×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

এই জনপদ

নওগাঁর মান্দা

প্রকৌশলী ও সিওর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

Icon

প্রকাশ: ১০ জুলাই ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধি : মান্দায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) অফিসের প্রকৌশলী শাইদুর রহমান মিঞা ও কমিউনিটি অর্গানাইজার (সিও) আবুল কাসেমের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন আরইআরএমপি-৩ ও এলসিএস নারী কর্মীরা।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আরইআরএমপি-৩ ও এলসিএসের ভুক্তভোগী নারীরা ওই দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেন।

সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী নারীরা অভিযোগ করে বলেন, প্রকৌশলী শাইদুর রহমান মিঞার ছত্রছায়ায় সিও আবুল কাসেম আমাদের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নিয়েছেন। এ বিষয়ে প্রকৌশলীর কাছে বারবার অভিযোগ করলেও কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি। প্রকৌশলীর ছত্রছায়ায় সিও কাসেম কোনো কিছু তোয়াক্কা করেন না। তিনি নারীদের চাকরি দেয়ার নামে ৫০-৮০ হাজার টাকা করে নিয়েছেন। সিও আবুল কাসেম আরইআরএমপি-৩ ও এলসিএস নারীদের বেতন উত্তোলনের সময় মাস্টার রোলে নিজে স্বাক্ষর করে বেতন উত্তোলন করেন। এরপর তিনি উত্তোলিত বেতন থেকে ওই নারীদের বেতন কর্তন করে নিজের পকেটস্থ করে। কেউ এর প্রতিবাদ করলে চাকরি থাকবে না বলে হুমকি দেন। ভয়ে সব অন্যায় নীরবে সহ্য করে ওই অসহায় নারীরা। প্রকৌশলীর সহযোগিতায় সিও কাসেম বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন।

ভুক্তভোগীরা আরো জানান, তাদের ১২ মাসের পরিবর্তে ১০ মাসের বেতন দেয়া হয়। আবার প্রদেয় বেতন থেকেও টাকা কেটে রাখে সিও কাসেম। অচিরেই দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা শাইদুর রহমান মিঞা ও কমিউনিটি অর্গানাইজার (সিও) বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তারা জোর দাবি জানান। সংবাদ সম্মেলনে অংশ গ্রহণ করেন এলসিএসের শরিফুন বেওয়া, জায়েদা বেগম, ছবিজান বেগম, সাজেদা বেগম, কাজল রেখা, আরইআরএমপি-৩ পেয়ারা বেগম ও আঙ্গুর বেগমসহ ২০ জন ভুক্তভোগী নারী।

এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী শাইদুর রহমান মিঞা অভিযোগটি অস্বীকার করে বলেন, আপনারা সিওর সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এ বিষয়ে আমি কিছু জানি না।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App