×

এই জনপদ

একাদশে ভর্তির আবেদনে জটিলতা কাটছেই না

Icon

প্রকাশ: ২৯ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

কাগজ প্রতিবেদক : একাদশ শ্রেণিতে অনলাইনে ভর্তির সফটওয়্যারে লিঙ্গ জটিলতার পরে এবার দেখা দিয়েছে পেমেন্ট নিয়ে নতুন বিপত্তি। একজন ভর্তিচ্ছুকে আবেদন সফল করতে হলে অবশ্যই আগে পেমেন্ট করতে হবে। সেক্ষেত্রে ভর্তিচ্ছুদের পেমেন্ট সফল দেখানোর পরেও আবেদন করা যাচ্ছে না। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আবেদনের সফটওয়্যারে এমন ত্রæটির কথাই জানিয়েছেন অসংখ্য ভর্তিচ্ছু।

এ ব্যাপারে সফটওয়্যার কর্তৃপক্ষও অপেক্ষা করতে একটি বার্তা দিয়েছে। সেখানে লেখা রয়েছে, ‘পেমেন্ট গেটওয়ে পেমেন্ট সফল দেখানো সত্ত্বেও যদি আবেদনের পোর্টালে আবেদন করা সম্ভব না হয় তাহলে দয়া করে অপেক্ষা করুন।’ গেটওয়েতে কারিগরি সমস্যার কারণে পেমেন্ট-এর তথ্য আবেদনের পোর্টালে আসতে দেরি হচ্ছে।

আবেদনের পোর্টালে আবেদনকা রীর লিঙ্গ ভুল দেখানো সংক্রান্ত একটি ত্রæটি গতকাল সকালে সমাধান করা হয়েছে। তবু ভর্তিচ্ছুরা অনেক চেষ্টা করেও কিছুতেই আবেদন করতে পারছিলেন না। তাদের প্রক্রিয়া আটকে যাচ্ছিল লিঙ্গ সংক্রান্ত মেন্যুতে। প্রতি বছরের মতো এবারো এ কাজের ঠিকাদার বুয়েটের সিএসই বিভাগ তখন জানিয়েছিল, সফটওয়্যারের জটিলতা কাটানোর চেষ্টা চলছে। সন্ধ্যা ৬টার পর সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। কিন্তু রবিবার সন্ধ্যা নয়, প্রায় দেড় দিন পর গত সোমবার বিকালে লিঙ্গ সংক্রান্ত মেন্যুটিই বাদ দিয়ে সার্ভার সচল করা সম্ভব হয়। তবে, প্রোফাইল খোলার পর লিঙ্গ পরিচয়ের সুযোগ রাখা হয়েছে। তারপরও অনেকেই জানিয়েছেন, ভর্তির আবেদনের জন্য সার্ভারে ঢুকতে পারেননি তারা। আবার অনেকেই আবেদন করা গেছে বলে জানিয়েছেন।

আগামী ১১ জুন পর্যন্ত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণরা কেবল অনলাইনে (িি.িীরপষধংংধফসরংংরড়হ.মড়া.নফ) ভর্তির আবেদন করতে পারবেন। তিন ধাপে আবেদন নেয়া হবে।

বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, রাজধানীর কলেজগুলোয় ভর্তি ফি সর্বোচ্চ ৭ হাজার ৫শ টাকা, ইংরেজি মাধ্যমে ৮ হাজার ৫শ টাকা। ঢাকা বাদে অন্য মেট্রোপলিটন এলাকায় ৫ হাজার, জেলা শহরে ৩ হাজার এবং উপজেলায় আড়াই হাজার টাকা। এটি সর্বোচ্চ ভর্তি ফি।

এবার কলেজগুলোয় ২৫ লাখ আসন থাকলেও পাস করেছেন ১৬ লাখ ৭২ হাজার জন। সেই হিসেবে ৮ লাখের বেশি আসন খালি থাকবে। তবে ভালো কলেজগুলোয় ভর্তির প্রতিযোগিতা হবে।

উল্লেখ্য, চলতি বছর এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেন ২০ লাখ ২৪ হাজার ১৯২ জন পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে পাস করেছেন ১৬ লাখ ৭২ হাজার ১৫৩ জন। এক লাখ ৮২ হাজার ১৩২ শিক্ষার্থী জিপিএ ৫ পেয়েছেন। ৯টি সাধারণ, মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ডে গড় পাসের হার ৮৩ দশমিক ০৪ শতাংশ। দেশে মানসম্পন্ন ও ভালো কলেজ হিসেবে বিবেচিত প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা দুইশর কিছু বেশি। এসব কলেজে আসন আছে এক লাখের কাছাকাছি। এগুলোতেই শিক্ষার্থীদের ভর্তির আগ্রহ বেশি থাকবে। তবে মেধাবী শিক্ষার্থীদের আগ্রহ থাকবে রাজধানীর দিকে। ঢাকায় মানসম্পন্ন কলেজের সংখ্যা ২৫ থেকে ৩০টি। এগুলোয় ভর্তিতে প্রতি বছর তীব্র প্রতিযোগিতা হয়। এবারো হবে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App