×

বিনোদন

দর্শক না থাকলে সিনেমা চালাবে না স্টার সিনেপ্লেক্স

Icon

প্রকাশ: ১৬ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

দর্শক না থাকলে সিনেমা  চালাবে না স্টার সিনেপ্লেক্স
বিনোদন প্রতিবেদক : বেশ কয়েকদিন ধরেই স্টার সিনেপ্লেক্স নিয়ে চলচ্চিত্রাঙ্গনে আলোচনা আছে। অনেক নির্মাতা ও প্রযোজকের দাবি- তাদের চলচ্চিত্রের সঙ্গে বাজে আচরণ করছে স্টার সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ। শুধু তাই নয়, সপ্তাহের মাঝপথে সিনেমা নামিয়ে নেয়ার ও দেয়ার ঘটনাও ঘটেছে। এসব অভিযোগ আর নিজেদের পরিকল্পনা জানতেই গত সোমবার সন্ধ্যায় আয়োজন করা হয়েছিল এক সংবাদ সম্মেলন। সেখানে দেশের প্রধান মুভি চেইন স্টার সিনেপ্লেক্সের চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান রুহেল বলেন, দর্শক না থাকলে বা ডিমান্ড না থাকলে সেই সিনেমা চালাবে না স্টার সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ।’ রুহেল বলেন, ‘কোনো ছবি যদি আমার এখানে না চলে, এটা আমার দোষ না। এটা তাদের (পরিচালক-প্রযোজক) ব্যর্থতা। তারা দর্শক টানতে পারেননি, ঠিকমতো প্রমোশন করেননি, তারা হয়তো সিনেমাটি ঠিকমতো বানাননি। এই ব্যর্থতার দায় তারা আমার ওপর দিতে পারেন না। এবং তারা প্রেস কনফারেন্স করে বলছে যে এখানে কন্ট্রোল করতে হবে। কীসের কন্ট্রোল করবে? বিনিয়োগ করছি আমি, ঝুঁকিও আমিই নিচ্ছি।’ ‘শ্যামা কাব্য’ ও ‘ডেডবডি’ সিনেমা দুটি কেন সরিয়ে নেয়া হলো এ বিষয়ে জানতে চাইলে রুহেল বললেন, ‘অনেকে অনেক ধরনের ছবি করছেন। তারা মার্কেটের কথা চিন্তা করছেন না। নিজেরা নিজেদের মতো ছবি তৈরি করছেন। মানসম্মত ছবি করছেন না। এখন আমার ওপর প্রচুর চাপ আসে, ওই ছবিটা দেখাতেই হবে। এটা তো হতে পারে না। আমি মনে করি, স্টার সিনেপ্লেক্স হচ্ছে একটা শপ এবং মুভি একটা প্রোডাক্ট। এখন প্রোডাক্ট ভালো না হলে আমি কেন নেব? দর্শক এটা কিনবে কি কিনবে না- সেটা দর্শকের ব্যাপার। দর্শকরা সিদ্ধান্ত নেবেন। তারা যদি একটা প্রোডাক্ট খারিজ করে দেন, তাহলে এর ব্যর্থতা বা দায়বদ্ধতা আমি নেব না। এবং এ জন্য তারা (পরিচালক-প্রযোজক) অভিযোগ করতে পারেন না।’ যোগ করে তিনি বলেন, ‘কিছু কথা উঠছে এখন; অনেকে বলছেন এখানে কন্ট্রোল করার মতো কোনো লোক নেই। আমরা কি মাস্তানি কিংবা গডফাদার চাই? যে সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি কন্ট্রোল করবে? মুক্ত বাজার অর্থনীতিতে সবকিছু সাপ্লাই-ডিমান্ডের ওপর চলে। এখন আমরা চাই ভালো ছবি বানান। আমি উন্মুক্ত, আমি দেখাতে চাই, আমি বাংলা ছবির পক্ষে।’ এ ছাড়া ঈদুল ফিতরে বিদেশি সব সিনেমা স্টার সিনেপ্লেক্স থেকে নামিয়ে নেয়া হয়েছিল বলে উল্লেখ করে রুহেল বললেন, ‘আপনারা জানেন যে, এই ঈদে আমরা হলিউডের সব ছবি বন্ধ করে দিয়েছিলাম। আর বলিউড তো নেই-ই, কারণ নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। একটা বাদে বাকি সব হল বাংলা ছবির জন্য চালু রেখেছিলাম। সমস্যা যেটা হয় যে, ঈদে ৮-১০টা ছবি রিলিজ করবে। এটা আসলে বাস্তবসম্মত না।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App