×

এই জনপদ

নোয়াখালীতে কুড়ালের কোপে কৃষকের মৃত্যু

জমি নিয়ে বিরোধ

Icon

প্রকাশ: ০৫ জুলাই ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালীর সদর উপজেলায় প্রতিবেশীর চাইনিজ কুড়ালের কোপে আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন মো. মহিন উদ্দিন (৩৮) নামের এক কৃষক। গত বুধবার রাত সাড়ে ১১টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত মহিন উপজেলার আন্ডারচর ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের আন্ডারচর গ্রামের বশির উল্লাহ বেপারি বাড়ির মো. বশির উল্লার ছেলে। তিনি পেশায় একজন কৃষক এবং চার সন্তানের পিতা।

নিহতের বড় ভাই মো. মোছলে উদ্দিন অভিযোগ করে বলেন, আমাদের বাড়ির ৪০০ ফুট উত্তরে ২৪ শতাংশ জায়গা নিয়ে প্রবিবেশী আবুল বাশারের পরিবারের সঙ্গে বিরোধ চলছিল। গত ১৯ জুন গভীর রাতে বাশার তার আরো দুই ভাই আব্বাস ও মামুনুর রশীদের নেতৃত্বে ২৫-৩০ জন আমাদের বিরোধপূর্ণ জায়গায় ঘর নির্মাণ করে। বিষয়টি জানতে পেরে আমি সুধারামা থানার পুলিশকে মোবাইলে জানাই। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে অভিযান চালায়। পুলিশকে খবর দেয়ায় বাশার ও তার লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে ওইদিন রাত আড়াইটার দিকে আমাদের বসতবাড়িতে হামলা চালায়। হামলায় আমার বাবাসহ পরিবারের সাতজন গুরুতর আহত হয়। এর মধ্যে মহিনকে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে মাথায় কুপিয়ে গুরুতর জখম করা হয়। পরে তাকে প্রথমে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়। হামলার ঘটনায় আমরা ১৯ জনকে আসামি করে সুধারাম থানায় একটি মামলা দায়ের করেছি।

সুধারাম থানার ওসি মীর জাহেদুল হক রনি বলেন, ইতোমধ্যে পুলিশ মামলার কয়েকজন আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে। এখন গুরুত্বর জখমের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় হত্যা মামলার ধারা সংযুক্ত করা হবে। পুলিশ অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App