×

প্রথম পাতা

নতুন চেয়ারম্যান

একীভূত হচ্ছে না ন্যাশনাল ব্যাংক

Icon

প্রকাশ: ০৭ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : ন্যাশনাল ব্যাংক দখল হওয়ার যে গুঞ্জন চলছে সেটি সঠিক নয় বলে জানিয়েছেন ব্যাংকটির নবগঠিত পর্ষদের চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান। সেইসঙ্গে আপাতত মার্জার (একীভূত) থেকে সরে আসার কথাও জানিয়েছেন তিনি। গতকাল সোমবার বিকালে ন্যাশনাল ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান খলিলুর রহমান। পর্ষদের পক্ষে নবনিযুক্ত চেয়ারম্যান বলেন, কোনো ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত না হয়ে বরং নিজেরাই সবল হতে চাই। আগামী এক বছরের মধ্যে ব্যাংকের আর্থিক ভিত শক্তিশালী করার শর্তে আপাতত একীভূত না হওয়ার বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংক সম্মতি দিয়েছে। আমরা ব্যবসায়ীদের প্রয়োজন বুঝি। ফলে ব্যবসায়ীদের জন্য সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত নেয়ার মাধ্যমে ও তাদের পাশে থেকে ন্যাশনাল ব্যাংককে একটি ব্যবসায়ীবান্ধব ব্যাংক হিসেবে গড়ে তুলতে আমরা বদ্ধপরিকর। এর মাধ্যমে ন্যাশনাল ব্যাংক ঘুরে দাঁড়াবে ও তার হারানো ঐতিহ্য ফিরে পাবে বলে আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি। খলিলুর রহমান বলেন, ন্যাশনাল ব্যাংককে টেনে তুলতে উদ্যোক্তারা আরো এক হাজার কোটি টাকা মূলধন বিনিয়োগ করবেন। পাশাপাশি নতুন করে আরো ৩ হাজার কোটি টাকা আমানত সংগ্রহের পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। চেয়ারম্যান প্রতিশ্রæতি দিয়ে বলেন, ন্যাশনাল ব্যাংকে আর লুটপাট হবে না। সবার সহযোগিতায় ব্যাংকের খেলাপি ঋণ উদ্ধার করা হবে। ন্যাশনাল ব্যাংক একীভূত হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে, ন্যাশনাল ব্যাংক একীভূত করা হবে না। তারপরই আমরা দায়িত্ব নিয়েছি। তবে বাংলাদেশ ব্যাংক দ্রুত সময়ের মধ্যে ব্যাংকের আর্থিক উন্নতির শর্ত দিয়েছে। আমরা আগামী ১ বছরের মধ্যে ওইসব শর্ত পূরণ করার চেষ্টা করব। আল্লাহ যদি চায় তাহলে ন্যাশনাল ব্যাংক ঘুরে দাঁড়াবে। পরে সাংবাদিকরা প্রতিনিধি পরিচালকদের পরিচয় জানতে চাইলে চেয়ারম্যান কোনো উত্তর দেননি। তিনি এ সময় বলেন, তারা কোন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি তা লিখিত আছে। আমাদের সিএফও পরবর্তী সময় আপনাদের জানাবেন। কিন্তু উপস্থিত সাংবাদিকরা প্রতিনিধি পরিচালকদেরই নিজেদের পরিচয় দেয়ার অনুরোধ জানান। এ সময় তারা তাদের পরিচয় না দিয়ে চেয়ারম্যানসহ স্থান ত্যাগ করেন। একপর্যায়ে সাংবাদিকরা আবারো চেয়ারম্যানের কাছে প্রতিনিধি পরিচালকদের পরিচয় জানতে চান। কিছু সময় পরে প্রতিনিধি পরিচালকদের নাম প্রকাশ করে জানানো হয়- রিয়াজুল করিম কেওয়াই স্টিল, এরশাদ মাহমুদ স্টিচেস অ্যান্ড ওয়েব ফ্যাশন, আহসানুল হক সুন্দরবন কনসোটিয়াম ও তোফাজ্জল হক ইস্ট-কোস্ট হোল্ডিংসের প্রতিনিধি। এর আগে গত রবিবার জারি করা এক আদেশে বাংলাদেশ ব্যাংক জানায়, আমানতকারী ও ব্যাংকের স্বার্থ রক্ষার লক্ষ্যে এবং ব্যাংকিং সুশাসন নিশ্চিত করতে ন্যাশনাল ব্যাংকের নতুন পর্ষদ গঠনের জন্য ৭ জন পরিচালক ও ৩ জন স্বতন্ত্র পরিচালক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে উদ্যোক্তা পারিচালক খলিলুর রহমান চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পেয়েছেন। তারও আগে গত ২১ ডিসেম্বর নিয়ম ও বিধি ভাঙাসহ বিভিন্ন কারণ তুলে ধরে নানা অনিয়মে ধুঁকতে থাকা বেসরকারি ন্যাশনাল ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ ভেঙে দেয়ার পাশাপাশি নতুন পর্ষদ গঠন করে দিয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App