতি করেছে রাজা বাহিনী। চতুর্থ ম্যাচে প্রায় জিততে বসেছিল সফরকারীরা। শেষ ওভারে সাকিব আল হাসানের অভিজ্ঞতার ঝলকে মান বাঁচিয়ে ৫ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে স্বাগতিকরা। 

চট্টগ্রামের তিন ম্যাচে দলে জায়গায় পাননি সাকিব আল হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান ও সৌম্য সরকার। হোম অব ক্রিকেটে চতুর্থ ম্যাচে দলে ফিরে জয়ে উজ্জ্বল অবদান রাখেন এ তিন ক্রিকেটার। ওপেনিং জুটি নিয়ে টাইগার সমর্থকদের চিন্তার যে ভাঁজ ছিল চতুর্থ ম্যাচে তা দূর করেছেন সৌম্য সরকার ও তানজিদ হাসান তামিম। এই দুই ওপেনার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১১.২ ওভারে উদ্বোধনী জুটি ১০১ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। তামিম ৫২ এবং সৌম্য সরকার ৪১ রান করেন। উদ্বোধনী জুটির ধুমধারাক্কা ব্যাটিং দেখে সমর্থকরা মনে করেছিলেন দলীয় সংগ্রহ দুশ ছাড়িয়ে যাবে। 

কিন্তু উদ্বোধনী উইকেটের বিদায়ের পর মাত্র ৪২ রানে ৯ উইকেটের পতন ঘটে। বাকি ৭ ব্যাটার দুই অঙ্কের ঘরে প্রবেশে ব্যর্থ হন। তামিম, সৌম্যের পর তাওহিদ হৃদয় দুই অঙ্কের ঘরে প্রবেশ করে ১২ রান করে আউট হন। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বিশ্বকাপের আগে ব্যাটিংয়ের এ বাজে দশায় চিন্তিত টাইগার সমর্থকরা। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চতুর্থ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে বল হাতে ঝলক দেখিয়েছেন সাকিব আল হাসান এবং মোস্তাফিজ। এ দুই বোলার রোডেশিয়ানদের ১০ উইকেটের ৭টি তুলে নিয়েছিলেন। 

সাকিব ৩.৪ ওভারে ৩৫ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট এবং মোস্তাফিজ ৪ ওভারে ১৯ রান দিয়ে ৩ উইকেট তুলে নেন। চমৎকার বোলিং নৈপুণ্যের জন্য ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন কাটার মাস্টার মোস্তাফিজ। হাথুরুসিংহের শিষ্যরা আজ জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করে আত্মবিশ্বাস নিয়ে আমেরিকায় রওনা দেবে। বিশ্বকাপের আগে ২১ থেকে ২৫ মে স্বাগতিকদের বিপক্ষে ৩ ম্যাচে টি-টোয়েন্টি সিরিজে অংশ নেবে শান্ত বাহিনী।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App