×

ফ্যাশন

ঈদ সামনে, ফ্যাশনিস্তারা যা খুঁজেন!

Icon

প্রকাশ: ০৯ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

ঈদ সামনে, ফ্যাশনিস্তারা যা খুঁজেন!

ফ্যাশনিস্তাদের ক্যাজুয়াল ডে আউট কিংবা হাউস পার্টি, এই গরমে পোশাকের কাট, কালার আর প্যাটার্নে চাই হ্যাপেনিং ভাইব। তবে উৎসবে নিজেকে সবার মধ্যে আলাদা করে ফুটিয়ে তুলতে নতুন প্রজন্মের আগ্রহ একটু বেশি থাকে। দেশের ফ্যাশন হাউসগুলোও তাই ট্রেন্ডি ফ্যাশনের দিকটি মাথায় রেখে সাজায় তাদের পোশাকের সংগ্রহ। তবে এবারের ঈদে পোশাক বিক্রি রোজার ঈদের মত নয়। তাই ঈদ ও গ্রীষ্মের সংগ্রহ একই সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে নিজেদের সম্ভার নতুন করে সাজিয়েছে প্রতিটি ফ্যাশন ব্র্যান্ডের রিটেইল স্টোর।

সাদিকুর রহমান সাকিব

ফ্যাশনিস্তাদের চাহিদা অনুযায়ী বর্তমানে ট্র্যাডিশনাল ও ক্যাজুয়াল পোশাকের বিভিন্ন ধরনের কালেকশন ঘুরে ফিরে সব ব্র্যান্ড স্টোরে।

ঈদ বাজার ঘুরে দেখা যায়, সব ফ্যাশন স্টোরই স্লিম ফিট ও রেগুলার ফিটের নজরকাড়া ডিজাইনের পসরা সাজিয়েছে ছেলেদের জন্য। সাদা, কালো, নীল ও সবুজ রঙের পাঞ্জাবির এক বিশাল রেঞ্জ রয়েছে। পাশাপাশি অন্যান্য রং প্রাধান্য পেয়েছে এবার ঈদে।

রেগুলার পাঞ্জাবিতেও ব্যবহার করা হয়েছে ফাইন কটন আর মেয়েদের এথনিক টপসে প্রাধান্য পেয়েছে ভিসকস, জ্যাকার্ড সিল্ক, জর্জেট ইত্যাদি। গ্রীষ্মের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে আরামদায়ক লাইটওয়েট উপাদান।

এবার চাহিদার তুঙ্গে মেয়েদের থ্রিপিস, টু-পিস ও সালোয়ার কামিজ। এ ছাড়াও বিভিন্ন রেঞ্জের কুর্তির পাশাপাশি কো-অর্ডস সেট, টপ, ফিউশন কুর্তিসহ বিভিন্ন ক্যাটাগরি নিয়ে সাজানো হয়েছে ঈদ আউটলাইন।

এবার ঈদ গ্রীষ্মকালে হওয়ায় ক্রেতার আরাম ও স্বস্তির কথা মাথায় রেখে ফ্যাব্রিক বাছাই করা হয়েছে। পাশাপাশি ড্রেসগুলো বেশ কালারফুলও। এবারও মিল রেখে ডিজাইনের কালেকশন, যাতে ফ্যামিলির বাবা-মা-ছেলে-মেয়ে, বোন- ভাই ম্যাচিং করে ঈদ উপভোগ করতে পারে।

এবারের ঈদ নিয়ে রঙ বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী সৌমিক দাস বলেন, “প্রতিবারের মতো এবারও থিমনির্ভর কালেকশন তৈরি করা হয়েছে। তাদের এ বছরের মূল থিম ‘ক্লাসিক্যাল ফোর এলিমেন্টস’। গ্রিক মিথোলজি মতে, আগুন, পানি, মাটি ও বাতাস এই চার উপাদানে গঠিত হয়েছে বিশ্বব্রহ্মাণ্ড। প্রতিটি উপাদানের রয়েছে আলাদা প্রতীক ও সত্তা। এই চার উপাদানের নানান রূপবৈচিত্র্য তুলে ধরা হয়েছে পোশাকের রং ও নকশায়। তবে যেহেতু গ্রীষ্মকাল শেষে বর্ষার প্রারম্ভে ঈদ, তাই পোশাক ডিজাইনে সচেতনভাবেই রাখা রয়েছে ফোর এলিমেন্টসের ওয়াটার বা পানি থিমটি। পোশাক তৈরিতে ব্যবহৃত হয়েছে উন্নত মানের সুতি, স্লাব কটন, লিলেন, হাফ সিল্ক ও জর্জেট ফেব্রিক, যা গরমে আরাম দেওয়ার সঙ্গে উৎসবের আমেজটাও ধরে রাখবে। তা ছাড়া পোশাকের নকশাকে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে নানা ভ্যালু অ্যাডেড মিডিয়ার ব্যবহারে।”

সব জনপ্রিয় ফ্যাশন ব্র্যান্ডের এবারের ঈদ আয়োজনে সব পোশাকের অলংকরণে বেছে নেওয়া হয়েছে বিভিন্ন ধরনের প্রিন্ট, এমব্রয়ডারি, কারচুপি ও ট্রাডিশনাল হ্যান্ড এমব্রয়ডারি। পোশাকের কাটিং ও প্যাটার্নেও রয়েছে বৈচিত্র্য। গরমের জন্য আরামদায়ক কাপড়ে করা হয়েছে প্যাটার্নের নিরীক্ষাধর্মী ডিজাইন। এ লাইন, ট্রাপিজি, ন্যারো কাট, ফিট এন্ড ফ্লেয়ার, বিভিন্ন ধরনের সিলুয়েট ও প্যাটার্নের পোশাক পাওয়া যাবে ঘুরে ফিওে এবারের এই ঈদ সংগ্রহেও। মূলত ফ্যাশনিস্তাদের ক্যাজুয়াল ডে আউট কিংবা হাউস পার্টি, এই গরমে পোশাকের কাট, কালার আর প্যাটার্নে চাই হ্যাপেনিং ভাইব। আরামের সঙ্গে আপোস মানতে চায় না এখনকার রেডি টু ওয়ারের গ্রাহকরা। অধিকাংশের মতে, পোশাক শরীরে প্রশান্তি সঞ্চারের সঙ্গে সঙ্গে চোখের জন্য স্বস্তিদায়ক হলেই ঈদ উৎসবের আনন্দ বেড়ে যাবে কয়েকগুন।

পোশাক ও ছবি : রঙ বাংলাদেশ

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App