×

এই জনপদ

বোয়ালমারী

শিশু ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় যুবকের মৃত্যুদণ্ড

Icon

প্রকাশ: ০৫ জুন ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

ফরিদপুর শহর প্রতিনিধি : বোয়ালমারীর রূপাপাত ইউনিয়নের ইছাডাঙ্গা গ্রামের ১১ বছর বয়সি শিশুকে ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় রাসেল সিকদার (২৩) নামে এক যুবককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে পাঁচ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ২টায় ফরিদপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. হাফিজুর রহমান এ আদেশ দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত রাসেল রূপাপাত ইউনিয়নের ইছাডাঙ্গা গ্রামের মনোয়ার সিকদারের ছেলে। রায় ঘোষণার সময় আদালতে হাজির ছিলেন তিনি। আদালত সূত্রে জানা যায়, শিশুটি রাসেলের পূর্বপরিচিত। তাদের বাড়ির পাশে একটি মুদি দোকান ছিল। ওই দোকানে রাসেলের কিছু টাকা বাকি ছিল। ঘটনার দিন ২০২২ সালের ২২ আগস্ট সন্ধ্যার দিকে রাসেল শিশুটিকে বাড়ি থেকে পাওনা টাকা নিয়ে আসতে বললে সে রাসেলের বাড়ি টাকা আনতে যায়। এ সময় রাসেল বাড়িতে একা থাকায় শিশুটিকে প্রথমে ধর্ষণ করে। পরে ধর্ষণের কথা জানাজানির ভয়ে শিশুটিকে হত্যা করে। ওদিকে শিশুটির পরিবার তাকে খুঁজে না পেয়ে ৯৯৯ নম্বরে কল করে পুলিশকে খবর দেয়া হয়। রাসেল তখন পালানোর চেষ্টা করলে তাকে কৌশলে আটক করা হয়। পরে রাসেলের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে গোসলখানার ভেতর থেকে শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই ঘটনায় রাসেলকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করলে নিজেই হত্যার বর্ণনা দিয়ে জবানবন্দি দেয় রাসেল।

এ ঘটনায় নিহত শিশুর পিতা মো. মোক্তার হোসেন পরের দিন বাদী হয়ে বোয়ালমারী থানায় মামলা করেন। ২০২৩ সালের ৩০ এপ্রিল আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন বোয়ালমারী থানার পরিদর্শক মো. আমজাদ হোসেন। পরে শিশু ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে রাসেলকে অভিযুক্ত ঘোষণা করেন আদালত। এ বিষয়ে নিহতরে বাবা মোক্তার হোসেন বলেন, আমরা এলাকায় নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। রায় কার্যকর না হওয়া পর্যন্ত আমরা সন্তুষ্ট হব না।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App