×

মেলা

চোখ এখন কানে

Icon

শ্রাবণী হালদার

প্রকাশ: ১৮ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

চোখ এখন কানে
জমকালো আয়োজনে গত ১৪ মে পর্দা উঠেছে চলচ্চিত্রের অন্যতম সম্মানজনক আসর কান চলচ্চিত্র উৎসবের। সম্মানিত অতিথি হিসেবে এই আয়োজন উদ্বোধন করেন তিনবার অস্কারজয়ী আমেরিকান অভিনেত্রী মেরিল স্ট্রিপ। অনুষ্ঠানে তাকে দেয়া হয়েছে সম্মানসূচক স্বর্ণপাম। ফরাসি কমেডিয়ান-অভিনেত্রী ক্যামিল কোতাঁনের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী মঞ্চে হাজির হন মূল প্রতিযোগিতা বিভাগের বিচারকদের প্রধান ‘বার্বি’র পরিচালক গ্রেটা গারউইগ। প্রতিদিনই বিভিন্ন দেশ থেকে উৎসবে হাজির হচ্ছেন চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা। কানের রেডকার্পেটে হাঁটতে প্রস্তুত নামকরা সব তারকারা। ৭৭তম আয়োজনের এ উৎসব চলবে ২৫ মে পর্যন্ত ছয় মিনিটের অভিবাদন কান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শনী হয়েছে বহুল প্রতীক্ষিত প্রিক্যুয়েল ‘ফিউরিওসা : অ্যা ম্যাড ম্যাক্স সাগা’। রুদ্ধশ্বাস অ্যাকশনে ভরপুর চলচ্চিত্রটির ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার দেখে দর্শকরা টানা ছয় মিনিট দাঁড়িয়ে অভিবাদন জানিয়েছেন। গত বুধবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টায় পালে দে ফেস্টিভ্যাল ভবনের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে প্রতিযোগিতার বাইরে ছিল এর প্রদর্শনী। জর্জ মিলারের পরিচালনায় তরুণী ফিউরিওসা চরিত্রে অভিনয় করেছেন আনিয়া টেলর-জয়। দর্শকদের করতালির সময় তিনি ক্যামেরায় চুম্বন উড়িয়ে দেন। ছবিটিতে খলচরিত্রে দেখা গেছে ক্রিস হেমসওয়ার্থকে। দর্শকদের টানা অভিবাদন পেয়ে অশ্রæসজল দৃষ্টিতে তাকিয়ে ছিলেন অস্ট্রেলিয়ান এই তারকা। ছয় মিনিটের করতালি শেষে জর্জ মিলার বলেন, ‘আমরা ছবিটির জন্য কঠোর পরিশ্রম করেছি। আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ।’ কান উৎসবের সঙ্গে জর্জ মিলারের সম্পর্কটা নিবিড়। ১৯৯৯ সালে মূল প্রতিযোগিতা বিভাগে বিচারকদের মধ্যে ছিল তার নাম। ‘ম্যাড ম্যাক্স : ফিউরি রোড’ ২০১৫ সালে প্রতিযোগিতার বাইরে স্থান পায়। ২০১৬ সালে মূল প্রতিযোগিতা বিভাগের বিচারকদের প্রধান হন তিনি। সর্বশেষ ২০২২ সালে তার পরিচালিত ‘থ্রি থাউজেন্ড ইয়ারস অব লংগিং’ দেখানো হয় প্রতিযোগিতার বাইরে। ক্রিস হেমসওয়ার্থ ও আনিয়া টেলর-জয় উভয়ে গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরের সামনে বিছানো লালগালিচায় পা রাখার আগে ঝকঝকে দামি গাড়ি থেকে নেমে সড়কের ধারে অপেক্ষমাণ অনেক ভক্তকে অটোগ্রাফ ও সেলফি বিলিয়েছেন। তবে ছেলেদের জন্য বাধ্যতামূলক ড্রেস কোড ভেঙেছেন সাদা টাক্সেডো জ্যাকেট পরা ‘থর’ তারকা ক্রিস হেমসওয়ার্থ। তিনি নিজের বো-টাই ভুলে অস্ট্রেলিয়ায় ফেলে এসেছেন! লালগালিচায় ‘ওয়াইল্ড ডায়মন্ড’ বুধবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টায় গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে ‘ওয়াইল্ড ডায়মন্ড’-এর ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হয়েছে। এটি ফ্রান্সের আগাত রিদাঁজে পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র। সমসাময়িক রিয়েলিটি টিভি অনুষ্ঠানের প্রতি তরুণ-তরুণীদের আগ্রহকে কেন্দ্র করে নারীকেন্দ্রিক গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে এটি। গল্পের প্রধান নারী চরিত্রের মনোভাব সমাজের শ্রেণিবৈষম্যের বিরুদ্ধে। একই ভেন্যুতে রাত ১০টা ৩০ মিনিটে ছিল সুইডেনের মান্নেস ফন হোর্ন পরিচালিত সাদাকালো ছবি ‘দ্য গার্ল উইথ দ্য নিডেল’। দ্যুতি ছড়ালেন উর্বশী চলচ্চিত্রের মর্যাদাপূর্ণ আয়োজন ‘কান চলচ্চিত্র উৎসব’-এর ৭৭তম আসরে হাজির হয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী উর্বশী রাউতেলা। উৎসবের লালগালিচায় তোলা বেশকিছু স্থিরচিত্র উর্বশী তার ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন। তাতে দেখা যায়, গোলাপি রঙের গাউনে সেজেছেন উর্বশী। ক্যাপশনে লেখেন, ‘কান চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে, আমার প্রিয় মেরিল স্ট্রিপ।’ প্রিয় অভিনেত্রীকে এমন লুকে দেখে প্রশংসা করছেন উর্বশীর ভক্ত-অনুরাগীরা। যশ লেখেন ‘দারুণ প্রিয়।’ একজন লেখেন, ‘তোমার সৌন্দর্যের সঙ্গে কেউ পাল্লা দিতে পারবে না।’ অন্যজন লেখেন, ‘গোলাপি রানি।’ এমন অসংখ্য মন্তব্য কমেন্ট বক্সে দেখা গেছে। জানা যায়, উর্বশী রাউতেলার পোশাকটি ডিজাইন করেছেন তারকা ডিজাইনার খালেদ ও মারওয়ান। এটি তৈরি করেছে লেবাননের বৈরুতে অবস্থিত আউত কুচার নামে একটি ফ্যাশন হাউস। ‘সেভেন সামুরাই’র ৭০ বছর পূর্তি এবারের আসরের অফিসিয়াল পোস্টারে স্থান পেয়েছে জাপানের প্রয়াত কিংবদন্তি পরিচালক আকিরা কুরোসাওয়ার ‘র‌্যাপসোডি ইন অগাস্ট’ চলচ্চিত্রের একটি দৃশ্য। তার আরেক মাস্টারপিস ‘সেভেন সামুরাই’ (১৯৫৪) মুক্তির ৭০ বছর পূর্তি হলো। এ উপলক্ষে কান ক্ল্যাসিকস বিভাগে দ্যুবুসি থিয়েটারে স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় ছিল এর প্রদর্শনী। আঁ সাঁর্তে রিগার উদ্বোধন পালে দে ফেস্টিভ্যাল ভবনের দ্যুবুসি থিয়েটারে সন্ধ্যা ৭টা ৩০ মিনিটে আঁ সাঁর্তে রিগার উদ্বোধন হয়। অফিসিয়াল সিলেকশনের এই বিভাগের উদ্বোধনী চলচ্চিত্র ছিল আইসল্যান্ডের রুনার রুনারসন পরিচালিত ‘হোয়েন দ্য লাইট ব্রেকস’। সাগরপাড়ে ‘মি টু’ আন্দোলন ভূমধ্যসাগরের তীরে খোলা আকাশের নিচে বুধবার স্থানীয় সময় রাত ৯টা ৩০ মিনিটে দেখানো হয় ফরাসি পরিচালক জুডিথ গোদরেশের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘মি টু’। একই দিন আঁ সাঁর্তে রিগা বিভাগের উদ্বোধনী আয়োজনে ১৭ মিনিটের এই ছবির প্রদর্শনীতে ছিলেন তিনি। এর নামকরণে বিশ্ব চলচ্চিত্রে যৌন হেনস্তার শিকার নারীদের নীরবতা ভাঙার আন্দোলনকে তুলে ধরা হয়েছে। এতে বিভিন্ন অংশ বর্ণনা করেছেন জুডিথের মেয়ে তেস বার্তেলেমি। ‘মি টু’র পর সিনেমা দ্যু লা প্লাশ বিভাগে দেখানো হয় ‘সাইলেক্স অ্যান্ড দ্য সিটি’। ফ্রান্স ও বেলজিয়ামের ১ ঘণ্টা ২০ মিনিটের অ্যানিমেটেড ছবিটি পরিচালনা করেছেন জ্যঁ-পল গিঁগে ও জুলিয়েন বেরজোঁ। ২০০৯ সাল থেকে পাঠকপ্রিয়তা পেয়েছে কমিক বুক সিরিজ ‘সাইলেক্স অ্যান্ড দ্য সিটি’। এটি অবলম্বনে এবারই প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য কাহিনিচিত্র তৈরি হলো। ভাঙা হাতে লালগালিচায় ঐশ্বরিয়া ফ্রান্সের দক্ষিণ উপকূলীয় শহর কানে বসেছে চলচ্চিত্র দুনিয়ার সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ আসর ‘কান চলচ্চিত্র উৎসব’। এই আসরে ইতোমধ্যে উপস্থিত হয়েছেন দেশি-বিদেশি তারকারা। বলিউডের অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন ৭৭তম কান চলচ্চিত্র উৎসবে ভাঙা হাতে লালগালিচায় দেখা দিলেন। গত বৃহস্পতিবার কান চলচ্চিত্র উৎসবের দ্বিতীয় দিনে লালগালিচায় রূপের দ্যুতি ছড়িয়েছেন সাবেক এই বিশ্বসুন্দরী। ঐশ্বরিয়া রেড কার্পেটে হেঁটেছেন ফাল্গুনি-শেন পিককের কালো-সোনালি গাউন পরে। গাউনের লম্বা টেইল নজর কেড়েছে সবার। মেয়ে আরাধ্যার হাত ধরেই ফ্রান্সে হাজির হয়েছেন অভিনেত্রী। প্লাস্টার জড়ানো হাতে তাকে মুম্বাই এয়ারপোর্টে দেখে চমকে গিয়েছিলেন অনেকেই। রেড কার্পেটেও প্লাস্টার হাতেই দেখা মিলল তার। ২০০২ সালে কান চলচ্চিত্র উৎসবে ভারী স্বর্ণের গহনা পরে হেঁটেছিলেন ঐশ্বরিয়া। ওই বছরই তার ছবি দেবদাস সেখানে প্রিমিয়ার হয়েছিল। সেবার অভিনেতা শাহরুখ খান এবং পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানসালির সঙ্গে উপস্থিত হয়েছিলেন। এরপর থেকে প্রায় প্রতি বছরই উৎসবে হাজির থেকেছেন ঐশ্বরিয়া। :: শ্রাবণী হালদার

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App