×

প্রথম পাতা

হাইকোর্টের প্রশ্ন

ফুটপাত দখল ও ভাড়া দেয় কারা

Icon

প্রকাশ: ৩০ এপ্রিল ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : রাজধানীর ফুটপাত অবৈধভাবে দখল ও ভাড়া দেয়ার সঙ্গে কারা জড়িত, তাদের তালিকা দাখিল করতে ফের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এছাড়া দখলকারীদের বিরুদ্ধে কী কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে, তা-ও জানতে চেয়েছেন আদালত। জনস্বার্থে হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) করা একটি রিট মামলার শুনানিতে গতকাল সোমবার এ আদেশ দেন বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি মো. বজলুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ। এইচআরপিবির পক্ষে রিট আবেদনকারী অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ বলেন, ঢাকার বিভিন্ন স্থানের ফুটপাত ‘বিক্রি’ ও ভাড়া দিয়ে হাজার হাজার কোটি টাকা চাঁদাবাজি করে কিছু ব্যক্তি অসৎ উপায়ে অর্থ উপার্জন করছেন এবং জনগণের স্বাভাবিক চলাচল বিঘিœত করছেন। এ বিষয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচারিত হলে হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ জনস্বার্থে একটি রিট আবেদন করে। ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ২০২২ সালের ২১ নভেম্বর রুল জারি করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালকে ৫ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করার নির্দেশনা এবং দখলকারীদের তালিকা ৬০ দিনের মধ্যে আদালতে দাখিল করার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট ডিভিশন। ওই আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল সোমবার স্বরাষ্ট্র সচিবের পক্ষে এফিডেভিট দাখিল করে ২০২৩ সালের ২১ মে সাত সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠনের কথা জানানো হয়। ওই কমিটির সদস্যরা হলেন- স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিব, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, জননিরাপত্তা বিভাগের যুগ্ম সচিব, সিআইডির ডিআইজি পদমর্যাদা সম্পন্ন একজন অফিসার, রাজউকের একজন সদস্য এবং স্থানীয় সরকার বিভাগের একজন উপসচিব। গতকাল শুনানিকালে অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ বলেন, ১৫ দিনের মধ্যে তালিকা ও দখলকারীদের নাম দেয়ার নির্দেশনা থাকলেও ৮ মাস পার হওয়ার পরও কোনো তালিকা দাখিল করা হয়নি। ফুটপাত দখল করে অবৈধ ব্যবসা ও চাঁদাবাজি অব্যাহত রয়েছে এবং কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হচ্ছে। এ কারণে ফুটপাত দিয়ে চলাচল করতে জনগণ বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। শুনানি শেষে যারা ফুটপাত দখল করেছে বা বিক্রি করেছে তাদের নামের তালিকা এফিডেভিট আকারে আগামী ১৩ মে স্বরাষ্ট্র সচিব বা স্থানীয় সরকারের সচিবকে দাখিল করতে বলেছেন আদালত। এছাড়া দখলকারীদের বিরুদ্ধে কী কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে তা-ও জানাতে বলা হয়েছে। শুনানিতে মনজিল মোরসেদের সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট সঞ্জয় মণ্ডল, অ্যাডভোকেট জাহিদ তালুকদার ও অ্যাডভোকেট সেলিম রেজা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আমিত তালুকদার।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App