×

বিনোদন

কঙ্গনার চড়কাণ্ডে নতুন মোড়

Icon

প্রকাশ: ১১ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

 কঙ্গনার চড়কাণ্ডে নতুন মোড়

বিনোদন ডেস্ক : বিজেপির নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতকে প্রকাশ্যে চড় মারার ঘটনাকে ঘিরে বেশ কয়েকদিন ধরেই উত্তাল সোশ্যাল মিডিয়া। গত বৃহস্পতিবার চণ্ডীগড় বিমানবন্দরে বলিউডের ‘কুইন’কে সিআইএসএফের এক নারী চড় মারেন। চড় মারার কারণ হিসেবে তিনি কৃষক আন্দোলনের প্রসঙ্গ তোলেন। এ ঘটনার পর গোটা দেশ কার্যত দুভাগে বিভক্ত হয়ে যায়। নারী সদস্যের সমর্থনে যেমন বহু মানুষকে সোচ্চার হতে দেখা গেছে, তেমনই নিরাপত্তার প্রসঙ্গ তুলে অনেকেই তার কাজের বিপক্ষে প্রতিবাদ করছেন। কঙ্গনাকে চড় মারার জন্য সিআইএসএফের ওই নারীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়। গত রবিবার এক সিনিয়র পুলিশ অফিসার জানান সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তিন সদস্যের একটি বিশেষ তদন্ত দল গঠন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে সম্মিলিত কিষাণ মোর্চা (অ-রাজনৈতিক) এবং কিষাণ মজদুর মোর্চাসহ বেশ কয়েকটি কৃষক সংগঠনের দ্বারা সিআইএসএফ মহিলা কনস্টেবলের সমর্থনে মোহালিতে একটি পদযাত্রারও আয়োজন করা হয়েছিল। তাদের দাবি, ওই নারী সদস্যের ওপর যেন কোনোভাবে অবিচার না হয়। কৃষক আন্দোলনের নেতাদের দাবি, বিষয়টি নিয়ে যেন সুষ্ঠুভাবে তদন্ত করা হয়। ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি করে তারা মোহালির সিনিয়র সুপারিনটেনডেন্ট অব পুলিশ (এসএসপি) সন্দীপ গর্গের কাছে একটি স্মারকলিপিও হস্তান্তর করেছেন। মোহালির পুলিশ সুপার হরবীর সিং অটওয়াল এবার জানালেন, তার নেতৃত্বে তিন সদস্যের এসআইটি গঠন করা হয়েছে। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, বিষয়টি নিয়ে একেবারে একটি নিরপেক্ষ তদন্ত করা হবে এবং এসএসপি মোহালির কাছে তারপর একটি প্রতিবেদনও জমা দেয়া হবে। পুলিশের পক্ষ থেকে আরো জানা গেছে, একজন নারী পুলিশ অফিসারও এই এসআইটির একটি গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হিসেবে থাকবেন। প্রসঙ্গত, কঙ্গনা রানাউতকে প্রকাশ্যে বিমানবন্দরে চড় মারার ঘটনা নিয়ে অভিনেতা অনুপম খের, শাবানা আজমি, শেখর সুমন ও তার ছেলে অধ্যয়ন সুমনসহ একাধিক বলিউড তারকা তাদের মতামত জানান। শুধু বলিউড নয়, টলিউডের একাধিক তারকাও তাদের মতামত রাখেন। এদিকে চড়কাণ্ডে মেয়ের দোষ নেই দাবি করে সেই কনস্টেবলের মা জানালেন, কঙ্গনাই হয়তো উস্কে দিয়েছে তাকে। তার মেয়ের দোষ নেই। কুলবিন্দর কৌরের পিতা-মাতার বাড়ি সাতলুজ নদীর ধুসি বাঁধের কাছে। এখানকারই এক সাধারণ বাড়িতে তার বাবা-মা, দাদা-দাদি এবং তার ভাইয়ের পরিবার থাকে এবং তারা প্রত্যেকেই মধ্যস্তরের কৃষক। কুলবিন্দর কৌর ২০০৮ সালে সিআইএসএফে যোগ দিয়েছিলেন এবং ২০১৫ সালে জম্মুতে বিয়ে করেছিলেন। কৌরের ভাই শের সিং কিষাণ মজদুর সংগ্রাম কমিটির একজন নেতা। এ ঘটনায় তার মা বীর কৌর বলেন, ‘আমি খামার আন্দোলনের অংশ ছিলাম এবং খামার আন্দোলনের সময় দিল্লি সীমান্তে বসেছিলাম। কঙ্গনা মন্তব্য করেছিলেন বলে আমি কি এক পয়সাও পাব? কঙ্গনা তাকে (মেয়ে কুলবিন্দুরকে) প্রথমে কিছু বলে থাকতে পারে, অন্যথায় আমার মেয়ে খুব ভালো। আমি প্রথমে একটি ভিডিও থেকে মামলার ঘটনা জানতে পারি।’ অভিযুক্ত কুলবিন্দর কৌরের বাবা প্রায় এক বছর ধরে অসুস্থ এবং তাকে এই বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি বলেও জানান তার মা বীর কৌর। তিনি জানান, কুলবিন্দরের বাবা ও তার দুই জেঠাও সেনাবাহিনীতে ছিলেন এবং ১৯৬৫ সালের যুদ্ধের সময় কাজ করেছিলেন।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App