×

মেলা

বিশেষণে যায় চেনা

Icon

প্রকাশ: ০১ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

বিশেষণে যায় চেনা

বাংলাদেশ বেতারের বাণিজ্যিক কার্যক্রমের সঙ্গে যারা পরিচিত তারা অবশ্যই নাজমুল হুসাইন ও মাজহারুল ইসলামকে ভোলেননি। এ দুজন বাংলাদেশ বেতারে সিনেমার বিজ্ঞাপন প্রচার করতেন তাদের ভরাট কণ্ঠস্বরে। নানা উপমা-উপাধিতে তারকাদের নাম উচ্চারণ করে সিনেমার প্রচার করতেন। সেসব শুনে শুনেও অনেক তারকার নামের সঙ্গে যুক্ত হয়ে গেছে এসব বিশেষণ। মেলা স্মরণ করিয়ে দিচ্ছে তারকার নামের সঙ্গে যুক্ত সেসব ‘উপাধি’-

নাজমুল হুসাইনের দেয়া উপাধি

বিউটিকুইন শাবানা, ইন্টারন্যাশনাল ট্যালেন্ট ববিতা, ড্রিমগার্ল সুচরিতা, সুপারস্টার ফারুক, ড্যাশিং স্টার সোহেল রানা, মাস্টার মেকার এজে মিন্টু, গোল্ডেন জুবিলি ডিরেক্টর ইবনে মিজানসহ আরো অনেক।

মাজহারুল ইসলামের দেয়া খেতাব

তিনি নায়ক সম্রাট ডাকতেন রহমানকে। এছাড়া মুকুটহীন নবাব আনোয়ার হোসেন, মমতাময়ী আনোয়ারা, বলিষ্ঠ অভিনেতা বা সুপার পাওয়ার অ্যাক্টর গোলাম মুস্তফা, জনগণ নন্দিত নায়িকা শাবানা, আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বা ইন্টারন্যাশনাল ট্যালেন্ট ববিতা, সুনয়না সুচন্দা, ভয়াল ভয়ংকর মানুষ বা বল হেডেড জাম্বু, সুইটি কিংবা রুপবান কন্যা সুজাতা, অপরুপা কিংবা অদ্বিতীয়া অলিভিয়া, অনন্যা অঞ্জু, তিলোত্তমা নায়িকা দিতি, চার্মিং চম্পা, ফুলের নামের নায়িকা পপি, শিশিরস্নাত নায়িকা শাবনূর, মেগা স্টার উজ্জল, মৌ মৌ নায়িকা মৌসুমী, চন্দ্রকলা রুপী বা মুনলাইট হিরোইন পূর্ণিমা, রাজকুমার বা যুবরাজ নায়ক সালমান শাহ, কিং খান কিংভা অনলি ওয়ান শাকিব খান, রোমান্টিক রিয়াজ, রাফ অ্যান্ড টাফ কিংবা ট্র্যাজেডি কিং জসিম, মার্শাল আর্ট হিরো রুবেল, মিষ্টি মেয়ে কবরী, আনপ্যারালাল হিরো আলমগীর, ডান্সিং ডল অঞ্জনা, কোকিল কণ্ঠী সাবিনা ইয়াসমীন, ইন্টারন্যাশনাল সিঙ্গার রুনা লায়লা, রোমান্টিক রোজিনা, রাজকীয় হিরো ওয়াসিম, স্মার্ট হিরো জাফর ইকবাল, সুপার পাওয়ার হিরো ইলিয়াস কাঞ্চন, ম্যানলি হিরো মান্না, কমেডি কিং দিলদার, নীল নয়না কিংবা নটারিয়াস নতুন, দেবদাস নায়ক বুলবুল আহমেদ, হরর ভিলেন হুমায়ুন ফরিদী, স্মাশিং ভিলেন রাজিব, গø্যামার কুইন অপু বিশ্বাস, রোমান্টিক রোজিনা, ম্যান অব দ্য মিশা সওদাগর, হ্যান্ডসাম হিরো ওমর সানী, সুপার ভিলেন সাদেক বাচ্চু।

এছাড়াও চলচ্চিত্রের চিরসবুজ নায়ক বলা হয় প্রয়াত নায়ক জাফর ইকবালকে। সিনেমার মেগাস্টার প্রয়াত নায়ক জসীম। বিগ ম্যান বলা হতো প্রয়াত খল অভিনেতা জাম্বুকে। আর অকাল মৃত্যু চলচ্চিত্রের অমর নায়ক হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে রোমান্সের রাজা সালমান শাহকে।

