×

মেলা

বৃষ্টি উপেক্ষার নাকি উপভোগের

Icon

প্রকাশ: ২২ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

বৃষ্টি উপেক্ষার নাকি উপভোগের

নীল নবঘনে আষাঢ়গগনে তিল ঠাঁই আর নাহি রে।

ওগো, আজ তোরা যাস নে ঘরের বাহিরে\

বাদলের ধারা ঝরে ঝরো-ঝরো, আউষের ক্ষেত জলে ভরো-ভরো,

কালিমাখা মেঘে ওপারে আঁধার ঘনিয়েছে দেখ্ চাহি রে\

কবিগুরু তার কাব্যে বরষার দিনে এভাবেই ঘরের বাইরে যেতে মানা করেছিলেন। বলেছিলেন, কালিমাখা মেঘের আঁধার চেয়ে দেখতে। কিন্তু আমাদের শোবিজের ব্যস্ত তারকারা কি বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে চলেন নাকি উপভোগ করেন? কাজের মধ্যে বৃষ্টি এলেইবা তাদের কেমন লাগে- সেসব কথাই শেয়ার করেছেন মেলার সঙ্গে

‘বৃষ্টিকে উপেক্ষা করার মতো দুঃসাহস আমার নেই’

শারমিন সুমি, সংগীতশিল্পী

বৃষ্টি আমার ভেতরে থাকা বাচ্চাসুলভ ব্যাপারটাকে প্রকাশ করে। আসলে আমার মনে হয় প্রত্যেকটা মানুষের ভেতরে একটা শিশুসুলভ স্বভাব রয়েছে। যার প্রকাশ ঘটে বৃষ্টির সময়ে। বৃষ্টির এক একটি ফোঁটা একটা নিষ্পাপ মুহূর্ত তৈরি করে, যা আমরা সচরাচর এই শহুরে জীবনে পাই না। ফলে বৃষ্টিকে উপেক্ষা করার মতো দুঃসাহস আমার অন্তত নেই।

‘বৃষ্টি হৃদয়ঙ্গম করার

চেষ্টা করি’

আরিফিন শুভ, চিত্রনায়ক

শুটিংয়ের সময় বৃষ্টি হয়েছে বহুবার। আমার কয়েকটা সিনেমায় বৃষ্টির দৃশ্যও রয়েছে। তবে কাজের জন্য বৃষ্টিতে ভেজা আর একান্ত নিজের জন্য ভেজার মধ্যে বিস্তর তফাত রয়েছে। কাজ থেকে দূরে থাকার সময়ে যখন বৃষ্টি হয় তখন হৃদয়ঙ্গম করতে চেষ্টা করি।

আসলে সত্যি বললে, প্রতিবার যখন নতুন করে বৃষ্টি হয় তখন নতুন নতুন অনুভূতি তৈরি করে আমার ভেতর।

‘বৃষ্টির সময়টা উপভোগ করি’

মৌসুমী হামিদ, অভিনয়শিল্পী

আমরা যারা অভিনয়ের সঙ্গে জড়িত তারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জায়গায় যাই। যেমন গ্রামের দিকে কাজ করতে গিয়ে বৃষ্টি হলে সে অনুভূতি এক অন্য ছোঁয়া দেয়, যা আমরা শহরে পাই না। তবে শুটিংকালীন বৃষ্টি কাজে ব্যাঘাত ঘটায় ঠিক, কিন্তু ওই কিছু মুহূর্ত আমরা সবাই উপভোগ করি নিজেদের মতো করে। ফলে বিরক্তি প্রকাশ করা তো দূরের কথা, কিছুক্ষণ কাজ থেকে বিরতি নিয়ে বৃষ্টিতে ভিজতেও অনেকে দেরি করে না।

‘বৃষ্টি একজন নির্মম মানুষকেও নিস্তব্ধ করে দিতে পারে’

ইরফান সাজ্জাদ, অভিনেতা

শুটিংয়ের সময় বৃষ্টি এলে বিরক্ত লাগে না। আবার যে খুব ভালো লাগে তাও নয়। কারণ ওই সময়টা বৃষ্টি নিয়ে আলাদা জগৎ তৈরি করার জন্য যে পরিবেশ দরকার সেটা তখন থাকে না। তবে কিছু সময়ের জন্য একটা ভালো লাগার অনুভূতি তৈরি করে। বৃষ্টি পছন্দ নয়- এমন মানুষের সংখ্যা খুব কম আমার মনে হয়। কারণ বৃষ্টি একজন নির্মম মানুষকেও মুহূর্তেই নিস্তব্ধ করে দিতে পারে।

‘বৃষ্টি এলে মনের মধ্যে রোমান্টিসিজম কাজ করে’

মিনার, সংগীতশিল্পী

বৃষ্টি খারাপ লাগে এমন শিল্পী খুব কমই আছে। তবে একনাগাড়ে বৃষ্টি হতে থাকলে তখন খানিকটা কাজে ব্যাঘাত ঘটে- এটা ঠিক; কিন্তু বিরক্ত লাগা বলে যে ব্যাপার সেটা হয়তো আসে না। বৃষ্টি এলে মনের মধ্যে এক ধরনের রোমান্টিসিজম কাজ করে। আমার একটা গান রয়েছে যার ভিডিও ধারণ করা হয় বৃষ্টিতে। ওই গানটার ভিডিওগ্রাফি আমার বেশ পছন্দের। বৃষ্টি নিয়ে আমি আরো অনেক গান করেছি। তাছাড়া বৃষ্টি তো অন্য রকম এক ভালোলাগা তৈরি করেই।

‘বৃষ্টি হলেই ভিজতে মন চায়’

দীঘি, চিত্রনায়িকা

সব বয়সেই বৃষ্টির অনুভূতি একই রকম থাকে, বাচ্চাসুলভ। বৃষ্টি নামার প্রস্তুতি দেখলেই কেমন ছুটে যেতে ইচ্ছা হয়, একটু ভিজি মনে হয়। তবে একজন অভিনেত্রী হিসেবে যখন কাজে থাকি এবং সে সময় বৃষ্টি নামে- নিজের বাচ্চামিটা সামলে রাখতে হয়।

কারণ তখন আমার ওপর একটা দায়িত্ব থাকে। খুব খারাপ লাগে তখন যখন বৃষ্টিকে ছুঁতে না পারি।

এছাড়া খারাপ লাগা বা বিরক্ত হওয়ার কোনো কারণ নেই।

- মেলা প্রতিবেদক

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App