×

এই জনপদ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ

রেমালের বৃষ্টিতে বাড়বে আমের ওজন

Icon

প্রকাশ: ২৮ মে ২০২৪, ১২:০০ এএম

প্রিন্ট সংস্করণ

শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি : রেমালের বৃষ্টিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জে আমের ওজন বাড়বে। এ বৃষ্টিতে আমের উপকার হলো অনেক। কৃষকের সেচ থেকে অর্থ বাচবে।

গতকাল সোমবার বিকালে এ তথ্য জানিয়েছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ আঞ্চলিক উদ্যানতত্ত্ব গবেষণাকেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মুখলেসুর রহমান।

গত রবিবার সন্ধ্যা থেকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল। এর প্রভাবে চাঁপাইনবাবগঞ্জেও মুষলধারায় বৃষ্টি হচ্ছে। বাগান চাষিরা এ বৃষ্টিকে বলছেন আমের জন্য আর্শিবাদ। তারা বলেন, চলতি মৌসুমে এমনিতে গাছে মুকুল পরে এসেছিল। আবার মুকুল ফোটার পরে তীব্র তাপপ্রবাহে গুটি বড় হয়নি। সঠিকভাবে সেচসহ সার্বিক পরিচর্যা করতে না পারায় গুটি একেবারেই শুকিয়ে যায়।

শিবগঞ্জ পৌর এলাকার সেলিমাবাদ মহল্লার আমচাষি ও উদ্যোক্তা ইসমাইল হোসেন শামীম খান বলেন, আম গাছে মুকুল ও গুটি আসার পর থেকে টিকিয়ে রাখতে প্রচুর পরিমাণে সেচ দিতে হয়েছে। এতে কয়েকগুণ খরচ বাড়লেও আমের সাইজ বড় হয়নি। তিনি বলেন, একেকটি ফজলি, আশ্বিনা ও খিরসাপাতসহ আকারে বড় জাতের আমগুলো এখনো গুটি হয়ে আছে। তবে রেমালের বৃষ্টিতে বড্ড উপকার হলো। চাষিরা সেচ থেকে তাদের অর্থ বাচবে। এ ব্যাপারে চাঁপাইনবাবগঞ্জ আঞ্চলিক উদ্যানতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মুখলেসুর রহমান বলেন, তীব্র খরায় আম গাছে পর্যাপ্ত রস পাইনি। যার ফলে আমের সাইজ বড় হয়নি। সেচের অভাবে আবার অনেক গাছের আম ঝরে গেছে। তবে এ মুহূর্তে যে বৃষ্টি হচ্ছে, তা আমের সাইজ বড় করবে, দীর্ঘস্থায়ী হবে মেয়াদ। কৃষি বিভাগ জানায়, এবার চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৩৭ হাজার ৬০৪ হেক্টর জমিতে আম বাগান রয়েছে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App