এ দেশের বাংলা সিনেমার নবাব বলা হয় প্রয়াত চলচ্চিত্র অভিনেতা আনোয়ার হোসেনকে। তিনি বাংলার শেষ স্বাধীন নবাব সিরাজ-উদ-দৌলার চরিত্রে অভিনয় করে এই খ্যাতি পেয়েছিলেন। তাকে এখনো বাংলা সিনেমার মুকুটহীন নবাব বলেও সম্মান করা হয়। ঢাকাই সিনেমাতে ‘মহানায়ক’ খ্যাতি পেয়েছেন বুলবুল আহমেদ। তাকে বাংলার দেবদাসও বলা হতো।

প্রখ্যাত সাংবাদিক ও চিত্রনাট্যকার আহমদ জামান চৌধুরী নায়ক রাজ স্বীকৃতি দিয়েছিলেন নায়ক রাজ্জাককে। তিনি বিভিন্ন লেখাতে রাজ্জাককে নায়করাজ বলে লিখতেন। সেই থেকেই এই উপাধি তার নামের শেষে প্রতিষ্ঠা পেয়েছে। ফারুককে বলা হয় মিয়া ভাই। রওশন জামিলকে দেখলেই দর্শক ‘কুটনি বুড়ি’ বলে ডেকে উঠতেন। চলচ্চিত্রের সব্যসাচী মানুষ খান আতাউর রহমান পরিচিতি পেয়েছিলেন খান আতা নামে। মিষ্টি হাসির নায়িকা মৌসুমীর নামের আগে যোগ করা হয় প্রিয়দর্শিনী। বাপ্পারাজকে সিনেমার বিজ্ঞাপনগুলোতে পরিচয় করিয়ে দেয়া হতো স্যাক্রিফাইজিং সুপারস্টার হিসেবে। দুই বাংলার নায়ক বলা হয় ফেরদৌসকে। চলচ্চিত্রের জেন্টল ম্যান রিয়াজ। চলচ্চিত্রের ডেঞ্জার ম্যান বলা হয় অভিনেতা ডিপজলকে। চলচ্চিত্রে অ্যাকশন লেডি বলে খ্যাতি পেয়েছেন মুনমুন ও পপি।

নাটকের মানুষদের খেতাব

মঞ্চ নাটকে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ মঞ্চ সারথি বলা হয় আতাউর রহমানকে। মঞ্চের যুবরাজ প্রয়াত অভিনেতা খালেদ খান। মঞ্চকুসুম অভিনেত্রী শিমুল ইউসূফ। ছোটপর্দার নায়ক বলা হয় আফজাল হোসন। ছোটপর্দার মেগাস্টার বলা হয় অভিনেতা জাহিদ হাসানকে। ছোট পর্দার সুপারস্টার সজল ও অপূর্ব। ছোট পর্দায় সবচেয়ে জনপ্রিয়তা পাওয়া নাম ‘বাকের ভাই’। আসাদুজ্জামান নূর নামটি পেয়েছিলেন ‘কোথাও কেউ নেই’ নাটকে অভিনয় করে।

গানের তারকাদের খেতাব

রুনা লায়লাকে বলা হতো উপমহাদেশের গায়িকা। প্লেব্যাক সম্রাট বলা হয় এন্ড্রু কিশোরকে। ফোক সম্রাজ্ঞীর মুকুট মাথায় নিয়েছেন মমতাজ। লালন কন্যা বলা হয় ফরিদা পারভীনকে। গানের পাখি সাবিনা ইয়াসমিন। ব্ল্যাক ডায়মন্ড বলে খ্যাতি পেয়েছেন বেবী নাজনীন। গানের ভুবনে গুরু বলে খ্যাত প্রয়াত পপগুরু আজম খান। নগর বাউলের জেমসও গুরু বলে খ্যাতি লাভ করেছেন তার ভক্তদের মাঝে। এবি বলে পরিচিত এলআরবি ব্যান্ডের গায়ক আইয়ুব বাচ্চু। গানের যুবরাজ বলা হয় আসিফ আকবরকে।

:: মেলা প্রতিবেদক

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App